Logo
শিরোনাম

৬৯০ টাকার টি-শার্টে প্রাইস ট্যাগ বসিয়ে ১০৯০ টাকায় বিক্রি!

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১২০জন দেখেছেন
Image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিপণিবিতানে অভিযান পরিচালনা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয়।

বুধবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে জেলা শহরের বিভিন্ন বিপণিবিতানে অভিযানকালে অতিরিক্ত মূল্য, বিক্রির মাল ফেরত না দেওয়া ও প্রতারণার অভিযোগে জরিমানা করা হয়।

অভিযানের নেতৃত্ব দেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসান।

jagonews24

তিনি জাগো নিউজকে জানান, অভিযানে কোর্ট রোডে এফএ টাওয়ারের আর্টিসান প্লাস শোরুমে গিয়ে দেখা যায়, একই টি-শার্টের গায়ে ২-৩টি প্রাইস ট্যাগ ওভারল্যাপ করে বসানো হয়েছে। ওপরের স্টিকারে মূল্য লেখা ১০৯০ টাকা। সেই স্টিকারটি ওঠানোর পর দেখা যায় পুরাতন আরেকটি স্টিকারে মূল্য লেখা ৬৯০ টাকা। এসময় পণ্যের ক্রয়মূল্যের রশিদ দেখতে চাইলে তারা দেখাতে পারেননি। প্রতারণার অভিযোগে আর্টিসান প্লাস প্রতিষ্ঠানটিকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সহকারী পরিচালক মেহেদী হাসান আরও বলেন, ফরিদুল হুদা রোডে অবস্থিত স্টেপ নামক জুতার শোরুমে দেখা যায়, ক্রেতাদের ভাউচার দেওয়া হচ্ছে না। বিভিন্ন জুতায় দ্বিগুণেরও বেশি লাভ করা হচ্ছে। এছাড়া রমজান উপলক্ষে বিক্রিত পণ্য ফেরত বা পরিবর্তন হবে না এমন পোস্টার সাঁটানো হয়েছে, যা ভোক্তাদের অধিকার ক্ষুণ্ন করে। তাই প্রতিষ্ঠানটিকে ছয় হাজার টাকা জরিমানা এবং সতর্ক করে দেওয়া হয়।


আরও খবর



অচেনা রূপে চিরচেনা ঢাকা

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৬জন দেখেছেন
Image

ঢাকা এখন ফাঁকা। পাল্টে গেছে চিরচেনা রাজধানীর চিত্র। কোথাও কোনো ব্যস্ততা নেই। নেই যানজট বা মানুষের কোলাহল। সড়কে টুকটাক ব্যক্তিগত গাড়ির দেখা মিলছে। গণপরিবহনও অনেক কম। আছে যাত্রী সংকটও। মোড়ে মোড়ে অনেকটা অলস সময় পার করছে ট্রাফিক৷ নিরাপত্তার স্বার্থে বিভিন্ন জায়গায় চেকপোস্ট বসিয়েছে নগর পুলিশ। করা হচ্ছে তল্লাশিও।

সোমবার (২ মে) সকাল থেকে সরেজমিনে রাজধানীর বেশিরভাগ সড়কে চেকপোস্টগুলোতে এমন চিত্রই চোখে পড়েছে।

এদিন সকাল থেকে মিরপুর, শেরেবাংলা নগর, বিজয় সরণি, তেজগাঁও ও কাকরাইল এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, পুরো রাস্তা ফাঁকা, সড়কে পিনপতন নীরবতা। মাঝেমধ্যে দু-একটা গাড়ি সাই শব্দে দ্রুত চলে যাচ্ছে। এ যেন চেনার গভীরে অচেনা এক ঢাকা।

অচেনা রূপে চিরচেনা ঢাকা

তবে ঈদকেন্দ্রিক রাজধানীর সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সতর্ক অবস্থানে আছে পুলিশ। শহরের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পয়েন্টে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। নিয়ন্ত্রণে রাখা হচ্ছে যানবাহনের। গতিবিধি কোনো রকম সন্দেহ হলেই করা হচ্ছে তল্লাশিও।

তেজগাঁও এলাকায় চেকপোস্টে দায়িত্বরত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহীদুল্লাহ্ জাগো নিউজকে বলেন, মানুষজন তো গ্রামের বাড়িতে গেছে। রাস্তাঘাট মোটামুটি ফাঁকা। সার্বিক পরিবেশ ভালো। আমরা তৎপর আছি, যেন কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে।

অচেনা রূপে চিরচেনা ঢাকা

সেখানে দায়িত্বরত পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আনোয়ার জাগো নিউজকে বলেন, ঢাকা শহর তো একেবারেই ফাঁকা। আগের মত গাড়ি নেই এখন। ফাঁকা রাস্তায় নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা চেকপোস্ট বসিয়েছি। রাজধানীবাসীর নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা তল্লাশিও করছি। আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে আছি।

একই ধরনের কথা শোনা গেছে রাজধানীর অন্য পয়েন্টগুলো চেকপোস্টে দায়িত্বরত ট্রাফিক। তারা বলছেন, ঢাকাবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করাতেই তাদের ঈদ আনন্দ।


আরও খবর



উত্তরপ্রদেশে গৃহকর্মীকে মারধর, নারী এসআইসহ দুই পুলিশ বরখাস্ত

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

ভারতের উত্তরপ্রদেশের ললিতপুর জেলায় কদিন আগেই ধর্ষণের অভিযোগ জানাতে এসে এক তরুণী থানার ভেতরেই যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন। সে ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর এবার এক গৃহকর্মীকে নির্মমভাবে মারধরের অভিযোগে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে পুলিশের একজন নারী উপ-পরিদর্শকও ছিলেন।

জেলার মেহরাউনি এলাকায় সরকারি বাসভবনে এক গৃহকর্মীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ ওঠে এক পুলিশ কনস্টেবল ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে।

অভিযোগে বলা হয়, কদিন আগেই চুরির সন্দেহে কনস্টেবল অংশু প্যাটেল ও তার স্ত্রী ওই গৃহকর্মীকে মারধর করেন। ছাড় পাননি তার স্বামীও। এখানেই শেষ নয়। পরে ওই গৃহকর্মীকে কোতয়ালি থানায় নেন কনস্টেবল অংশু। সেখানে আরেক দফা মারধর চলে। এতে যোগ দেন এক নারী পুলিশ কর্মকর্তাও।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর খবর, গত ২ মে এ ঘটনা ঘটে। এর প্রতিবাদে গত বুধবার (৪ মে) নির্যাতনের শিকার গৃহকর্মীর আত্মীয় থানার সামনে বিক্ষোভ দেখালে টনক নড়ে প্রশাসনের। পরে অভিযুক্ত নারী পুলিশ কর্মকর্তা ও কনস্টেবল অংশুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপরই এ দুজনকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত আসে।

ভুক্তভোগী গৃহকর্মীর অভিযোগ, পুলিশের দুজন মিলে তাকে ঘর আটকে রেখে বেধড়ক পেটান। তার কান্না বা চিকৎকার যেন বাইরে বের না হয় সেজন্য কাপড় দিয়ে তার মুখ বেঁধে দেওয়া হয়।

সম্প্রতি ললিতপুরেই ধর্ষণের অভিযোগ জানাতে থানায় এসে ধর্ষণের শিকার হন এক তরুণী। এ ঘটনায় তিলকধারী সরোজ নামে পুলিশের এক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জানা যায়, তিন দিন ধরে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে চার ব্যক্তি। এ ঘটনা জানাতেই থানায় এসেছিলেন ওই তরুণী। এসময় এক পুলিশ য় অভিযোগ হওয়া এক

দিন কয়েক আগে এক নাবালিকাকে ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত পুলিশ আধিকারিককে গ্রেফতার করা হয়েছে এই ললিতপুরেই। পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, তিন দিন ধরে চার ব্যক্তি ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে। সেই অভিযোগ জানাতেই থানায় এসেছিল সে। সেখানে তাকে ধর্ষণ করা হয়।


আরও খবর



মুশফিকদের নিয়ে নেতিবাচক কথা বন্ধ করতে বললেন সিডন্স

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৯জন দেখেছেন
Image

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে দারুণ এক মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ দলের অভিজ্ঞ ব্যাটার মুশফিকুর রহিম। আর মাত্র ৬৮ রান করলেই বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে ৫ হাজার রানের মালিক হয়ে যাবেন তিনি।

ভক্ত-সমর্থকদের আশা থাকবে চট্টগ্রামে সিরিজের প্রথম টেস্টেই এটি ছুঁয়ে ফেলবেন মুশফিক। তবে তার সাম্প্রতিক ফর্ম বিচারে এ বিষয়ে পুরোপুরি নির্ভার হওয়া বেশ কঠিন। কেননা চলতি বছর খেলা তিন টেস্টের ছয় ইনিংসে চারবারই দশের নিচে আউট হয়েছেন তিনি, ফিফটি করেছেন মোটে একটি।

এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে দেশে ফিরে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও হাসেনি তার ব্যাট। শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের হয়ে চার ম্যাচে করেছেন মোটে ৮৭ রান। তাও কি না মাত্র ৫৬ স্ট্রাইকরেটে। এমতাবস্থায় আসন্ন সিরিজে তাকে নিয়ে আশাবাদী হওয়া সহজ নয়।

তবে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ব্যাটিং কোচ মোটেও চিন্তিত নন মুশফিকের সাম্প্রতিক ফর্ম নিয়ে। তার পূর্ণ বিশ্বাস, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দারুণ একটি সিরিজ কাঠাবেন মুশফিক। পাশাপাশি এক-দুই সিরিজ খারাপ করলেই খেলোয়াড়দের নিয়ে নেতিবাচক কথা বলা বন্ধ করতেও বলেছেন সিডন্স।

মঙ্গলবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে তিনি বলেছেন, ‘সব ব্যাটার এই ধাপটা পার করে, যেখানে রান পায় না। তবে সে গত দুই দিনে যেভাবে ব্যাটিং করছে, আমি নিশ্চিত এই সিরিজে রান করবে। ওর ব্যাটিং দেখতে মুখিয়ে রয়েছি। বেশ কিছু বিষয় নিয়ে কাজ করেছি। সে ভালো একটি সিরিজ কাটাতে চলেছে।’

এসময় চারিদিকের নেতিবাচক কথার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ অবশ্যই! সবার উচিত নেতিবাচক কথা বলা বন্ধ করা। তাদের ওপর চাপ দিও না। তারা এক সিরিজে হতাশ করেছে দেখে চাপ সৃষ্টি করো না, সবসময় তাদের পাশে থাকো যেনো তারা চাপ অনুভব না করে।’

মুশফিকের ব্যাটিং ও সামনের দিনের ক্যারিয়ার সম্পর্কে সিডন্স বলেছেন, ‘আমি মনে করি, মুশফিক সবসময় সামনের বিষয় নিয়ে ভাবে। এখন যেমন দুই টেস্ট ম্যাচ। আমার মনে হয় না সে নিজের কোনো ফরম্যাটের ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তিত। সে এখন এ দুই ম্যাচে আমাদের হয়ে রান করা নিয়ে চিন্তা করছে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘সাদা বলের ক্রিকেটে সে বেশ সফল। যেকোনো খেলোয়াড়েরই এমন সময় আসে যেখানে রান করতে পারে না। সেখান থেকে তারা ঘুরে দাঁড়ায়। এজন্যই তারা গ্রেট প্লেয়ার। মুশফিক দেশের সবচেয়ে সফল টেস্ট ব্যাটার। সে অনেক রান করেছে। তার হয়তো দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের মতো একটা সময় এসেছে। তবে আবার রানে ফিরবে সে।’


আরও খবর



উচ্চ রক্তচাপ মোকাবিলায় সম্মিলিতভাবে কাজ করার তাগিদ

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১৭জন দেখেছেন
Image

উচ্চ রক্তচাপের ক্রমবর্ধমান প্রকোপ ও বিস্তার কমাতে সরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থা, গণমাধ্যমসহ সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

বুধবার (১৮ মে) রাজধানীর একটি হোটেলে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়ে বক্তারা এ আহ্বান জানান। বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবস উপলক্ষে গ্লোবাল হেলথ অ্যাডভোকেসি ইনকিউবেটরের (জিএইচএআই) সহায়তায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ (এনসিডিসি) প্রোগ্রাম, প্রজ্ঞা (প্রগতির জন্য জ্ঞান) এবং ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ সম্মিলিতভাবে এই ‘মিট দ্য প্রেস’ আয়োজন করে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘সঠিকভাবে রক্তচাপ মাপুন, নিয়ন্ত্রণে রাখুন এবং দীর্ঘজীবী হোন’।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বাংলাদেশে প্রতি পাঁচজনে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ (২১ শতাংশ) উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন। উচ্চ রক্তচাপের কারণে বিভিন্ন অসংক্রামক রোগ বিশেষত হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। এ বিষয়ে গণসচেতনতা তৈরি, ওষুধ এবং চিকিৎসাসেবা সহজলভ্য করতে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এনসিডিসি প্রোগ্রাম। তবে উচ্চ রক্তচাপের ক্রমবর্ধমান প্রকোপ ও বিস্তার কমাতে সরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থা, গণমাধ্যমসহ সকলকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিন বলেন, উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্তদের বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা দিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির আওতায় ২০১৮ সাল থেকে দেশের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে এনসিডি কর্নার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ‘উচ্চ রক্তচাপ শনাক্তকরণ, চিকিৎসা এবং ফলোআপ’ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। চলতি বছরের মধ্যে সারাদেশে এই এনসিডি কর্নারের সংখ্যা ২০০-তে উন্নীত করার পরিকল্পনা নিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

তিনি আরও বলেন, উচ্চ রক্তচাপের প্রকোপ ক্রমবর্ধমান। এই সংকট মোকাবিলায় স্বাস্থ্যখাতসহ সরকারের অন্যান্য প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি সংস্থা, গণমাধ্যম সবাইকেই সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক আব্দুল মালিক ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে বলেন, আমাদের প্রতিরোধ ব্যবস্থার ওপর জোর দিতে হবে। শুধু হাসপাতাল বানিয়ে উচ্চ রক্তচাপের মতো অসংক্রামক রোগের প্রকোপ থেকে জাতিকে রক্ষা করা যাবে না।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, উচ্চ রক্তচাপজনিত হৃদরোগ ও অন্যান্য অসংক্রামক রোগের ঝুঁকি বিষয়ে ব্যাপক জনসচেতনতা তৈরি এবং স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপন যেমন- অতিরিক্ত লবণ খাওয়া পরিহার করা, ট্রান্স ফ্যাটযুক্ত খাবার এড়িয়ে চলা, তামাক ও মদ্যপান পরিহার করা, অতিরিক্ত ওজন কমানো এবং নিয়মিত ব্যায়াম ও শারীরিকভাবে সক্রিয় থাকার বিষয়ে সচেতনতা অত্যন্ত জরুরি।

উচ্চ রক্তচাপকে বলা হয় নীরব ঘাতক। অধিকাংশ সময় এই রোগের নির্দিষ্ট কোনো লক্ষণ এবং উপসর্গ থাকে না। উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসা করা না হলে বুকে ব্যথা বা অ্যানজাইনা, হার্ট অ্যাটাক, হার্টফেল এবং হার্টবিট অনিয়মিত হওয়ার পাশাপাশি স্ট্রোক হতে পারে। এছাড়াও উচ্চ রক্তচাপের কারণে কিডনির ক্ষতি হয়। নিয়মিত ওষুধ সেবনের মাধ্যমে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রেখে হৃদরোগের ঝুঁকি কমানো যায় বলে অনুষ্ঠানে জানান বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

অনুষ্ঠানে গ্লোবাল হেলথ অ্যাডভোকেসি ইনকিউবেটরের বাংলাদেশ কান্ট্রি লিড মুহাম্মাদ রূহুল কুদ্দুস, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের রোগতত্ত্ব বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. সোহেল রেজা চৌধুরী ও কার্ডিওলজি বিভাগের কনসালটেন্ট ডা. মীর ইশরাকুজ্জামান এবং প্রজ্ঞা’র নির্বাহী পরিচালক এবিএম জুবায়ের উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



সৈয়দ নজরুল মেডিকেলে মাকে দেখতে এসে ধর্ষণের শিকার কিশোরী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫৫জন দেখেছেন
Image

কিশোরগঞ্জে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অসুস্থ মাকে দেখতে আসা এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (৩ মে) রাতে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় বুধবার (৪ মে) রাতে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করেছেন মেয়েটির বাবা। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবককে আসামি করা হয়েছে।

স্বজনরা জানান, কিশোরীর মা ওই হাসপাতালে চতুর্থ তলায় মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন। মেয়েটি হাসপাতালে মাকে দেখতে আসে। সে তার মায়ের সঙ্গেই ছিল। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে চিকিৎসক ওয়ার্ড পরিদর্শনের সময় রোগীর স্বজনদের ওয়ার্ড থেকে বের হয়ে যেতে বলা হয়। ওই সময় কিশোরী ওয়ার্ডের বাইরে দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় অপরিচিত এক যুবক তাকে জোর করে নিচতলায় নিয়ে যান। মেয়েটি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে মুখ চেপে ধরে টয়লেটে নিয়ে যান ওই যুবক।

ওয়ার্ড পরিদর্শন শেষে চিকিৎসক চলে যাওয়ার পর মেয়েটির বাবা তাকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না। পরে মেয়েটির চিৎকার শুনে নিচতলা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। ওই কিশোরী বাবার কাছে ঘটনা খুলে বলে।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ জানান, মেয়েটি যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে বলে তার বাবা থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। হাসপাতালের সিসি টিভির ফুটেজ দেখে অভিযুক্তকে শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

এ বিষয়ে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘রোগীর সঙ্গে হাসপাতালে থাকা মেয়েটিকে নিচতলায় নিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে তার বাবা আমাদের জানিয়েছেন। হাসপাতালের সিসি টিভির ফুটেজে এক যুবককে মেয়েটিকে সিঁড়ির কাছে নেওয়ার চেষ্টা করতে দেখা গেছে। তাকে চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে।’


আরও খবর