নড়াইলে মাস্ক না পরায় পেটানোর ঘটনায় পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও সহকারি ইনচার্জকে ক্লোজ

Monday, March 30th, 2020

 

উজ্জ্বল রায় (নড়াইল জেলা প্রতিনিধি) নড়াইলে মাস্ক না পরার অপরাধে এক যুবককে পেটানোর ঘটনায় দু’পুলিশ কর্মকর্তাকে ক্লোজ করা হয়েছে। রোববার (২৯ মার্চ) বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর অভিযুক্ত শেখাটি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও সহকারি ইনচার্জকে ক্লোজ করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রোববার বিকেলের দিকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) নড়াইলের শেখাটি ফাড়ির ইনচার্জ এসআই এনামুল, সহকারী ইনচার্জ এএসআই আলমগীরসহ কয়েক কনষ্টবল শেখাটি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এবং বর্তমান ঢাকায় একটি বেসককারী বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের রিজিওনাল ম্যানেজার তরিকুল ইসলাম মানিককে শেখাটি বাজার থেকে এবং ক্যাম্পে নিয়ে মুখে মাস্ক না থাকার কারণে প্রায় ১ ঘন্টা ধরে থেমে থেমে মারধর করে। পরে মানিকের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় ওইদিন রাতে (২৬ মার্চ) সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখনও তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ ঘটনায় ভূক্তভোগীর মা লতিফা বেগম শনিবার (২৮ মার্চ) নড়াইল পুলিশ সুপারের কাছে এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন। এ সংক্রান্ত রিপোর্ট প্রকাশের পর তাদের শেখাটি পুলিশ ফাঁড়ি থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে এ ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ইমরান শেখ দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে ক্লোজ করার স্বীকার করেন। তিনি বলেন, এ ঘটনার তদন্ত চলছে। দুই পুলিশ কর্মকর্তা দোষী হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।