অকারণে বাইরে আড্ডা ও বাইক নিয়ে ঘোরাফেরা করায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৮ জনকে জরিমানা

Tuesday, April 7th, 2020

 

ভবতোষ কুমার মন্ডল (সাতক্ষীরা প্রতিনিধি) সাতক্ষীরায় করোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সামাজিক দূরত্ব না মেনে অহেতুক ঘোরাঘুরি করায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৮ জনকে ২৯ হাজার ৯৫৪ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জনসমাগম কমিয়ে সাধারণ মানুষকে ঘরে ফেরাতে ২০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে জেলাব্যাপী সাড়াশি অভিযান চালাচ্ছে সেনাবাহিনী, পুলিশ ও ব্যাটালিয়ন আনসার। জেলাব্যাপী চলছে মাইকিং, করা হচ্ছে জীবাণুনাশক স্প্রে।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, অকারণে বাইক নিয়ে বাইরে আড্ডা দেওয়া ও ঘোরাফেরা করায় সাতক্ষীরা শহরে চারজনকে জনকে ৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

অনুরূপভাবে শ্যামনগরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সচেতনতামূলক অভিযান চলাকালে অপ্রয়োজনে বাইরে ঘোরাফেরা করায় ২৬ জনকে ১৩ হাজার ৭১০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

একইভাবে কালিগঞ্জে ৪ জনকে ৩ হাজার ৬৪৪ টাকা, আশাশুনিতে ৯ জনকে ৪ হাজার ১শ টাকা, তালায় ২ জনকে ১ হাজার ৫০০ টাকা, দেবহাটায় ৬ জনকে ১ হাজার ৫০০ টাকা ও কলারোয়ায় ৭ জনকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে, করোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের বাড়িতে বাড়িতে জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামালসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারবৃন্দ পৌঁছে দিচ্ছেন খাদ্য সামগ্রী। এজন্য ইতোমধ্যে জেলার প্রত্যেক উপজেলা ও পৌরসভার অনুকূলে মোট ৪২৫ মেট্রিক টন চাল এবং ১৬ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২৯ হাজার ৪০০ মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। চিকিৎসক ও নার্সদের চলাচলের জন্য দেওয়া হয়েছে গাড়ি।

জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল জানান, করোনো মোকাবেলায় জেলার সর্বত্র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে সেনাবাহিনী, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা অভিযান চালাচ্ছে। মানুষকে ঘরে ফেরাতে প্রয়োজনে আরও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সেই সাথে কর্মহীন হয়ে পড়া দুস্থ মানুষের বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।