Logo
শিরোনাম

দ্য হান্ড্রেডে দল পাননি বাংলাদেশের কেউ

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১১৮জন দেখেছেন
Image

ইংল্যান্ডের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ঘরোয়া টুর্নামেন্ট দ্য হান্ড্রেডে দল পাননি বাংলাদেশের কেউ। মঙ্গলবার রাতে হয়ে গেছে দ্য হান্ড্রেডের দ্বিতীয় আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট। যেখানে নাম ছিল বাংলাদেশের দশ ক্রিকেটারের। তবে তাদের প্রতি আগ্রহ দেখায়নি কোনো দল।

এক লাখ পাউন্ড ভিত্তিমূল্যে নাম ছিল সাকিব আল হাসানের। এছাড়া ভিত্তিমূল্য ছাড়া নাম দিয়েছিলেন তাসকিন আহমেদ, লিটন দাস, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন, সাব্বির রহমান, আবু হায়দার রনি ও নাসুম আহমেদ। কারোই কপাল খোলেনি।

অবশ্য শুধু সাকিব-তামিম নন, দ্য হান্ড্রেডের প্লেয়ার্স ড্রাফটে অবিক্রিত থেকে গেছেন ক্রিস গেইল, ডেভিড ওয়ার্নার, নিকোলাস পুরান, মিচেল মার্শের মতো তারকা ক্রিকেটাররা। সর্বোচ্চ ভিত্তিমূল্য ১ লাখ ২৫ হাজার পাউন্ডে থাকা ১১ ক্রিকেটারদের মধ্যে দল পেয়েছেন শুধু ছয়জন।

প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে সব দলই ১৫-১৬ জন করে খেলোয়াড় দলে ভিড়িয়েছে। জুলাইয়ে ওয়াইল্ড কার্ড ক্যাটাগরিতে দুইজন, দেশি ক্যাটাগরিতে একজন ও বিদেশি ক্যাটাগরিতে একজন খেলোয়াড়কে সরাসরি চুক্তিতে দলে নিতে পারবে দলগুলো। আগামী ৩ আগস্ট থেকে শুরু হবে এবারের দ্য হান্ড্রেড।

দ্য হান্ড্রেডে ৮ দলের স্কোয়াড

লন্ডন স্পিরিট
জ্যাক ক্রলি, মার্ক উড, কাইরন পোলার্ড, লিয়াম ডওসন, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ইয়ন মরগ্যান, রাইলি মেরেডিথ, জর্ডান থম্পসন, ম্যাসন ক্রেন, ড্যান লরেন্স, ড্যানিয়েল বেল ড্রামন্ড, ক্রিস উড, অ্যাডাম রসিংটন, রবি বোপারা, ব্ল্যাক কুলেন এবং ব্র্যাড হুইল।

ওয়েলশ ফায়ার
জনি বেয়ারস্টো, ওলি পোপ, জো ক্লার্ক, টম ব্যানটন, অ্যাডাম জাম্পা, বেন ডাকেট, ডেভিড মিলার, জ্যাক বল, নাসিম শাহ, ডেভিড পেইন, সাম হাইন, লিউস ডু প্লোয়, ম্যাট ক্রিচলি, রায়ান হিগিন্স, জ্যাকব বেথেল এবং জশুয়া কব।

ম্যানচেস্টার অরিজিনালস
জস বাটলার, ওলি রবিনসন, আন্দ্রে রাসেল, লরি ইভান্স, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, ফিল সল্ট, ড্যানিয়েল ওরাল, ম্যাট পার্কিনসন, শন অ্যাবট, জেমি ওভারটন, টম হার্টলি, টম ল্যামনবি, কলিন অ্যাকারম্যান, ওয়েন ম্যাডসেন, ফ্রেড ক্লাসেন এবং ক্যালভিন হ্যারিসন।

নর্দান সুপারচার্জার
বেন স্টোকস, ডোয়াইন ব্রাভো, আদিল রশিদ, ডেভিড উইলি, ফাফ ডু প্লেসি, ওয়াহাব রিয়াজ, হ্যারি ব্রুক, অ্যাডাম হোস, ব্রাইডন কার্স, ম্যাথু পটস, রোয়েলফ ভ্যান ডার মারউই, জন সিম্পসন, অ্যাডাম লিথ, লুক রাইট এবং ক্যালাম পার্কিনসন।

ওভাল ইনভিন্সিবলস
স্যাম কারান, ররি বার্নস, সুনিল নারিন, জেসন রয়, স্যাম বিলিংস, টম কারান, উইল জ্যাকস, সাকিব মাহমুদ, রাইলি রুশো, রিস টপলি, ড্যানি ব্রিগস, হিল্টন কার্টরাইট, ম্যাট মাইলন্স, জ্যাক লেনিং, জর্ডান কক্স এবং নাথান সোটার।

ট্রেন্ট রকেটস
জো রুট, ডেভিড মালান, টম কোহলার ক্যাডমোর, রশিদ খান, অ্যালেক্স হেলস, লুইস গ্রেগরি, কলিন মুনরো, ইয়ান ককবাইন, মার্চেন্ট ডি ল্যাঙ্গে, লুক উড, সামিত প্যাটেল, ম্যাট কার্টার, স্টিভেন মুলানি, স্যাম কুক, লুক ফ্লেচার এবং টম মুরস।

বার্মিংহাম ফিনিক্স
ক্রিস ওকস, জ্যাক লিচ, ম্যাথু ওয়েড, লিয়াম লিভিংস্টোন, ওলি স্টোন, মঈন আলি, অ্যাডাম মিলনে, বেনি হাওয়েল, কেন রিচার্ডসন, টম অ্যাবল, ম্যাথু ফিশার, উইল স্মিড, ক্রিস বেঞ্জামিন, মাইলস হ্যামন্ড, গ্রায়েন ভ্যান বোরেন এবং হেনরি ব্রুকস।

সাউদার্ন ব্রেভ
জফরা আর্চার, কুইন্টন ডি কক, মার্কাস স্টয়নিস, জেমস ভিন্স, টাইমাল মিলস, ক্রিস জর্ডান, জর্জ গার্টন, অ্যালেক্স ডেভিস, জ্যাক লিন্টট, টিম ডেভিড, রস হোয়াইটলি, ক্রেইগ ওভারটন, জো ওয়েদারলি এবং ড্যান মোরিয়ারটি।


আরও খবর



খরার ধাক্কা কাটিয়ে উঠেছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা, আশাবাদী বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের জন্য অন্যতম প্রধান আমদানি বাজার ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। লাতিন আমেরিকার দেশ দুটি থেকে প্রতি বছর প্রচুর পরিমাণে তেল, গম, চিনি, মাংসসহ নানা ধরনের ফল ও মসলা আমদানি করে বাংলাদেশ। কিন্তু ওই অঞ্চলে গত কয়েক মাস তীব্র খরার কারণে এ বছর কৃষি উৎপাদন কমে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। যার ফলে অনিশ্চয়তায় পড়ে সয়াবিনের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন পণ্যের আমদানি। সেই সঙ্গে হু হু করে বাড়তে থাকে দাম। তবে সেই ধাক্কা কাটিয়ে অবশেষ ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। তাতে আশার আলো দেখছেন বাংলাদেশের ভোক্তারা।

ব্রাজিলে এ বছর খরা সত্ত্বেও রেকর্ড পরিমাণ ফসল ফলবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে ব্রাজিলিয়ান ইনস্টিটিউট অব জিওগ্রাফি অ্যান্ড স্ট্যাটিস্টিকস (আইবিজিই)। সম্প্রতি এক বিবৃতিতে সরকারি সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০২২ সালে দেশটিতে ফসল উৎপাদন ২৬ কোটি ১৫ লাখ টনে পৌঁছাতে পারে, যা গত বছরের তুলনায় অন্তত ৩ দশমিক ৩ শতাংশ বেশি।

এর আগে গত মার্চ মাসে ব্রাজিলে ফসল উৎপাদনের যে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল, নতুন পূর্বাভাসে তার চেয়ে এক শতাংশ, অর্থাৎ প্রায় ২৫ লাখ টন বেশি ফসল ঘরে তোলার সম্ভাবনার কথা জানানো হয়েছে।

jagonews24

বিষয়টি ব্যাখ্যা করে আইবিজিই’র গবেষণা ব্যবস্থাপক কার্লোস বারাদাস বলেন, দেশের মধ্য ও দক্ষিণ অংশের গ্রীষ্মকালীন ফসল আবহাওয়াজনিত সমস্যায় পড়েছিল, যার ফলে কম উৎপাদনের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু জানুয়ারিতে বৃষ্টিপাত ফেরার সঙ্গে সঙ্গে কিছু ফসল পুনরুদ্ধার হয়েছে।

এবারের মৌসুমে ব্রাজিলের প্রধান কৃষিপণ্য সয়াবিন ঘরে তোলা প্রায় শেষের পথে। সেখানে গত মার্চের তুলনায় এপ্রিলে সয়াবিনের উৎপাদন বেড়েছে অন্তত দুই শতাংশ। তা সত্ত্বেও এ বছর ব্রাজিলে বহুল ব্যবহৃত এ তেলবীজের মোট উৎপাদন ১১ কোটি ৮৫ লাখ টন দাঁড়াতে পারে, যা ২০২১ সালের তুলনায় প্রায় ১২ শতাংশ কম।

এ বিষয়ে বারাদাস বলেন, আগেও বলেছি, ফসলে আবহাওয়ার বিরূপ প্রভাব পড়েছে। ফসল ফলানোর সময়ই ভয়াবহ খরা দেখা দিয়েছিল। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশের দক্ষিণাঞ্চল। সেখানে গত বছরের তুলনায় সয়াবিন উৎপাদন মোটামুটি ৪৬ শতাংশ কম হবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

jagonews24

শুধু সয়াবিনই নয়, ব্রাজিলে মার্চ মাসের তুলনায় এপিলে উৎপাদন বেড়েছে আলু (২ দশমিক ৪ শতাংশ), টমেটো (১ দশমিক ৫ শতাংশ), মটরশুটি (১ দশমিক ৩ শতাংশ), আঙুর (১ দশমিক ২ শতাংশ), ক্যানেফোরা কফি (এক শতাংশ) প্রভৃতিরও।

আইবিজিই’র গবেষণা ব্যবস্থাপক নিশ্চিত করেছেন, এবারের মৌসুমে দেশটিতে ভুট্টারও চমৎকার ফলন হয়েছে, যা গ্রীষ্মকালীন ক্ষতি অনেকটাই পূরণ করে দেবে।

ব্রাজিলের মতো খরা পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠেছে প্রতিবেশী আর্জেন্টিনাও। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর বলছে, দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে গত কয়েক মাস বিরূপ আবহাওয়া সত্ত্বেও সয়াবিন, সূর্যমুখী, ভুট্টার মতো তেল-জাতীয় ফসলের ফলন অনেকটাই ‘সন্তোষজনক’।

jagonews24

প্রক্রিয়াজাত সয়াবিন রপ্তানিতে বিশ্বে এক নম্বর এবং ভুট্টা রপ্তানিতে দ্বিতীয় আর্জেন্টিনা। ১৯৯০-এর দশকে উচ্চফলনশীল জাত উদ্ভাবনের পর থেকে দেশটির অন্যতম প্রধান কৃষিপণ্য হয়ে উঠেছে তেলবীজ। গত চার দশকে তাদের জাতীয় উৎপাদন বেড়েছে প্রায় ১৪ গুণ।

সম্প্রতি বুয়েন্স আয়ার্স টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ বছর আর্জেন্টিনায় প্রায় ৩ কোটি ৯০ লাখ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ করা হয়েছে, যার মধ্যে ১ কোটি ৬০ লাখ হেক্টরে লাগানো হয়েছে সয়াবিন। বাজে আবহাওয়ার কারণে এ বছর দেশটির কৃষি উৎপাদন ১২ কোটি ৭০ লাখ টন দাঁড়াতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে, যা গত বছরের চেয়ে দুই শতাংশ কম।

আর্জেন্টিনার চাষিরা এরই মধ্যে গম ও সূর্যমুখীর চাষ করেছেন, দুটোরই ফলন হয়েছে রেকর্ড পরিমাণ। তারা এখন চাষ করছেন সয়াবিন ও ভুট্টা। মে মাসের মাঝামাঝি থেকে গম বপনের নতুন মৌসুম শুরু হবে দেশটিতে। ধারণা করা হচ্ছে, আর্জেন্টিনার কৃষিপণ্য রপ্তানি এ বছর রেকর্ড ৪ হাজার ১০০ কোটি মার্কিন ডলারে পৌঁছাবে, যা ২০২১ সালের তুলনায় প্রায় ৩০০ কোটি ডলার বেশি।

jagonews24

লাতিন আমেরিকার দেশ দুটিতে খরা সমস্যা মিটে যাওয়ায় আশার আলো দেখতে শুরু করেছে বাংলাদেশ। কারণ, দেশে সয়াবিন তেল আমদানি করা মূলত ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা থেকে। সম্প্রতি দেশ দুটিতে খরার কারণে উৎপাদন কমে যাওয়ার খবরে বাংলাদেশের বাজারে তেলের দাম বেড়ে গেছে ব্যাপকভাবে।

ব্যবসায়ীদের দাবি, আন্তর্জাতিক বাজারে সয়াবিন তেলের দাম দ্বিগুণের বেশি বেড়ে গেছে। আগে প্রতি টন ৭৫০ ডলারে কেনা গেলেও এপ্রিলে তা ১ হাজার ৯০০ মার্কিন ডলার ছাড়িয়েছে।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনায় খরা আর বিশ্ববাজারে দাম বাড়ার কারণ দেখিয়ে দেশে এরই মধ্যে কয়েক দফায় বাড়ানো হয়েছে সয়াবিন তেলের দাম। সবশেষ ৪০ টাকা বাড়িয়ে প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম করা হয়েছে ১৯৮ টাকা। তবে খরা সমস্যা কাটিয়ে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনায় তেলবীজের বাম্পার ফলন ক্রেতাদের আশাবাদী করে তুলেছে। দেশ দুটি থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ সয়াবিন আমদানি হলে বাংলাদেশের বাজারে এর দাম আবারও কমে আসবে বলে আশা করছে সাধারণ মানুষ।


আরও খবর



‘জাতিসংঘ নয়, আমাদের স্বার্থেই এসডিজি বাস্তবায়ন করতে হবে’

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

জাতিসংঘ না করলেও আমাদের স্বার্থেই টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়ন করতে হবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার (১৮ মে) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের কার্নিভাল হলে ‘সেকেণ্ড ন্যাশনাল কনফারেন্স এসডিজিস ইমপ্লিমেন্টেশন রিভিউ-২০২২’ এর সমাপনী অধিবেশনে সভাপতির বক্তব্যে এ কথা জানান তিনি।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এসডিজি ও সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এমডিজি) কাছাকাছি কিছু বিষয় আছে। যা সরকার সফলভাবে অর্জন করেছে। জাতিসংঘ স্বীকার করেছে, আমাদের অর্জন ভালো। এজন্য আমাদের প্রধানমন্ত্রী পুরস্কারও পেয়েছেন। এই পুরস্কার আমাদের সবার।

‘এসডিজি অর্জনে আমাদের আরও শক্তিশালী ভূমিকা রাখতে হবে। নিজেদের স্বার্থে আমাদের কাজটা করতে হবে। এটাতে আমাদের মঙ্গল আছে। জাতিসংঘ ওন না করলেও আমাদের নিজেদের স্বার্থে এজডিজি বাস্তবায়ন করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, আমাদের আরও একটা লক্ষ্য আছে। সেটা হলো- পৃথিবীর অন্যান্য জাতির সঙ্গে সম্মান নিয়ে বাঁচতে চাই। আমরা অন্ন চাই, মাছ-মাংস খেয়ে বাঁচতে চাই। এসব লক্ষ্য পূরণে প্রধানমন্ত্রী নিরলসভাবে কাজ করছেন। দেশের জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। আমরা সবাই মিলে টিম হিসেবে কাজ করবো। এতে আমাদের সম্মান বাড়বে।

‘এমডিজি অর্জন সফলভাবে শেষ হওয়ার পর এসডিজি নেওয়া হয়েছে। এসব সিদ্ধান্ত জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে গৃহিত হয়। এক সময় আমাদের নানা যন্ত্রণা ছিল। নিম্ন আয়ের যন্ত্রণা, খেতে না পাওয়ার যন্ত্রণা ও সুপেয় পানি না পাওয়ার যন্ত্রণা ছিল। সকল যন্ত্রণা থেকে জাতিকে মুক্তি দিতে শেখ হাসিনা কাজ করছে।’

অধিবেশনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, এসডিজির মেয়াদ ২০১৬ থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত। আমাদের এসডিজির অসাধারণ অগ্রগতি হয়েছে। এজন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী পুরস্কৃত হয়েছেন। বাংলাদেশ সঠিক পথেই রয়েছে। সকল সূচকে বাংলাদেশ ভালো করেছে।

তিনি আরও বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা, শিশু মৃত্যুহার ও দারিদ্র্য দূরীকরণসহ নানা কাজে ভালো করেছি। সরকার ২০৩০ সালের আগেই এসডিজির সব কিছু অর্জন করেছে। আর এজন্য সকল কৃতিত্ব আমাদের প্রধানমন্ত্রীর।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক জুয়েনা আজিজ ও পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের প্রধান (অতিরিক্ত সচিব) খান মো. নূরুল আমীন।


আরও খবর



নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মাহিন্দা রাজাপাকসে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৭জন দেখেছেন
Image

অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সংকটের মধ্যে বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করা শ্রীলঙ্কার সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে দেশটির নতুন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এক টুইট বার্তায় মাহিন্দা রাজাপাকসে এই সংকটময় পরিস্থিতিতে হাল ধরার জন্য শুভকামনা জানান তাকে।

মাহিন্দা রাজাপাকসের ছেলে ও সাবেক ক্রীড়ামন্ত্রী নামাল রাজাপাকসেও টুইট বার্তায় নয়া প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

এদিকে, শ্রীলঙ্কায় সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে ও তার মিত্রদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ মে) মাহিন্দা রাজাপাকসে, তার ছেলে নামাল রাজাপাকসে ও আরও ১৫ মিত্রকে দেশত্যাগ করতে নিষেধ করেছেন স্থানীয় একটি আদালত। সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলার অভিযোগে এ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। যদিও এর আগে নামাল রাজাপাকসে সাফ জানিয়ে দেন তার বাবা মাহিন্দা রাজাপাকসের দেশ ত্যাগের কোনো পরিকল্পনা নেই।

শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১২ মে) সন্ধ্যা ৭টার দিকে শপথ নেন রনিল বিক্রমাসিংহে। তাকে শপথবাক্য পাঠ করান লঙ্কান প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে। ৭৩ বছর বয়সী অভিজ্ঞ এ রাজনীতিবিদ শ্রীলঙ্কার ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির (ইউএনপি) নেতা। সহিংস বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে গত সোমবার পদত্যাগ করার পর তার স্থলাভিষিক্ত হলেন তিনি।

প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া নতুন প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ দিলেও দেশটির চলমান অচলাবস্থা শিগগিরই কাটছে না বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

সূত্র: কলম্বো গেজেট


আরও খবর



টানা সাত কার্যদিবস পতনে শেয়ারবাজার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২০জন দেখেছেন
Image

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার দেশের শেয়ারবাজারে বড় দরপতন হয়েছে। এর মাধ্যমে টানা সাত কার্যদিবস পতনের মধ্যে থাকলো শেয়ারবাজার। এতে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক প্রায় ১০ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমে গেছে। সূচকের পতনের সঙ্গে ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

ডিএসইর পাশাপাশি অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) মূল্যসূচকের পতন হয়েছে। সেই সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। পাশাপাশি লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে।

এদিন শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হতেই একের পর এক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমতে থাকে। এতে লেনদেনের ১০ মিনিটের মাথায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ৭৫ পয়েন্ট কমে যায়। আর লেনদেনের এক ঘণ্টার মাথায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক কমে ৮০ পয়েন্ট।

এরপর অবশ্য বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বাড়ে। এতে বড় পতন থেকে বেরিয়ে এক পর্যায়ে সূচক ঊর্ধ্বমুখীতার দেখা পায়। দুপুর ১টা ২৫ মিনিটের মাথায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক আগের দিনের তুলনায় ১৫ পয়েন্ট বেড়ে যায়।

তবে সূচকের এই ঊর্ধ্বমুখী ধারা বেশি সময় স্থায়ী হয়নি। লেনদেনের শেষ ঘণ্টায় এসে আবার অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম কমে যায়। ফলে বড় পতন দিয়েই শেষ হয় দিনের লেনদেন।

এতে দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৫১ পয়েন্ট কমে ৬ হাজার ২৫৮ পয়েন্টে নেমে গেছে। এর মাধ্যমে টানা সাত কার্যদিবস পতনের মধ্যে থাকলো শেয়ার বাজার।

এই সাতদিনে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক কমেছে ৪৪০ পয়েন্ট। এমন টানা পতনের কারণে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচকটি গত বছরের ১২ জুলাইয়ের পর সর্বনিম্ন অবস্থানে দাঁড়িয়েছে।

অপর দুই সূচকের মধ্যে বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক ১৯ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ৩১৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ আগের দিনের তুলনায় ৮ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৩৮৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ৬৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ২৬৩টির। আর ৫০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৬৬৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৭৬২ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। সে হিসেবে লেনদেন কমেছে ৯৪ কোটি ৫ লাখ টাকা।

ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ৫৩ কোটি ১৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইসলামী ব্যাংকের ৩৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ২৫ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে শাহিনপুকুর সিরামিক।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে- জেএমআই হসপিটাল রিকুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন, ওরিয়ন ফার্মা, এনআরবিসি ব্যাংক, এসিআই ফরমুলেশন, আরডি ফুড এবং ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই কমেছে ১৩৫ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৭ কোটি ৭৭ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ২৮৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৫৪টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ২০৮টির এবং ২৬টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।


আরও খবর



বিকেএসপিতে টস জিতে ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা, বৃষ্টিতে বন্ধ খেলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৪৫জন দেখেছেন
Image

১৫ মে শুরু হবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। তার আগে দুইদিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। বিকেএসপির তিন নম্বর গ্রাউন্ডে বিসিবি একাদশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে নেমেছে দিমুথ করুনারত্নের দল।

সকালে শুরু হওয়া এই ম্যাচে টস করতে নেমে কয়েন নিক্ষেপে জয় পেয়েছেন লঙ্কান অধিনায়ক করুনারত্নে। টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে লঙ্কান অধিনায়ক।

তবে সকালে ম্যাচ শুরু হলেও খুব বেশিদুর এগুতে পারেনি। বৃষ্টির কারণে বন্ধ হয়ে রয়েছে। ৮.৩ ওভার খেলা হওয়ার পরই বৃষ্টি হানা দেয়। এরপরই বন্ধ হয়ে যায় ম্যাচ। সে পর্যন্ত ১ উইকেট হারিয়ে ১৪ রান করেছে শ্রীলঙ্কা। আশিথা ফার্নান্দো ৭ রানে এবং কুশল মেন্ডিস ৫রানে ব্যাট করছেন।

২ রান নিয়ে আউট হয়েছেন দিমুথ করুনারত্নে। মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধর বলে উইকেটের পেছনে বিজয়ের হাতে ক্যাচ দেন তিনি।

শ্রীলঙ্কা দল

আশিথা ফার্নান্দো, দিমুথ করুনারত্নে, কুশল মেন্ডিস, নিরোশান ডিকভেলা (উইকেটরক্ষক), চামিকা করুনারত্নে, দিনেশ চান্ডিমাল, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, রমেশ মেন্ডিস, প্রাভিন জয়াবিক্রমা, কামিল মিশ্র, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ, লাসিথ এম্বুলদেনিয়া, বিশ্ব ফার্নান্দো, কাসুন রাজিথা।

বিসিবি একাদশ

মোহাম্মদ মিঠুন (অধিনায়ক), সাদমান ইসলাম, এনামুল হক বিজয়, শাহাদাত হোসেন দিপু, জাকির হাসান, সাইফ হাসান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, রিশাদ হোসেন, মোহাম্মদ এনামুল হক, মুশফিক হাসান, রিপন মণ্ডল, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, অমিত হাসান ও আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী।


আরও খবর