সরকারি নিষেধাজ্ঞা মান্য করে দোকান বন্ধ রাখেন ব্যবসায়ীরা

Tuesday, April 7th, 2020

 

এম এ করিম (গোমস্তাপুর প্রতিনিধি) গোমস্তাপুর উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের যাতাহারা বাজারের স্থানীয় ব্যবসায়ীরা সরকারি নিষেধাজ্ঞা মান্য করে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বন্ধ রাখেন সকল প্রকার দোকান পাট।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কমিয়ে আনতে নিজ এলাকাকে সুরক্ষিত রাখতে সমন্বিত জোটে এ ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়।

(কোভিড-১৯) বিশ্বব্যাপী মারাত্মক প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসে পৃথিবীজুড়ে যেন শুধুই মৃত্যুর মিছিল।শুধু তাই নয় বহির বিশ্বের মৃত্যু স্বজনদের আর্তনাদ আর আহাজারীতে কাঁদছে যেন পুরো পৃথিবীই।

বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতি মারাত্মক মহামারী করোনা ভাইরাসে অকাল মৃত্যুর ঝাঁজ গোটা পৃথিবীকেই ঘিরে রেখেছে।

বৈষয়িক প্রাণঘাতি মহামারী অদৃশ্য করোনা ভাইরাসে অকাল মৃত্যুতে থমকে গেছে প্রায় ছোট বড় সকল উন্নত দেশ।

নোভেল করোনা ভাইরাস শ্বাসতন্ত্র রোগ সৃষ্টি করে এমন এটি একটি নতুন ভাইরাস। (কোভিড-১৯),যা আগে কখনোও মানব দেহে পাওয়া যায়নি।

গেল ৩১ ডিসেম্বর চীনে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর থেকে প্রতিদিন করোনা-আক্রান্ত রোগী ও সংক্রমিত এলাকা বেড়েই চলছে।

বৈষয়িক মারাত্মক প্রাণঘাতি মহামারী করোনা ভাইরাস দেখে যেন মনে হচ্ছে মৃত্যুর কাতারে পরিণত হয়েছে। দেশের বাইরে এর ব্যাপকতা প্রবৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে আমাদের দেশেও এ ভাইরাসের শঙ্কা একটু একটু করে বড় আকারের আশঙ্কা বাড়তেই আছে।

বিশ্বব্যাপী মারাত্মক করোনা ভাইরাসে মানুষের পাশে মানুষ সংমিশ্রণে বেশী ঝুঁকিপূর্ণ বলে করোনা বিরোধ সরকারি নির্দেশনায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ক্রেতা বিক্রেতার লেনদেনের মাঝে চলছে সচেতনতা ফিট অঙ্কন চিহ্ন ব্যবহারও।

এদিকে,করোনা ভাইরাস মানুষের ফুসফুসে সংক্রমণ ঘটাই।হাঁচি,কাশি,কফ,সর্দি,থুথু এবং আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে এক জন থেকে আরেক জনের শরীরে ছড়িয়ে পড়ছে বলে সকল প্রকার দোকান পাট নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় সওদা বিক্রয় করে আবার ঠিক নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সরকারি নির্দেশনা মান্য করে বন্ধ করে দিচ্ছে দোকান ব্যবসায়ীরা।

এতে করে জনসাধারণ নির্দিষ্ট সময়কে লক্ষ্যকরে প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় বাজার সদয় ক্রয় করে সময়ের মধ্যেই নিজ নিজ গন্তব্যে পাড়ি দেয়।

এছাড়াও সরকারি নিষেধাজ্ঞা মান্য করতে বাড়তি সচেতন হয়ে দোকানীদের দৈনন্দিন মালামাল বিক্রয়ে পদক্ষেপ চোখে পড়ার মত।

তবে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের কোবলে দুর্যোগকালীন সময়ে অসাধুপাই অবলম্বন না করে সরকানি নির্দেশনা মান্য করে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ক্রয়-বিক্রয়ের পরামর্শ দেন স্থানী সচেতন মহল।