শিবগঞ্জে বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে প্রাচীর নির্মাণ, ও মারপিট, 

Saturday, September 26th, 2020
রশিদুর রহমান রানা শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পৌরসভার তেঘরি গ্রামে বাড়ির প্রধান চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে জবরদখল ও সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক বাধাঁ দিলে তাকে মারপিট করা হয়। পরে ৯৯৯এ ফোন করে পুলিশি সাহাস্য চাইলে তাৎক্ষণিক শিবগঞ্জ থানার একটি ফোর্স ঘটনাস্থলে এসে নির্মাণ কাজ স্থগিত করে উভয়পক্ষ কে থানায় আসার আহবান জানান। বর্তমান পরিবারটি অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসী সূত্র জানায়, শিবগঞ্জের পৌরসভার তেঘরি ১নং ওয়ার্ডে মৃত মিছির উদ্দিন প্রোং এর পুত্র শমসের উদ্দিন প্রোং(৬০) এর সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রতিবেশী মৃত আইয়ুব আলীর পুত্র মামুন, মালেক ও মাসুদ গংদের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে মামলা মোকদ্দমাও করা হয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় শমসের উদ্দিনের বাড়ির গেটের সামনে দখলে থাকা ৮শতাং জমি শুক্রবার ভোর ৫টায় পূর্বপরিকল্পিত ভাবে জনবল নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় মামুনগং শমসেরের বাড়ির প্রধান রাস্তা বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে জোরপূর্বক প্রাচীর নির্মাণ করে। এতে শমসের বাধাঁ দিলে তাকে ও তার স্ত্রী জোসনা বেগম(৫০), ছোট ভাই মোতালেব উদ্দিন(৪৫) কে মারপিট করা হয়। এসময় প্রতিকার চেয়ে শমসের ৯৯৯এ ফোন দিয়ে জানালে, শিবগঞ্জ থানার এসআই শহিদুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স সহ ঘটনাস্থলে এসে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে উভয়পক্ষকে সামাজিকভাবে মিমাংসা করার কথা বলে শিবগঞ্জ থানায় আসতে বলেন।
এরপরেও প্রতিপক্ষরা জোরপূর্বক প্রাচীর নির্মাণ করছিলেন। পরে পুলিশ সংঘর্ষ এড়াতে আবার এসে ওই প্রাচীর গুড়িয়ে দেয়। এবিষয়ে প্রাচীর নির্মাণকারী মামুনের সাথে কথা বললে, তারা জানান, ৯শতাংশ জমি কোর্ট থেকে আমরা রায় পেয়েছি। আমাদের পৈতৃক সূত্রে পাওয়া জমি এটি।
এদিকে দীর্ঘদিন ধরে ভোগদখলকারী শমসের আলী জানান, আমার বাপ-দাদার পৈতৃক জমি এটি। তাদের নামে আদালতের কোন রায় নেই।
তারা জোরপূর্বক দখল করছে। বাড়ির রাস্তা বন্ধ করায় তিনি অবরুদ্ধ আছেন বলে ক্ষোপ প্রকাশ করেন।