সবুজে সবুছে ছেয়ে গেছে জগন্নাথপুর উপজেলার প্রতিটি বোরো ফসলি জমির মাঠ

Saturday, April 4th, 2020

 

আলী জহুর (জগন্নাথপুর, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি) সুজলা সুফলা শষ্য শ্যামলা দেশ আমাদের এই বাংলাদেশ। এদেশের অধিকাংশ কৃষক কৃষির উপর নির্ভরশীল। সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে উপজেলার প্রতিটি এলাকায় সবুজ ধান গাছের চারায় ছেয়ে গেছে মাঠের পর মাঠ। যে দিকে চোখ যায় শুধু সবুজ আর সবুজ, সবি যেন সবুজের সমারহ। শষ্য শ্যামলা বাংলার কৃষি ভান্ডার খ্যাত নলুয়ার হাওর মইয়া হাওরসহ জগন্নাথপুর উপজেলায় চলতি ইরি-বোরো মৌসুমের চাষাবাদকৃত প্রত্যন্ত অঞ্চলের চলতি বোরো মৌসুমে ধানের ক্ষেত এখন সবুজে পরিণত হয়েছে। কৃষকরা ইতিমধ্যে ক্ষেত পরিচয্যা শেষ করলেও আবার কোথাও কোথাও পরিচয্যা করতে দেখা গেছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার পরামর্শে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফায় সার-কীটনাশক প্রয়োগ অব্যাহত রেখেছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, কৃষকরা ধানের ক্ষেত পরিচয্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এ সময় কৃষক মোঃ সাজাদ মিয়া, খলিল মিয়া, আলীনুর মিয়া বলেন, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর ধান গাছের চেহারা ভালো দেখা যাচ্ছে। আশা করছি প্রাকৃতিক দুর্যোগ না ঘটলে গত বছরের তুলনায় এবার ফলন ভালো হবে মনে করছি। তাই দিন রাত পরিশ্রম করে সুন্দর ভাবে যেন সোনার ফসল ঘরে তুলতে পারি তাই হাড় ভাঙ্গা পরিশ্রম করে যাচ্ছি।

উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাম্মদ শওকত ওসমান মজুমদার জানান, এ বছর জগন্নাথপুর উপজেলায় ২০ হাজার ৬০০ ছয়শ ১০ দশ হেক্টর জমিতে ধান চাষের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে। যার উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৮০ হাজার মেট্রিকটন। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে আশা করা যায় আমাদের এ লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে। ইতিমধ্যে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের অধিক ফলন ও উৎপাদনের লক্ষ্যে বোরোর ধান ক্ষেতে পোকার আক্রমন ও রোগ বালাই থেকে ফসল রক্ষার নানা পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।