Logo
শিরোনাম

২০ বছরেই যেভাবে সফলতার চূড়ায় পৌঁছান জাকারবার্গ

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৪জন দেখেছেন
Image

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের নাম শোনেননি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। তবে জানেন কি কীভাবে ফেসবুক তৈরি করেছিলেন জাকারবার্গ? ১৯৮৪ সালের ১৪ মে নিউইয়র্কের হোয়াইট প্লেইন এলাকাতে মনোচিকিৎসক ক্যারেন ও দন্তচিকিত্সক জাকারবার্গের ঘরে জন্ম নেন মার্ক জাকারবার্গ। তার ছিল আরও তিন বোন র্যান্ডি, ডোনা এবং এরিএল।

আর্ডসেলি হাই স্কুলে জাকারবার্গ গ্রিক এবং ল্যাটিন ভাষায় পারদর্শী হয়ে ওঠেন। তিনি ফিলিপস এক্সটার একাডেমীতে স্থানান্তরিত হন। সেখানে তিনি বিজ্ঞান এবং ক্লাসিক্যাল শিক্ষায় পুরস্কৃত হন। তিনি অসিক্রীড়া তারকা ছিলেন এবং অসিক্রীড়া দলের অধিনায়ক ছিলেন। কলেজে তিনি মহাকাব্যিক কবিতার লাইন থেকে আবৃত্তি করার জন্য পরিচিত ছিলেন।

তবে সেখানেই থেকে থাকেননি ক্লাসিক সাহিত্যে মার্ক জাকারবার্গ বিশেষ ডিপ্লোমা অর্জন করেন। তবে বরাবরই ঝোঁক ছিল কম্পিউটারের প্রতি। বিশ্বের অন্যতম বিদ্যাপীঠ হাভার্ডে ভর্তি হন কম্পিউটার সায়েন্সে। সেখানেও তিনি অল্প সময়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেন। একজন ভালো ছাত্র হিসেবে নায়, এজজন প্রোগ্রামের হিসেবে। কারো যদি কোনো সফটওয়্যার তৈরির প্রয়োজন হত সবাই একসঙ্গে আঙুল তুলত জুকারবার্গের দিকে। বলত এতো জুকারবার্গের কাজ, এটা তার জন্য হাতের খেলমাত্র।

প্রোগ্রামিংয়ে তার আগ্রহ ছিল স্কুল জীবন থেকেই। মার্কের বয়স যখন প্রায় ১২ বছর, তখন তিনি অ্যাটারি বেসিক ব্যবহার করে একটি মেসেজিং প্রোগ্রাম তৈরি করেছিলেন। মার্ক যার নাম দিয়েছিলেন ‘জুকনেট’। মার্কের এই জুকনেট বাবার অফিসে ব্যবহার করতেন যাতে রুমে চিৎকার না করে একটি নতুন রোগীর নোটিশ দেওয়া যায়। মার্ক এটি পরিবারের সঙ্গে ভাব বিনিময়ের জন্যেও ব্যবহার করতেন। পরে বন্ধুদের সঙ্গে মজা করতে ব্যবহার করতে শুরু করেছিলেন জুকনেট। সেটি তার বন্ধু মহলেও বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল।

jagonews24

মার্কের কম্পিউটারের প্রতি আগ্রহ দেখে তার বাবা-মা একজন ব্যক্তিগত কম্পিউটার শিক্ষককে রাখেন। ডেভিড নিউমা নামের সেই শিক্ষক বাড়িতে এসে সপ্তাহে একদিন মার্ককে কম্পিউটার শেখাতেন। মার্ক তার উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে থাকতে একটি এমপি থ্রি মিডিয়া প্লেয়ারও তৈরি করেছিলেন।

২০০৩ সালের ২৮ অক্টোবর মার্ক এলিয়ট জুকারবার্গ ফেসম্যাশ ডটকম নামে একটি ওয়েবসাইট প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আর ঐ সাইটের জন্য নিজের কলেজের ডাটাবেজও হ্যাক করেছিলেন তিনি। হ্যাক করা হার্ভার্ড কলেজের ডাটাবেজ থেকে ছাত্রদের ছবি নিয়ে তা ফেসম্যাশে ব্যবহার করে ভিজিটরদের ‘হট’ অথবা ‘নট’ ভোটিংয়ের ব্যবস্থা করেছিলেন তিনি।

এখানের ছবিগুলো ওরিয়েন্টেশনের দিন তোলা হতো। এ ধরনের ছবিগুলো কেমন হয় তা বুঝতেই পারছেন, তাড়াহুড়ো করে কোনোরকমে তোলা, গোবেচারা ধরনের দেখতে এ ছবিগুলো যে কেউ লুকিয়ে রাখতেই পছন্দ করে। পরে কলেজের শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে এই সাইট বন্ধ করতে বাধ্য হয় জুকারবার্গ।

মূলত ঐ ফেসম্যাশ ওয়েবসাইট থেকেই ফেসবুকের চিন্তা মাথায় আসে জুকারবার্গের। এরপর ২০০৪ সালে তার রুমমেট ও কম্পিউটার বিজ্ঞান বিষয়ের ছাত্র এডওয়ার্ডো সেভারিন, ডাস্টিন মস্কোভিত্স এবং ক্রিস হিউজেসের সাহায্য নিয়ে ফেসবুক নির্মাণ করেন।

২০০৪ সালের ১১ জানুয়ারি দ্য ফেসবুক ডটকম ডোমেইন কিনে ফেলেন তিনি। মার্ক জুকারবার্গ যখন ‘দ্য ফেসবুক’ নামে নতুন সাইটটি চালু করেন তার পরবর্তী ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ১২০০ জন শিক্ষার্থী এতে রেজিস্ট্রেশন করেন। প্রথমদিকে এটি শুধুমাত্র হার্ভার্ড কলেজের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকলেও ২ মাসের মাথায় আরও এটি বোস্টন শহরের অন্যান্য কলেজ, আইভি লীগ এবং স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত সম্প্রসারিত হয়।

জুন মাসের মধ্যে সাইটে প্রায় দেড় লাখ ব্যবহারকারী ফেসবুক ব্যবহার করা শুরু করে এবং ডিসেম্বর মাসের মধ্যে এই সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ১ মিলিয়নে। তবে এ সময় শুধু ১৩ বছরের উপরের বয়সের ছেলে ও মেয়েরা এটি ব্যবহার করতে পারতেন। এসময় ফেসবুকে কোনো ছবি আপলোড করা, ওয়াল, নিউজ ফিড, ইভেন্ট, পেজ ইত্যাদি ফিচার ছিল না।

jagonews24

অবশেষে ২০০৫ সালের আগস্ট মাসে জুকারবার্গ শ্রুতিমধুর নামের কারণে ‘দ্য ফেসবুক’ কে সংক্ষিপ্ত করে ‘ফেসবুক’ রাখেন এবং এই নামে একটি ডোমেইন কেনেন। তবে এজন্য খরচ হয়েছিল দুই লাখ মার্কিন ডলার। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।

বর্তমানে তিনি মেটার মালিক। মেটা হচ্ছে ফেসবুকের নতুন নাম। তবে এখনো ফেসবুক পুরোনো নামেই পরিচিত হচ্ছে। মেটাকে করা হয়েছে ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপসহ আরও বেশ কিছু প্ল্যাটফর্মের অভিভাবক প্রতিষ্ঠান।

যখন ফেসম্যাশ ডটকম প্রতিষ্ঠার পর বেশ গেড়াকলে ফেঁসে গিয়েছিলেন জাকারবার্গ। সেসময় একটি পার্টিতে মার্ক জাকারবার্গের সঙ্গে পরিচয় হয় তার বর্তমান স্ত্রী প্রিসিলা চ্যানের। প্রিসিলাও তখন হার্ভার্ডের ছাত্রী। তাদের দেখা হওয়ার জায়গাটা কিছুটা উদ্ভট ছিল। ওয়াশরুমের জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় প্রিসিলার সঙ্গে কথা হয় মার্কের। কিছুক্ষণ কথা হওয়ার পর মার্ক প্রিসিলাকে বলেন, ‘শোনো আমাকে হয়তো তিনদিন পর হার্ভার্ড থেকে বের করে দেওয়া হবে, তাই ডেটে যাওয়ার জন্যে আমাদের দেরি করা উচিৎ হবে না। প্রিসিলা আর না করতে পারেননি তাকে।’

তবে সেবার জাকারবার্গকে হার্ভার্ড থেকে বের করে দেওয়া হয়নি। একজন কাউন্সেলরের তত্ত্বাবধানে কিছুদিন থাকার নির্দেশ দিয়ে রেহাই দেওয়া হয়। ক্ষিপ্ত ক্লাবগুলোর কাছেও ক্ষমা চেয়ে নিয়েছিলেন তিনি। বলেছিলেন, তিনি এটি স্রেফ একটি কোডিং প্রজেক্ট হিসেবেই করেছিলেন, এটা যে এত জনপ্রিয় হয়ে উঠবে তা ভাবতে পারেননি তিনি। পরে অ্যাসোসিয়েশন অব হার্ভার্ড ব্ল্যাক ওমেনের ওয়েবসাইট তৈরিতেও সাহায্য করেছিলেন তিনি।

সূত্র: দ্য কুইন্ট, ইন্ডিয়া টাইমস


আরও খবর



ওভারিয়ান সিস্ট থেকে মুক্তি পেতে নারীরা যা করবেন

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

বর্তমানে নারীদের মধ্যে পিসিওএস (পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিন্ড্রোম) বা পিসিওডির (পলিসিস্টিক ওভারিয়ান ডিজিজ) সমস্যা বেড়েছে। এটি মূলত হরমোনের সমস্যা। এই রোগের কারণে নারীর ওভারিতে সিস্ট হয়।

যদিও লাইফস্টাইল পরিবর্তনের মাধ্যমে সিস্ট থেকে মুক্তি মেলে। তবে নিয়মকানুন না মানলে কিংবা সঠিক চিকিৎসা না নিলে এই সমস্যা নারীর বন্ধ্যাত্বও ডেকে আনতে পারে।

এই রোগে আক্রান্ত নারীর ডিম্বাশয় বেশি পরিমাণে অ্যান্ড্রোজেন তৈরি করে। যদিও এই হরমোন নারীর শরীরে খুব কম থাকে, কারণ এটি মূলত পুরুষের হরমোন।

ডিম্বাণু তৈরি হওয়ার জন্য যে হরমোনের প্রয়োজন সেটি যথেষ্ট পরিমাণে তৈরি না হলে, ডিম্বাণু তৈরি করতে পারে না শরীর। ফলে ডিম্বাশয়ের বাইরে ছোট ছোট সিস্ট দিয়ে একটা আস্তরণ তৈরি হয়।

এর ফলে নারীর শরীরে কিছু সমস্যা দেখা দেয়। যেমন অনিয়মিত ঋতুস্রাব, ওজন বেড়ে যাওয়া, মন-মেজাজ খারাপ থাকা, শরীরে ইনসুলিন ঠিকমতো কাজ করে না, গর্ভধারণে সমস্যা ইত্যাদি।

সাধারণত কমবয়সীদের মধ্যেই এ সমস্যা দেখা দেয়। তবে সন্তান হওয়ার পর কিংবা ৩০ বছর বয়সী নারীর মধ্যেও এ সমস্যা দেখা দিতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, পিসিওডি মূলত লাইফস্টাইল ডিজিজ।

কায়িক পরিশ্রম কমে যাওয়ার কারণে শরীরের হরমোনাল ভারসাম্য নষ্ট হয়। ফলে এই সমস্যা আরও বেড়ে যায়। পিসিওএস থেকে রেহাই পেতে কার্ডিও ব্যায়াম সবচেয়ে উপযোগী।

প্রতিদিন সকালে ২০ মিনিট জোরে হাঁটা বা জগিং করা, সাইক্লিং, সাঁতার ও ফ্রি-হ্যান্ড ব্যায়াম এই রোগ থেকে আপনাকে মুক্তি দিতে পারে। এর পাশাপাশি যোগব্যায়ামও বেশ উপকারী।

এক্ষেত্রে সূর্যনমস্কার করতে পারেন। এটি সম্পন্ন করতে মোট ১২টি আসন করতে হয়। যা খুবই উপকারী শরীরের জন্য। এছাড়া ভুজঙ্গাসন, বক্রাসন, পবনমুক্তাসন, জানুশিরাসন, নৌকাসন, নভ্যাসন নিয়মিত করলে মিলবে উপকার।

প্রতিটি আসনই ১-৩ মিনিট সময় ধরে ধরে করুন। প্রথমেই হয়তো বেশি সময় করা সম্ভব নয়। ৩০ সেকেন্ড থেকে শুরু করে ধীরে ধীরে সময় বাড়াতে হবে। একেকটি ব্যায়াম ৩-৪ বার পুনরাবৃত্তি করুন।

অনেক গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, ইস্টার্ন মেডিসিনের ঐতিহ্যবাহী আকুপাংচার পেলভিক অস্বাস্তসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যথা ও উদ্বেগ থেকে মুক্তি দিতে সাহায্য করে। আকুপ্রেসার ম্যাসেজ, শ্বাস-প্রশ্বাসের প্রশিক্ষণ, ধ্যান, ভেষজ ও পুষ্টিকর খাবার খাওয়া ও শরীরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ক্ষুদ্র সূঁচ ফোটানোর থেরাপিও পিসিওডির সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়।

ভারতের ফোর্টিস হাসপাতালের সিনিয়র গাইনোকোলজিস্ট, গুরুগ্রাম ও কালোসা ক্লিনিকের পরিচালক ডা. দীপ্তি আস্থানা জানান, শরীরচর্চার পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়াও প্রক্রিয়াজাত ও ভাজাপোড়া খাবার একেবারেই বাদ দিন খাদ্যতালিকা থেকে। আর মিষ্টি খাবারও এড়িয়ে চলতে হবে। তবে ধীরে ধীরে এই রোগ থেকে মুক্তি পাবেন আপনি।

এমন রোগীরা অবশ্যই বেশি করে শাকসবজি ও ফল খাবেন। এর পাশাপাশি আদা, হলুদ ও ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের ব্যবহার বাড়াতে হবে। ক্যামোমাইল চায়ে প্রদাহ-বিরোধী প্রভাব আছে, এটিও অন্তর্ভূক্ত করুন খাদ্যতালিকায়।

অন্যদিকে ফ্ল্যাক্সসিড হরমোন ফাংশন সংশোধন করে ডিম্বাশয়ের সিস্ট দূর করতে সাহায্য করে। এতে প্রদাহবিরোধী উপাদান ছাড়াও ভিটামিন বি৬ আছে, যা হরমোন নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে।

পিসিওসের চিকিৎসায় ম্যাগনেসিয়াম খুবই কার্যকরী। এই উপাদান ডিম্বাশয়ের সিস্টের সমস্যার সমাধান করে। তাই খাদ্যতালিকায় ম্যাগনেসিয়ামযুক্ত খাবার অবশ্যই রাখুন।

সূত্র: ডা. দীপ্তি আস্থানারি ওয়েবসাইট


আরও খবর

কাঁচা কাঁঠালের কাবাব

শুক্রবার ২০ মে ২০22




বিদ্যুতের দাম ৫৮ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২১জন দেখেছেন
Image

বিদ্যুতের দাম ৫৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।

বুধবার (১৮ মে) রাজধানীর বিয়াম ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে গণশুনানিতে এ সুপারিশ করে বাংলাদেশ এনার্জি এন্ড বিইআরসির কারিগরি টিম।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিউবো) প্রস্তাবিত ৬৫ দশমিক ৫৭ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাবের বিপরীতে ৫৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ করে কারিগরি টিম।

jagonews24

পাইকারি রেটে প্রতি ইউনিট ৩ টাকা ৩৯ পয়সা বাড়ানোর প্রস্তাব দেয় বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড। অন্যদিকে এ প্রস্তাবের বিপরীতে ২ টাকা ৯৯ পয়সা বাড়ানোর সুপারিশ করে কারিগরি টিম।

শুনানিতে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক, পরিচালক ও বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা, বিইআরসির চেয়ারম্যান ও সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



দুই টপারের প্লে-অফে ওঠার লড়াইয়ে ব্যাটিংয়ে গুজরাট

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪২জন দেখেছেন
Image

 

দুই দলই জিতেছে সমান আটটি করে ম্যাচ, হেরেছে সমান তিনটি করে ম্যাচ। নেট রান রেটে এগিয়ে থাকায় এক নম্বরে রয়েছে লখনৌ সুপার জায়ান্টস, তাদের নিচেই অবস্থান গুজরাট টাইটান্সের। আজ মুখোমুখি এ দুই দল।

পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে আজকের ম্যাচটি যারা জিতবে, তারাই প্রথম দল হিসেবে পেয়ে যাবে প্লে-অফের টিকিট। এমন সমীকরণের ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিং নিয়েছেন গুজরাটের অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া।

সবশেষ দুই ম্যাচ হেরে যাওয়া গুজরাট নিজেদের একাদশে এনেছে তিন পরিবর্তন। বাদ দেওয়া হয়েছে লকি ফার্গুসন, সাঁই সুদর্শন ও প্রদীপ সাংওয়ানকে। দলে এসেছেন ম্যাথু ওয়েড, সাঁই কিশোর ও ইয়াশ দয়াল। লখনৌ একাদশে রবি বিষ্ণুইর জায়গায় এসেছেন কারান শর্মা।

গুজরাট টাইটান্স একাদশ: ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), শুভমান গিল, ম্যাথু ওয়েড, হার্দিক পান্ডিয়া (উইকেটরক্ষক), ডেভিড মিলার, রাহুল তেয়াতিয়া, রশিদ খান, সাঁই কিশোর, আলজারি জোসেফ, ইয়াশ দয়াল ও মোহাম্মদ শামি।

লখনৌ সুপার জায়ান্টস একাদশ: কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), লোকেশ রাহুল (অধিনায়ক), দীপক হুদা, ক্রুনাল পান্ডিয়া, আয়ুশ বাদোনি, মার্কাস স্টয়নিস, জেসন হোল্ডার, কারান শর্মা, দুশমন্থ চামিরা, আভেশ খান ও মহসিন খান।


আরও খবর



বিশ্বে কমেছে খাদ্যপণ্যের দাম

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
Image

চলতি বছরের এপ্রিলে বিশ্বে খাদ্যপণ্যের দাম কমেছে। এর আগে মার্চ মাসে খাদ্যর দাম রেকর্ড পরিমাণ বাড়ে। যদিও খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে এখনো উদ্বেগ বিরাজ করছে। জাতিসংঘের খাদ্য সংস্থা (এফএও) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর রয়টার্সের।

সংস্থাটির খাদ্যতালিকার সূচক অনুযায়ী গত ফেব্রুয়ারি ও মার্চে পণ্যের দাম রেকর্ড বাড়ার পর এপ্রিলে সেটা আগের মাসের চেয়ে ০.৮ শতাংশ কমে গেছে। বিভিন্ন খাদ্যপণ্যের আন্তর্জাতিক দাম নিয়ে মাসিক এই সূচক প্রকাশ করা হয়।

এফএওয়ের প্রধান অর্থনীতিবিদ ম্যাক্সিমো তোরেরো কুলেন বলেন, বর্তমান সূচক কিছুটা স্বস্তিদায়ক হবে। বিশেষ করে যেসব দেশের আয় কম ও খাদ্য ঘাটতি রয়েছে। তবে এখনো খাদ্যর দাম অনেক বেশি, যা বৈশ্বিক খাদ্য নিরাপত্তার জন্য হুমকি।

মাসের ভিত্তিতে এপ্রিলে খাদ্যর মূল্যসূচক কমলেও এক বছর আগের তুলনায় বেশি রয়েছে। ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার পর থেকেই বিশ্বে খাদ্যপণ্যের দাম লাফিয়ে বাড়তে থাকে।

সংস্থাটির শস্যের মূল্যসূচক কমেছে শূন্য দশমিক সাত শতাংশ। মার্চে এটি বাড়ে ১৭ শতাংশ। এদিকে ভুট্টার মূল কমেছে তিন শতাংশ। যদিও গমের দাম শূন্য দুই শতাংশ বেড়েছে।

তাছাড়া এফএওয়ের উদ্ভিজ্জ তেলের মূল্যসূচক এপ্রিল মাসে পাঁচ দশমিক সাত শতাংশ কমেছে। তবে চিনির দাম তিন দশমিক তিন শতাংশ ও মাংসের দাম দুই দশমিক দুই শতাংশ বেড়েছে।


আরও খবর



সড়কে প্রাণ গেলো দুই ভাইয়ের

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৩৫জন দেখেছেন
Image

কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের খোকসায় পিকআপের চাপায় থ্রি-হুইলারের দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন। তারা সম্পর্কে আপন দুই ভাই। এ ঘটনায় আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন।

বুধবার (৪ মে) দুপুর ২টার দিকে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কের শিমুলিয়া ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-ফিরোজ মন্ডল (৪৫) ও মাদরাসাছাত্র সামিরুল (১০)। তারা রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার কলিমহর গ্রামের কৃষক রেজাউল ইসলামের ছেলে।

Road

প্রত্যক্ষদর্শী ও যাত্রীরা জানান, পাংশা থেকে ছেড়ে আসা থ্রি-হুইলার যাত্রী নিয়ে কুষ্টিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। গাড়িটি খোকসার পাইকপাড়ায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পিকআপ ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ফিরোজ ও তার ভাই সামিরুল মারা যান। দুর্ঘটনার পর উভয় গাড়ির চালক পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় আরও পাঁচজন যাত্রী আহত হন। ইতি খাতুন নামের এক নারীর অবস্থা গুরুতর আহত হওয়ায় তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Road

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রমা জানান, আহত নারী রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

খোকসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন, দুর্ঘটনার পর থেকে চালক পলাতক আছেন। তবে গাড়ি আটক করা হয়েছে।


আরও খবর