ডিমলায় জরুরী বরাদ্দকৃত খাদ্য ও স্বাস্থ্য উপকরণ বিতরণ

Monday, March 30th, 2020

 

সুজন মহিনুল (বিশেষ প্রতিনিধি) করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশনায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের জরুরী ভিত্তিতে বরাদ্দকৃত খাদ্য ও স্বাস্থ্য উপকরণ অতি দরিদ্র,প্রতিবন্ধী ও কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমজীবি অসহায় পাঁচ শতধিক পরিবারের বাড়ি-বাড়ি গিয়ে বিতরণ করা হয়েছে। তবে বর্তমান প্রেক্ষাপটে প্রয়োজনের তুলনায় এই বরাদ্দ অপ্রতুল বলে মনে করছেন জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয়রা।

শনিবার(২৮মার্চ)ও রবিবার (২৯মার্চ) দুইদিনে উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে অতিদরিদ্র ও কর্মহীন হয়ে পড়া পাঁচশত পরিবারের প্রত্যেক পরিবারকে ১০কেজি চাল, ৫কেজি আলু, ১কেজি ডাল ও ১টি করে হাত ধোয়া সাবান বাড়িতে-বাড়িতে গিয়ে পৌছে দেয়া হয়। ওইসব খাদ্য ও স্বাস্থ্য উপকরণ বাড়ি-বাড়ি গিয়ে পাঁচ শতাধিক পরিবারের মাঝে পৌঁছে দেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়শ্রী রানী রায়, উপজেলা প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকর্তা মেজবাহুর রহমান মানিক, উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস আলম,প্রতিটি ইউনিয়নের দুজন করে দায়িত্বরত ট্যাগ কর্মকর্তা,স্ব-স্ব ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশগণ।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মেসবাহুর রহমান মানিক সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা বরাদ্দ পেয়েছি মাত্র ৫ মেট্রিকটন চাল ও ১ লাখ টাকা। তা থেকে বাছাই করে একেবারে কর্মহীন হয়ে পড়া অতিদরিদ্রদের মধ্যে সীমিত পাঁচশত পরিবারের মাঝে এসব বিতরণ করা হয়েছে, বেশি বিতরণ করা আসলে সম্ভব হয়নি। যথেষ্ট বরাদ্দ পেয়েছেন নাকি চাহিদার তুলনায় তা অপ্রতুল এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এটা সামান্য মাত্র দেয়া হয়েছে, অলরেডি আমাদের মন্ত্রনালয় বরাদ্দ ছেড়েছেন যা জেলা প্রশাসক বরাবর এসেছে আবারও তালিকা করা হচ্ছে আমাদের কাছে বরাদ্দ আসা মাত্রই আবারও বিতরণ করা হবে।