কেপিকে যে ‘সিংহাসন’ উপহার দিয়েছিলেন তাঁর স্ত্রী

Thursday, May 21st, 2020

স্ত্রীর কাছে থেকে উপহার পাওয়া কেভিন পিটারসেনের চেয়ার। ছবি ইনস্টাগ্রামস্ত্রীর কাছে থেকে উপহার পাওয়া কেভিন পিটারসেনের চেয়ার। ছবি ইনস্টাগ্রাম

ডেস্ক নিউজঃ সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক কেভিন পিটারসেন যত দলে খেলেছেন সব দলের জার্সির রঙে বানানো একটি বিশেষ চেয়ার আছে তাঁর

কেভিন পিটারসেন। নামটি শুনলেই মনের পর্দায় ভেসে ওঠে অসাধারণ প্রতিভাধর সাবেক এক ব্যাটসম্যানের মুখ। ব্যাটিংয়ের মতো জীবনযাপনের ধরণও কম বর্ণাঢ্য ছিল না দক্ষিণ আফ্রিকান বংশোদ্ভূত সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়কের। পিটারসেন বা কেপি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছেড়েছেন সাড়ে ছয় বছর হয়ে গেছে। কিন্তু আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে এখনো কেপির ঝলমলে উপস্থিতি বর্তমান অনেক ক্রিকেটারের মনে নিশ্চিত ঈর্ষার আগুন জ্বালায়।কেপির অনেক সাবেক সতীর্থই হয়তো বলবেন ‘টিমম্যান’ ছিলেন না একুশ শতকের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান। তাঁদের পক্ষে যুক্তিরও অভাব রাখেননি দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমানো কেপি। তবে সেই কেপি কদিন আগে প্রমাণ দিলেন তাঁকে যারা একেবারে ‘আবেগঅনুভূতিহীন’ ভাবেন তাঁরা ভুল করেন। তিন দিন আগে ইনস্টাগ্রামে কেপির একটি পোস্টই সেটির প্রমাণ। ঝলমলে রঙিন এক সোফা বা চেয়ারের ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। যে চেয়ারের ছবিটি দেখলে চাইলে যে কেউ কেভিন পিটারসেনের ‘সিংহাসন’ও বলতে পারেন। ক্রিকেট ক্যারিয়ারে যত দলে যত রকমের জার্সি পরে খেলেছেন তার সবগুলোরই যে ছোঁয়া আছে এই চেয়ারে।টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপটা এই জার্সি পরেই জিতেছিলেন পিটারসেন। ছবি ইনস্টাগ্রামটি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপটা এই জার্সি পরেই জিতেছিলেন পিটারসেন। ছবি ইনস্টাগ্রাম

টি–টোয়েন্টির এই যুগে কম দলে তো খেলেননি কেপি। ইংল্যান্ড, আইসসি বিশ্ব একাদশ, হ্যাম্পশায়ার, নটিংহামশায়ার, সারে, ডেকান চার্জার্স, দিল্লি ডেয়ারডেভিলস, আরসিবি, সানরাইজার্স, সেন্ট লুসিয়া জুকস, কোয়েটা গ্লাডিয়েটর্স, মেলবোর্ন স্টারস, নাটাল, আরও কত দল। এত সব দলের জার্সি ও লোগো ব্যবহার করে বানানো হয়েছে বিশেষ চেয়ারটি।কয়েক বছর আগে স্ত্রী জেসিকা টেলরের কাছে থেকে দারুণ এই চেয়ারটি জন্মদিনের উপহার হিসেবে পেয়েছেন কেপি। চেয়ারটি বানিয়েছে কেলি সোয়ালো নামের একটি কোম্পানি। যে কোম্পানির বিশেষত্ব হলো মানুষের চাহিদামতো নকশার আসবাবপত্র বানানো।

করোনার এই সময়ে ঘরে বসে থাকার একঘেয়েমি দূর করতেই কিনা ছবিটা ইনস্টাগ্রামে দিলেন কেপি। সেখানে স্ত্রীকে ভালোবাসাও জানালেন আগামী ২৭ জুন ৪০–এ পা দিতে যাওয়া কেপি, ‘এই চেয়ারটায় আমি বসি। জেসিকার কাছে কয়েক বছর আগে জন্মদিনের উপহার হিসেবে পেয়েছি এটিকে। আমি যতগুলো দলে যত জার্সি পরে খেলেছি সব আছে আছে এটিকে। আমার জীবনের সবচেয়ে বিস্ময়কর উপহার!’চেয়ারটির পেছনে বিশেষ একটি জার্সিতে লেখা আছে কেপির নাম পিটারসেন ও জার্সি নম্বর ২৪। জার্সিটি ২০১০ টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। যেখানে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিশ্বমঞ্চে শিরোপাখরা কাটিয়েছিল ইংল্যান্ড। যে বিশ্বকাপে সেরা খেলোয়াড় হয়েছিলেন কেভিন পিটারসেন।