Logo
শিরোনাম

‘ব্যবসায়ীরা নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে ভয় পাচ্ছে না’

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

খাদ্য সংশ্লিষ্ট সব ব্যবসায়ীদের এক সংস্থার অধীনে আনতে কাজ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

মঙ্গলবার (৭ জুন) রাজধানীতে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে ‘উন্নত অর্থনীতির জন্য নিরাপদ খাদ্য’ শীর্ষক এক সেমিনারের তিনি এ কথা জানান।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, খাদ্য উৎপাদনকারী থেকে শুরু করে বিভিন্ন স্তরের ব্যবসায়ীরা সরকারি ১৮টি সংস্থার অধীনে কাজ করে। এজন্য তারা বিভিন্ন জটিলতার পাশাপাশি হয়রানিরও শিকার হন।

তিনি আরও বলেন, খাদ্য ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কৃষি বাণিজ্য শিল্প এবং খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সংস্থাগুলোর মধ্যে মতভেদ রয়েছে। এজন্য এটি কারা তদারকি করবে সে বিষয়টি কেবিনেটে (মন্ত্রীপরিষদ সভা) উত্থাপন করা হয়েছে। কেবিনেট বলে দেবে এগুলো কার কাজ।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, খাদ্য নিরাপত্তায় সব থেকে বেশি কাজ করছে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তারা লাইসেন্সিং অথরিটি না। এজন্য ব্যবসায়ীরা ভয় পাচ্ছে না এ সংস্থাকে। তারা (ব্যবসায়ী) লাইসেন্স যে দেয় তাদের সবচেয়ে বেশি ভয় করে।

jagonews24

হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে সেমিনারে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার

খাদ্য ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, কেউ কেউ মুনাফার জন্য ইচ্ছা করে অনিরাপদ খাদ্য তৈরি করে। আমরা চাই দেশের খাদ্য বিদেশের বাজার জয় করুক। এখন যেটুকু বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে, সেটা প্রবাসী বাংলাদেশিরা খাচ্ছেন। আমরা চাই অন্যান্য দেশের মানুষ বাংলাদেশি পণ্য খাবে। আপনারা খাদ্যের মান উন্নয়ন করুন।

চাল নিয়ে মন্ত্রী বলেন, চাল নিরাপদ করতে কতটুকু ছাঁটাই করা যাবে, কী মেশানো যাবে, কোনটা যাবে না, সে আইন করছি। তাতে ঠিক থাকবে পুষ্টিমান। খসড়া আইনটি কেবিনেটে পাস হয়ে এখন ভেটিংয়ে রয়েছে। আশা করছি আগামী অধিবেশনে সেটি হবে। তখন চাল ব্যবসায়ীদের কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ সহজ হবে।

চালের দাম স্থিতিশীল রাখতে জনসচেতনতাও দরকার বলে জানান সাধন চন্দ্র মজুমদার। তিনি বলেন, আমরা বস্তায় চাল কিনি না। কিন্তু সেটা যখন পালিশ করে প্যাকেটে ভরা হয়, তখন ১০ টাকা বেশি দিয়ে কিনি। সেজন্য ব্যবসায়ীরাও সেটা করে।

এসময় খাদ্য সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম বলেন, আমরা নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে আরও শক্তিশালী করতে চাই। এখনও এ সংস্থা অনেক কাজ করছে।

এসময় খাদ্য সচিবের সভাপতিত্বে আর উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ফরাসউদ্দিন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য গিয়াসউদ্দিন মিয়া, এফএওর কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টিটিভ রবার্ট সিম্পসনসহ খাদ্য সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রধান, এফএওর প্রতিনিধি ও ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা।


আরও খবর



শৈলকুপা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ প্রার্থীর জয়

প্রকাশিত:সোমবার ০১ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
Image

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এম আব্দুল হাকিম আহমেদ বিজয়ী হয়েছেন। তিনি ৬৯ হাজার ৬৬১ ভোট পেয়েছেন।

এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নু পেয়েছেন ১৪ হাজার ১ ভোট। স্বতন্ত্র অপর প্রার্থী আনিচুর রহমান মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ৯২৯ ভোট।

রোববার (৩১ জুলাই) রাত ৯টার দিকে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম থেকে এ ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহা. আব্দুস ছালেক।

সেসময় সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা জুয়েল আহমেদসহ গণমাধ্যমকর্মী ও প্রার্থীর সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহা. আব্দুস ছালেক জানান, সুন্দর ও সুষ্ঠু পরিবেশে উপ-নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। কোথাও কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

বিজয়ী প্রার্থী এম আব্দুল হাকিম আহমেদ জানান, এ বিজয় জনগণের বিজয়। আমার বিজয়কে শৈলকুপাবাসীর প্রতি উৎসর্গ করলাম।

এর আগে উপজেলার ১২০টি কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়, যা একটানা চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। সবকয়টি কেন্দ্রের ভোট হয় ইভিএমের মাধ্যমে। নির্বাচনে ভোট পড়েছে ২৮ শতাংশ।


আরও খবর



ভিডিও কলের ফাঁদে ফেলে বিশিষ্টজনদের থেকে টাকা আদায় করতেন সাগর

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

আজহার উদ্দিন সাগর (১৯)। লেখাপড়া করেছেন নবম শ্রেণি পর্যন্ত। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সুন্দরী তরুণীদের ছবি ব্যবহার করে আইডি খুলে সমাজের বিশিষ্টজন ও উচ্চ শ্রেণির লোকদের ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাতেন তিনি। ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করার পর শুরু হতো সুসম্পর্ক গড়ে তোলা। একপর্যায়ে মেসেঞ্জারে পর্ন বিষয়ক বিভিন্ন কথাবার্তা ও ছবি পাঠিয়ে অকৃষ্ট করতেন। এরপর তাদের সঙ্গে মেসেঞ্জারে ভিডিও চ্যাটের মাধ্যমে স্ক্রিন রেকর্ডার ব্যবহার করে সেগুলো রেকর্ড করে পরবর্তীসময়ে হুমকি দিয়ে টাকা আদায় করতেন।

সম্প্রতি রাজধানীর বাড্ডা থানায় করা এক মামলা তদন্ত করতে গিয়ে প্রতারক সাগরকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ। এ সময় প্রতারণায় ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও সিম জব্দ করা হয়।

শনিবার (২৩ জুলাই) সন্ধ্যায় বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন গোয়েন্দা সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের ফাইন্যান্সিয়াল ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) মো. মহিদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, গ্রেফতার আজহার উদ্দিন সাগর ফেনী জেলার একজন বাসিন্দা। তিনি নবম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করলেও প্রযুক্তি ব্যবহারে অত্যন্ত পারদর্শী। তিনি বিভিন্ন সুন্দরী মেয়েদের ছবি ও নাম ব্যবহার করে ফেসবুক আইডি তৈরি করতেন। এসব আইডি ব্যবহার করে সাগর মধ্যবয়স্ক সমাজের বিত্তশালী ব্যক্তিদের টার্গেট করে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠাতেন। পরবর্তীসময়ে ভিকটিমরা তার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করলে গ্রেফতার আজহার নারী পরিচয়ে ভিকটিমদের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়ে তোলেন। সুসম্পর্কের একপর্যায়ে সাগর তার টার্গেট করা লোকজনের সঙ্গে স্পর্শকাতর ও অন্তরঙ্গ আলাপচারিতায় লিপ্ত হন। একপর্যায়ে ভিকটিমকে ভিডিও কলে আমন্ত্রণ জানায় সাগর। ভিকটিম সরল বিশ্বাসে মেসেঞ্জারে ভিডিও কল রিসিভ করলে স্ক্রিন শেয়ারের মাধ্যমে মোবাইলে আগে থেকে ধারণ করা একটি ভিডিও ক্লিপ চালিয়ে দেয় এবং স্ক্রিন রেকর্ডের মাধ্যমে ভিডিও চ্যাট রেকর্ড করে মোবাইলে সংরক্ষণ করেন।

মহিদুল ইসলাম বলেন, রেকর্ড করা ভিডিও ভিকটিমের আত্মীয়-স্বজন ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়ে সম্মানহানি করার হুমকি দিয়ে মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহার করে বিপুল অর্থ আত্মসাৎ করেন। গ্রেফতারের সময় সগরের কাছে জব্দ করা মোবাইলে বিভিন্ন ব্যক্তিদের সঙ্গে অন্তরঙ্গ ভিডিও কলের রেকর্ড পাওয়া যায়। এছাড়াও একাধিক মেয়েদের পর্ন ছবি ও ভিডিও তার মোবাইলে পাওয়া যায়। অসংখ্য সুন্দরীদের ছবি ব্যবহার করে ভুয়া নামে ৩০-৪০টি ফেসবুক আইডি উদ্ধারসহ লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়া যায়।

এডিসি মহিদুল আরও বলেন, এমন প্রতারণার মাধ্যমে টাকা খোয়ানো একজন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী বাদী হয়ে বাড্ডা থানায় একটি মামলা করেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে ফেনী থেকে সাগরকে গ্রেফতার করা হয়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপরিচিত কারও সঙ্গে বন্ধুত্ব করার ক্ষেত্রে সাবধান হওয়ার পরামর্শ দিয়ে পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, বন্ধুত্বের অনুরোধ গ্রহণ করার আগে পরিচিত কি না তা নিশ্চিত হতে হবে। অপরিচিত ব্যক্তিদের সঙ্গে কথোপকথন ও তথ্য শেয়ারের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকাতে হবে। একান্ত ব্যক্তিগত কোনো কিছু ফেসবুকে শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে হবে।


আরও খবর



জমি নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় প্রাণ গেলো বৃদ্ধের

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

নওগাঁর মান্দায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় ময়েজ উদ্দিন সরদার (৭০) নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রাত ১০টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ছেলে খোরশেদ আলম বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতাররা হলেন- মান্দা সদর ইউনিয়নের খাগড়াগ্রামের হাফেজ উদ্দিন (৪৫), রকিবুল ইসলাম রকি (২৫), নাজমুল হক (২২) ও জাহানারা বেগম (৫২)। আহতরা হলেন- একই গ্রামের মাসুদ রানা (৪৫), রাসেল রানা (৩৫), মেহেদী হাসান (৩২), মর্জিনা বেগম (৪০) ও নাসিমা বেগম (৩২)।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, খাগড়াগ্রামের হাফেজ উদ্দিনের সঙ্গে ময়েজ উদ্দিন সরদারের জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। বৃহস্পতিবার সকালে আবারও তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষ হাফেজ উদ্দিন রকিবুল ইসলাম রকি, নাজমুল হকসহ কয়েকজন সংঘবদ্ধ হয়ে ময়েজ উদ্দিন সরদারের ওপর হামলা করে। হামলায় নারীসহ ছয়জন আহত হন।
এদের মধ্যে ময়েজ উদ্দিনের অবস্থা গুরুতর ছিল। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে তিনি মারা যান।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। মামলার পর চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিরা পলাতক রয়েছে। তাদেরও আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


আরও খবর



‘হৃদিতা’ হয়ে আসছেন পূজা, ৭ অক্টোবর মুক্তি

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ১৪জন দেখেছেন
Image

কথাসাহিত্যিক আনিসুল হকের উপন্যাস ‘হৃদিতা’ অবলম্বনে একই নামে ইস্পাহানী আরিফ জাহান নির্মাণ করছেন সিনেমা ‘হৃদিতা’। শনিবার (৬ আগস্ট) সিনেমাটির ফার্স্ট লুক প্রকাশ হয়েছে। এবার জানা গেল, সিনেমাটি আগামী ৭ অক্টোবর দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে।

২০১৯-২০ অর্থ বছরে ৫৫ লাখ টাকা সরকারি অনুদান পাওয়া সিনেমাটির নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সময়ের দর্শকপ্রিয় চিত্রনায়িকা পূজা চেরি। সিনেমাটিতে পূজার নায়ক চিত্রনায়ক এবিএম সুমন।

ছবিটি মুক্তির তথ্য নিশ্চিত করে নির্মাতা ইস্পাহানী আরিফ জাহান বলেন, ‘বর্তমানে ‘দিন দ্যা ডে’, ‘পরাণ’, ‘হাওয়া’ সিনেমা দেখতে দর্শক যেভাবে প্রেক্ষাগৃহে আসছে আশা করছি আমাদের সিনেমা ‘হৃদিতা’ দেখতেও আসবে। সিনেমাটিতে একটা রোমান্টিক গল্প আছে। অনেক বার্তা আছে। দর্শকের ভালো লাগবে।’

সিনেমাটি নিয়ে চিত্রনায়িকা পূজা চেরি বলেন, ‘এই প্রথমবার সাহিত্য নির্ভর সিনেমায় কাজ করেছি। সেটাও আবার খুব জনপ্রিয় লেখক আনিসুল হকের গল্পে। নিজের শতভাগ দিয়ে চেষ্টা করেছি চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলতে। দর্শক ভালো কিছুই পেতে যাচ্ছেন।’

‘হৃদিতা’ দর্শকদের নিরাশ করবে না বলে নায়িকার বিশ্বাস।

জানা গেছে, মুক্তির আগে পর্যায়ক্রমে সিনেমার ট্রেলার ও গানগুলো প্রকাশ করা হবে। সিনেমায় দুটি গান আছে। গেয়েছেন চন্দন সিনহা ও সিঁথি সাহা। সিনেমার সংলাপও লিখেছেন আনিসুল হক। চিত্রনাট্যের কাজ করেছেন পরিচালক নিজেই।

এই সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন মানস বন্দ্যোপাধ্যায়, সাবেরী আলম, আরজুমান আরা প্রমুখ।


আরও খবর

ক্যারিয়ার নিয়ে যা বললেন মিম

রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২




একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে দিশেহারা গৌরী শীল

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ২২জন দেখেছেন
Image

স্বামী অন্যত্র বিয়ে করে চলে গেছেন অনেক আগেই। গার্মেন্টসে চাকরি করে একমাত্র সন্তান শান্ত শীলকে পড়ালেখা করাচ্ছিলেন। স্বপ্ন ছিলো তাকে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করে স্বামী বঞ্চনার একটি মোক্ষম জবাব দেবেন। এবার সেই সবেধন নীলমণিও (একমাত্র সন্তান) হারিয়ে গেল মীরসরাইয়ে ট্রেন-মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায়। স্বামী নেই, সন্তান নেই। এখন আর কেউ রইলো না গৌরী শীলকে দেখার!

হাটহাজারীর কে এস নজু মিয়া হাইস্কুল থেকে এসএসসি পাশ করে একই উপজেলার জিয়াউর রহমান কলেজে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়ছিলেন শান্ত। গত ২৯ জুলাই (শুক্রবার) বন্ধুদের সঙ্গে খৈয়া ছড়া ঝরণা দেখতে গিয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান তিনি। ওই দুর্ঘটনায় ১১ জনের প্রাণহানি ঘটে। ছেলের শোকে মূহ্যমান গৌরি এখন কথা বলার শক্তিও হারিয়ে ফেলেছেন।

রোববার (৩১ জুলাই) দুপুরে হাটহাজারীর যুগীর হাট এলাকায় কথা হয় শান্ত শীলের এক ঠাকুরমার সঙ্গে। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, শান্তর বাবা রনি শীল বেশ কয়েক বছর আগে তার মাকে ফেলে অন্যত্র বিয়ে করে চলে গেছেন। তাদের বাড়ি হাটহাজারী সরকার হাট কালী বাড়ি এলাকায়।

বাবা না থাকায় তারা বালু ছড়া তুফানি রোড এলাকার ভাড়া বাসায় বসবাস করতো। জিয়াউর রহমান কলেজে পড়ার সুবাদে যুগীর হাট এলাকায় তার বন্ধুবান্ধব বেশি ছিলো। একমাত্র সন্তান মারা যাওয়ায় গৌরি এখন অসহায় হয়ে পড়েছেন, জানালেন ওই ঠাকুরমা।

শান্ত শীলের খালাতো ভাই নয়ন শীল বলেন, আমার আন্টি (খালা) গার্মেন্টসে চাকরি করে। শান্ত আমার বন্ধু ও ছোট ভাই। সে বেড়াতে যেতে চাইলে আমি প্রথমে তাকে বারণ করি। পরে যখন বলেছে, স্যারদের সঙ্গে বেড়াতে যাচ্ছে, তখন আর বারণ করিনি। এর মধ্যেই দুর্ঘটনাটি ঘটে গেলো।

কে এস নজু মিয়া হাই স্কুলের শিক্ষক সাধন চন্দ্র নাথ বলেন, শান্ত খুব ভদ্র ছেলে ছিলো। ২০২০ সালে আমাদের স্কুল থেকে এসএসসি পাস করে। আমরা জানতাম তার বাবার অবর্তমানে মা-ই তার পড়ালেখার খরচ মেটাতেন। এখন তার মায়ের স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ হয়ে গেছে।

গত শুক্রবার (২৯ জুলাই) দুপুরে মিরসরাইয়ের খৈয়াছড়া এলাকায় মহানগর প্রভাতী ট্রেন ও পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসের সংঘর্ষের ঘটনায় ১১ জন নিহত হন। এরই মধ্যে তাদের মরদেহগুলো পরিবারের সদস্যদের কাছে বুঝিয়ে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

এ ঘটনায় শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে খৈয়াছড়া রেলক্রসিং এলাকার গেটকিপার সাদ্দাম হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার (৩০ জুলাই) বিকেলে চট্টগ্রাম সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুন নাহারের আদালত সাদ্দাম হোসেনকে কারাগারে পাঠান। এছাড়াও তাকে দায়িত্ব থেকে বরখাস্ত করে রেল কর্তৃপক্ষ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুর্ঘটনার সময় গেটম্যান সাদ্দাম ওই লেভেল ক্রসিংয়ে ছিলেন না। তিনি জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন।

এদিকে, কমিটি গঠনের পরই ঘটনার মূল সত্যতা খুঁজে বের করতে তদন্ত কাজ শুরু হয়েছে বলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন কমিটির প্রধান মো. আনছার আলী।


আরও খবর