বিশ্বের দ্রুততম বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমির অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ

Tuesday, August 4th, 2020

ঢাকা, বাংলাদেশ, আগস্ট ০৪, ২০২০ টেক ট্রেন্ডসেটিং স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি সম্প্রতি তাদের ২০২০ সালের প্রথম অর্ধবার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ২০২০ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকে একমাত্র স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে রিয়েলমি দুই অঙ্কের – ১১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে এবং কাউন্টারপয়েন্টের প্রতিবেদন অনুসারে টানা চার প্রান্তিকে বিশ্বের দ্রুততম বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের স্থান ধরে রেখেছে। কাউন্টারপয়েন্ট আরও জানায়, এ বছরের প্রথম প্রান্তিকে  যে দুটি ব্র্যান্ড ইতিবাচক প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে তার মধ্যে রিয়েলমি একটি, যাদের প্রবৃদ্ধি আগের বছরের তুলনায় ১৫৭ শতাংশ বেশি।

সর্বশেষ সংখ্যার ভিত্তিতে এ বছরের প্রথমার্ধে রিয়েলমি ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে দেড় কোটি। রিয়েলমি এখন ৪ কোটি গ্রাহকের টেক ট্রেন্ডি পরিবার। কাউন্টারপয়েন্ট ও আইডিসির রিসার্চ অনুযায়ী স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি এখন থাইল্যান্ড, ভারত, কম্বোডিয়া এবং মিশরে শীর্ষ ৪ এবং মিয়ানমার, ফিলিপাইন, ইউক্রেন, ইন্দোনেশিয়া এবং ভিয়েতনামে শীর্ষ ৫ এ অবস্থান করছে।

রিয়েলমি বরাবরই ফাইভ জি পণ্য প্রোমোট করে আসছে এবং রিয়েলমি এক্স ফিফটি প্রো ফাইভ জি ফোনের মাধ্যমে কোম্পানিটি ফাইভ জি দুনিয়ায় প্রবেশ করে। ভারত ও থাইল্যান্ডের বাজারে রিয়েলমি প্রথম ফাইভ জি ফ্ল্যাগশিপ ফোন নিয়ে আসে। কোম্পানিটি মাত্র ১,০০০ মার্কিন ডলারেরও কমে ক্যাম্বোডিয়ার প্রথম ফাইভ জি ফোন লঞ্চ করে।

২০২০ সালে রিয়েলমি ‘স্মার্টফোন + এআইওটি’ স্ট্র্যাটেজি হাতে নেয়। বর্তমানের চ্যালেঞ্জিং অর্থনৈতিক পরিবেশেও রিয়েলমির এ উদ্যোগ তাদের লক্ষ্যমাত্রা সফলভাবে পূরণ করেছে। এ বছরের শেষ নাগাদ রিয়েলমি ৫০টি এআইওটি পণ্য বাজারে আনার পরিকল্পনা নিয়েছে, যে সংখ্যা তারা পরবর্তী বছরে ১০০ তে উন্নীত করবে।

রিয়েলমি তাদের এআইওটি স্ট্র্যাটেজিকে “১+৪+এন” উদ্যোগ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছে, যেখানে একটি মূল পণ্যের (স্মার্টফোন) সাথে থাকবে চারটি প্রধান গ্রুপের (স্পীকার, ইয়ারফোন, টিভি এবং ওয়াচ) লাইফস্টাইল ডিভাইজ এবং পরিপূরক হিসেবে “এন” সংখ্যক স্মার্ট এক্সেসরিজ।

রিয়েলমির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লি বিংজং বলেন, “রিয়েলমি এর লক্ষ্য তিন বছরের ভেতর ১০ কোটি স্মার্টফোন বিক্রি করা এবং প্রবৃদ্ধি বজায় রাখতে আন্তর্জাতিক বাজারে সম্প্রসারণ অব্যাহত রাখা। তিনি আরো বলেন, “রিয়েলমি এখন পর্যন্ত প্রায় ৬০টি দেশ এবং অঞ্চলে পৌঁছে গেছে এবং গ্রাহকপ্রিয়তা অর্জন করেছে। বিশ্বের দ্রুততম বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে আমাদের মিশন ‘ডেয়ার টু লিপ’ স্পিরিটে তরুণদের ক্ষমতায়ণে ভূমিকা রাখা।”

এছাড়াও আন্তর্জাতিক বাজারে নান্দনিক নকশায় রিয়েলমির ডিভাইজগুলোর ডিজাইন ব্যাপক সারা ফেলেছে। এ বছরে রিয়েলমির ডিজাইন স্টুডিও তাদের নজরকারা ট্রেন্ডসেটিং সব ডিভাইজের নকশার জন্যে বিশ্ববিখ্যাত ডিজাইনার নাওতো ফুকাসাওয়া এবং হার্মিসের হোসে লিভাই এর সাথে কাজ করেছে। রিয়েলমি এক্স টু প্রো জিতে নিয়েছে মর্যাদাপূর্ণ রেড ডট ডিজাইন পুরস্কার। রিয়েলমি নকশা এবং প্রযুক্তি উভয় ক্ষেত্রেই অগ্রগামী উদ্ভাবন অব্যাহত রাখতে বদ্ধপরিকর।-press release