ইন্দুরকানীতে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা চেষ্টা

Friday, November 20th, 2020

কে.এম শামীম রেজা, ইন্দুরকানী(পিরোজপুর) প্রতিনিধি ঃ ইন্দুরকানীতে পুর্বপরিকল্পিত ভাবে অতর্কিত হামলায় রাসেল হাওলাদার (২৩) এর ৭টি দাঁত ভেঙ্গে দিল প্রতিপক্ষরা । বুধবার রাতে উপজেলার সেউতিবাড়ীয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে । সেউতিবাড়ীয়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে রাসেল হাওলাদার নিজ বাড়ী থেকে তার শশুর বাড়ী যাওয়ার উদ্দ্যেশে রওনা করলে পথিমধ্যে উৎ পেতে থাকা একই গ্রামের নজরুল হাওলাদারের তিন ছেলে শাহিন হাওলাদার (৩০) শহিদ হাওলাদার (২২) ফরিদ হাওলাদার (২০)এবং আঃ হামেদের ছেলে আবু তালেব (৫০) হরমুজ আলীর ছেলে রুহুল হাওলাদার সহ দেশীয় অস্ত্র ও লাঠি দিয়ে অর্তকিত ভাবে হামলা করে রাসেল হাওলাদারের উপরে মাথায় ও ঘাড়ে কোপ এবং উভয় চোয়ালের ৭টি দাঁত ভেঙ্গে দেয় ।

প্রত্যক্ষদশী হাফিজুল বলেন, আমি রাসেলকে তার শশুরবাড়ী যাওয়ার জন্য কিছু পথ আগাইয়া দিয়া আসলে উৎ পেতে থাকা তিন ভাই রাসেলের উপর আঘাত করে, পরে আমাকে একটি তাদের লাটি দিয়ে আঘাত করেন । আমি ডাক চিৎকার দিলে এলাকার লোকজন আসলে রক্তাক্ত তার মাথায় ও ঘাড়ে কোপ এবং কয়েকটি দাঁত পড়ে থাকা অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে।

রাসেলের পিতা আবুল কালাম জানান, খবর পেয়ে ছেলেকে উদ্ধার করে প্রথমে পিরোজপুর সদর হাসপাতাল নিয়ে গেলে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেলে নিয়ে যায় । পুর্বে বাড়ীর একটি জমিজমা নিয়ে মামলা চলছে, ঐ মামলার জেরে ওরা মোর পোলার ৭টি দাঁত ভাইঙ্গা দেছে, এবং মাথায় ও ঘাড়ে দাও দিয়া কোপ দেছে । এলাকার লোকজন না আসলে মোর পোলারে মাইরা ফেলতো ।

ইন্দুরকানী থানার ওসি মোঃ হুমায়ুন কবির জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে আহত রাসেলকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আমরা এখনও অভিযোগ পাইনি, তবে অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেব ।