পঞ্চগড় রতনী বাড়ি  শিংরোড উচ্চ বিদ্যালয়ে কম্পিউটার ল্যাব সহকারি পদে গোপনে নিয়োগের অভিযোগ  

Wednesday, October 21st, 2020
মো.বাবুল হোসেন পঞ্চগড় : পঞ্চগড় সদর উপজেলার সিংরোড রতনীবাড়ী দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ে গোপনে কম্পিউটার  ল্যাব সহকারি পদে নিয়োগের অভিযোগ উঠেছে। জেলা শিক্ষা অফিসের যোগশাজশে বিদ্যালয়ের সভাপতি  মো. ফারুখ হাসান ও প্রধান শিক্ষক মো. আমিনুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে।
এদিকে জেলা শিক্ষা অফিসারকে না জানিয়ে তারাহুরা করে নিয়োগ বোর্ডে ডি.জি প্রতিনিধি মনোনয়নের অভিযোগও উঠেছে সহকারী জেলা শিক্ষা অফিসার হিমাংশু কুমার রায় সিংহের বিরুদ্ধে। জেলা শিক্ষা অফিসার মো. শাহীন আকতার এ বিষয়ে লিখিত জবাব চেয়েছেন সহকারি জেলা শিক্ষা অফিসারের কাছে ।
এমনকি উপ-পরিচালক রংপর এর বরাবরে ১৫ অক্টোবর  মতামত চেয়েছেন। ১ দিনের জন্য ভারপ্রাপ্ত জেলা শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব পালনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী নিয়োগে ডি.জি প্রতিনিধি মনোনয়ন করতে পারবেন কি না।
জেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার হিমাংশু কুমার রায় সিংহ লিখিত জবাবে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম ও সভাপতি ফারুক হাসানের অনুরোধে ও  চেয়ারম্যান পঞ্চগড় এর সুপারিশে ডি.জি প্রতিনিধি মনোনয়ন করি। ভবিষ্যতে এমন কাজ থেকে সতর্ক থাকবেন মর্মেও জানিয়েছেন।
জানা গেছে,  গোপনে গত ৯ আগষ্ট পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। আর ৯ সেপ্টেম্বর অনেকটা গোপনেই নিয়োগ বোর্ড গঠন করে নিয়োগের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ইশমা আক্তার লাবনীকে নিয়োগের জন্য চুরান্তভাবে সুপারিশ করা হয়েছে। যথারীতি আবেদন প্রক্রিয়া শেষ করে তিনজন আবেদন প্রার্থীর পরীক্ষা নেওয়া হয়।
এযুগেও চাকুরীর বাজারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ল্যাব সহকারি পদে আবেদন প্রার্থী তিনজন । গোপনে নিয়োগ দেওয়ার শেষে জানতে পারে চাকুরীর জন্য আবেদন করতে না পারায় ২৯ সেপ্টেম্বর জেলা শিক্ষা অফিসারের বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন রবিউল ইসলাম রবি নামের এক চাকুরীর আবেদন প্রার্থী ।
অভিযোগ করে বলেন, বিদ্যালয়ের সভাপতি মো. ফারুখ হাসান ও প্রধান শিক্ষক মো. আমিনুল ইসলাম নিজের পছন্দমত প্রার্থীকে উৎকোচ এর বিনিময়ে নিয়োগ দিয়েছেন। গোপনে সব কাজ সম্পর্ন করেছেন এলাকাবাসী কেউ জানেন না।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুল ইসলাম ও সভাপতি ফারুক হাসান নিয়োগের কাগজপত্র দেখতে চাইলে এখনো কোন কাগজপত্রাদি দেখাতে পারেননি।
জেলা সহকারি শিক্ষা অফিসার হিমাংশু কুমার রায় সিংহ এর সাথে মুঠোফোনে বার বার যোগাযোগ করা হলেও পাওয়া যায় নি।
জেলা শিক্ষা অফিসার পঞ্চগড় মো. শাহীন আকতার  জানান, এই নিয়োগের বিষয়ে কিছুই জানিনা। আমি একদিনের ছুটিতে ছিলাম। আমাকে না জানিয়ে ডি.জি প্রতিনিধি মনোনয়নের কাজ একদিনের ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা অফিসার হিমাংশু কুমার রায় সিংহ প্রদান করেন। লিখিত জবাব চেয়েছি এবং ডি.ডি রংপুর এর কাছে এবিষয়ে মতামত চেয়েছি। এদিকে নিয়োগের বিষয়ে পঞ্চগড় সাংসদ আলহাজ্ব মজাহারুল হক প্রধান মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন এ বিষয়ে আমি জানিনা তবে শুনলাম যে এ রকম একটা নিয়োগ হয়েছে  আমি উপজেলা শিক্ষা অফিসার কে ফোন করি কিভাবে হলো আমাকে জানাবেন।