Logo
শিরোনাম

জলে-স্থলে চলবে বাবা-ছেলের তৈরি গাড়ি

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১১৪জন দেখেছেন
Image

২০২০-২০২১ সালের বেশিরভাগ সময় আমাদের কেটেছে লকডাউনে ঘরে বসে। এই সময়টাতে সবাই ঘরে থেকে বিরক্ত হয়েছেন। তবে কেউ কেউ এই অফুরন্ত অবসরকে কাজে লাগিয়েছেন বিভিন্নভাবে। যুক্তরাজ্যেরের বাসিন্দা এক বাবা তার ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে তৈরি করে ফেলেছেন এক আজব গাড়ি।

যেটি একই সঙ্গে চলবে ডাঙায়, আবার জলেও। অর্থাৎ পিচঢালা রাস্তায় দ্রুত গতিতে ছোটানোর পাশাপাশি এই গাড়ি নিয়ে আপনি যে কোনো সময় জল সফরেও যেতে পারবেন। এক বাবা-ছেলের জুটি একটি ফোর্ড ফিয়েস্টা গাড়ির খোলনলচে বদলে এমনটাই রূপ দিয়েছেন।

সম্প্রতি ইউটিউবে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। সেখানে দেখা যায়, একটি সেভেন্থ জেনারেশন ফোর্ড ফিয়েস্টা গাড়িকে একদম নতুন লুক দেওয়া হয়েছে। উভচর প্রাণী অর্থাৎ যারা জলে, স্থলে দু’জায়গাতেই বাস করতে পারে, তাদের মতোই এই গাড়িও জল-স্থল, দু’জায়গাতেই চলতে পারে। একটি নৌকার বিভিন্ন ফিচারও এখন রয়েছে ওই ফোর্ড ফিয়েস্টা গাড়ির মডেলে। এই গাড়ি তৈরি হয়েছে ইউনাইটেড কিংডমে।

গাড়ির উপরের অংশে ডিজাইন একই রকম রয়েছে। সেভেন্থ জেনারেশন ফোর্ড ফিয়েস্টা দেখতে যেমন হয়, গাড়ির উপরের অংশ সেই রকমই দেখতে। তবে বড়সড় পরিবর্তন হয়েছে গাড়ির নিচের ভাগে। গাড়ির নিচের অংশ দেখতে অনেকটা নৌকার মতো। ফাইবার গ্লাস দিয়ে তৈরি হয়েছে এই নৌকার মতো অংশটুকু। আর টায়ার নির্মাণ করা হয়েছে স্টক ফিয়েস্টা অ্যালয় দিয়ে।

জলে-স্থলে চলবে বাবা-ছেলের তৈরি গাড়ি

শুধু গাড়ির ডিজাইনে নয়, প্রযুক্তিগতভাবেও কিছু নতুন ফিচার যুক্ত হয়েছে এই গাড়িতে। গাড়ির পিছনের সিটের পিছনের অংশে রাখা গিয়েছে ইঞ্জিন। আগের থেকে পরিবর্তন হয়েছে ইঞ্জিনের জায়গার। আর এগজস্ট অর্থাৎ ধোঁয়া বেরনোর অংশটি উপরের দিকে তুলে আনা হয়েছে।

হুইলবেসের আয়তন বাড়ানো হয়েছে এবং মাঝে একটা ইঞ্জিন বসানো হয়েছে। খুলে নেওয়া হয়েছে গাড়ির ছাদ। ফলে আপনি রাস্তায় থাকুন কিংবা পানিতে, এই গাড়িতে বসলেই খোলা আকাশ দেখতে পাবেন। সেই সঙ্গে পাবেন অফুরন্ত বাতাস।

জলে-স্থলে চলবে বাবা-ছেলের তৈরি গাড়ি

পানির মধ্যে চলার জন্য এই আধুনিক গাড়িতে রয়েছে প্রপেলার। একটি ট্রান্সফার কেসের সাহায্যে এই প্রপেলারের মধ্যে শক্তি সঞ্চালিত হয়। প্রপেলার নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য রয়েছে প্যাডেল। এছাড়াও স্টিয়ারিং হুইল অনুযায়ী ডানদিক এবং বাম দিকে ঘোরানো হবে রাডার্স। পানিতে এই গাড়ির সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ১৩ কিলোমিটার।

এই আজব গাড়ির ভিডিও রাতারাতি ভাইরাল হয়ে যায় ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। প্রশংসায় ভাসছেন বাবা-ছেলে জুটি। অনেকেই তাদের পুরনো গাড়ি এভাবে পরিবর্তন করার জন্য অনুরোধও জানিয়েছেন তাদের।

সূত্র: এফজিএন


আরও খবর



‘আমি থাকা না থাকায় কিছু আসে যায় না, জয়-শরিফুল কিংবদন্তি হবে’

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের অনেক তরুণ ক্রিকেটার তুলে আনার অন্যতম কারিগর তিনি। ২০২০ সালে তার কোচিংয়েই যুব বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। সেই নাভিদ নেওয়াজ এখন শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের সহকারী কোচ। ‘শত্রু’ হয়ে এসেছেন বাংলাদেশ সফরে।

তবে মাঠে যতই শত্রুতা থাকুক, এ দেশের ক্রিকেট নাভিদ নেওয়াজের অবদান মনে রেখেছে। তাই এখানে কাজ করার প্রসঙ্গটা এলোই। তার হাত ধরে উঠে আসা শরিফুল ইসলাম, মাহমুদুল হাসান জয়রা জাতীয় দলে প্রতিনিধিত্ব করছেন। অনুভূতিটা কেমন, গণমাধ্যমকর্মীরা জানতে চাইলেন সে ব্যাপারে।

জবাবে শরিফুল আর জয়কে আগামীর কিংবদন্তি আখ্যা দিলেন নাভিদ। তিনি বলেন, ‘যে কোনো পরিস্থিতি সামলানোর জন্য তাদের স্কিল যথেষ্ট আছে। আমি থাকা বা না থাকায় কিছু যায় আসে না। তারা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাফল্য পেয়েছে। ভবিষ্যতেও বিভিন্ন দেশে গিয়ে মানিয়ে নিতে হবে তাদের। আশা করি, তারা একদিন বাংলাদেশ ক্রিকেটের কিংবদন্তি হবে।’

নিজের দেশে কোচিং করাতে পারছেন, এটাও ভালো লাগার নাভিদের জন্য। তবে বাংলাদেশকে ভোলেননি। ৪টি বছর বাংলাদেশে কাটিয়ে যাওয়া সময়টা উপভোগ্য ছিল, জানালেন লঙ্কান কোচ।

তার ভাষায়, ‘আমার দেশে ফিরতে পারাটা ভালো ব্যাপার। বাংলাদেশে কাটানো ৪ বছর আমি দারুণ উপভোগ করেছি। আমার মনে হয় বাংলাদেশকে কিছু একটা দেওয়ার মতো আমার সামর্থ্য ছিল, ৪ বছর এখানে কাটানো সময়টাকে ন্যায়সঙ্গত করার জন্য। আর আবারও নিজের ঘরে ফিরতে পেরে আমি খুশি।’


আরও খবর



উন্নয়ন বাজেটে বৈদেশিক ঋণ ৯৩ হাজার কোটি টাকা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৩জন দেখেছেন
Image

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি) সভায় ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার ২ লাখ ৪৬ হাজার কোটি টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে অভ্যন্তরীণ উৎসব হতে মেটানো হবে ১ লাখ ৫৩ হাজার ৯ লাখ টাকা। বাকি ৯৩ হাজার কোটি টাকা মেটানো হবে বৈদেশিক উৎস বা ঋণ হতে। স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান বা করপোরেশনের ৯ হাজার ৯৩৭ কোটি ১৮ লাখ টাকার এডিপিও অনুমোদিত হয়েছে। যার মধ্যে জিওবি অর্থায়ন ৭ হাজার ১০৪ কোটি এবং বৈদেশিক ঋণ ২ লাখ ৫৬ হাজার কোটি।

স্বায়ত্তশাসিত বা করপোরেশনের প্রকল্পসহ এডিপির সর্বমোট আকার দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৩ কোটি টাকা । ২০২২-২৩ অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় মোট প্রকল্প ১ হাজার ৪৩৫টি। এর মধ্যে বিনিয়োগ প্রকল্প ১ হাজার ২৪৪টি, কারিগরি সহায়তা প্রকল্প ১০৬টি এবং স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা/করপোরেশনের নিজস্ব অর্থায়নে ৮৫টি প্রকল্প।

মঙ্গলবার (১৭ মে) শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী ও এনইসির চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনের সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে ভিডিও কনফারেন্সিং-এর মাধ্যমে শেরেবাংলা নগরস্থ এনইসি সম্মেলন কক্ষ ও সচিবালয়স্থ মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়।

খাতভিত্তিক সর্বোচ্চ বরাদ (১০টি) : পরিবহন ও যোগাযোগ খাতে সর্বোচ্চ ৭০ হাজার ৬৯৬ কোটি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ৩৯ হাজার ৪১২, শিক্ষায় ২৯ হাজার ৮১ কোটি, গৃহায়ণ ও কমিউনিটি সুবিধাবলী খাতে ২৪ হাজার ৪৯৭ টাকা অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য খাতে ১৯ হাজার ২৭৮, স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়নে ১৬ হাজার ৪৬৫, কৃষি খাতে ১০ হাজার ১৪৪, পরিবেশ, জলবায়ু, পরিবর্তন এবং পানি সম্পদ খাতে ৯ হাজার ৮৯৫, শিল্প ও অর্থনৈতিক সেবায় ৫ হাজার ৪০৭ এবং বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি খাতে ৪ হাজার ১৬৮ কোটি টাকা অনুমোদন দেয়া হয়।

মন্ত্রণালয়/বিভাগভিত্তিক সর্বোচ্চ বরাদ্দ পাওয়া ১০টি খাত: স্থানীয় সরকার বিভাগে সর্বোচ্চ ৩৫ হাজার ৮৪২ কোটি টাকা অনুমোদন দেয়া হয়। এরপরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বরাদ্দ সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে ৩১ হাজার ২৯৬ কোটি টাকা।

এছাড়া বিদ্যুৎ বিভাগে ২৪ হাজার ১৩৯ কোটি টাকা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে প্রায় ১৬ হাজার ১১ কোটি টাকা, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগে প্রায় ১৫ হাজার ৮৫১ কোটি টাকা, রেলপথ মন্ত্রণালয়ে প্রায় ১৪ হাজার ১২৯ কোটি টাকা, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগে প্রায় ১৪ হাজার ১ কোটি টাকা, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রায় ১১ হাজার ৬৪২ কোটি টাকা, সেতু বিভাগে ৯ হাজার ২৯০ টাকা, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ে প্রায় ৭ হাজার ৯৩৮ কোটি টাকা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



মুদ্রার বিনিময় হার: ১০ মে ২০২২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের এক কোটিরও বেশি মানুষ পাড়ি জমিয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। প্রবাসীদের পাঠানো কষ্টার্জিত অর্থে সচল রয়েছে দেশের অর্থনীতির চাকা। প্রবাসীদের লেনদেনের সুবিধার্থে ১০ মে ২০২২ মুদ্রার বিনিময় হার তুলে ধরা হলো।

মুদ্রা

ক্রয় (টাকা)

বিক্রয় (টাকা)

ইউএস ডলার

৮৫.৭৫

৮৬.৭৫

পাউন্ড

১১০.৭১

১১৮.৭০

ইউরো

৯৪.৫২

১০১.৫৩

জাপানী ইয়েন

০.৬৯

০.৭৪

অস্ট্রেলিয়ান ডলার

৫৯.৭২

৬১.৪৪

হংকং ডলার

১০.৯২

১১.০৫

সিঙ্গাপুর ডলার

৬৭.১৮

৬৯.১৬

কানাডিয়ান ডলার

৬৫.৯৯

৬৬.৭৪

ইন্ডিয়ান রুপী

১.০৮

১.১২

সৌদি রিয়েল

২২.৮১

২৩.১৩

মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত

১৯.৫৫

১৯.৮৩


আরও খবর



তামিমের ফিফটি, ৬২ মাসের অপেক্ষা ফুরোলো বাংলাদেশের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

অবশেষে উদ্বোধনী জুটিতে শতরানের দেখা পেলো বাংলাদেশ দল। দীর্ঘ পাঁচ বছর বা ৬২ মাস পর প্রথম উইকেটে ১০০ রানের জুটি গড়লেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টে এরই মধ্যে ১০৯ রান যোগ করে ফেলেছেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয়।

নিজ শহরের মাঠে ক্যারিয়ারের ৩২তম ফিফটি তুলে নিয়েছেন তামিম। জয়ও এগোচ্ছেন ফিফটির দিকে। সবশেষে ২০১৭ সালের মার্চে শ্রীলঙ্কা সফরের গল টেস্টে শতরানের জুটি পেয়েছিল বাংলাদেশ। সে ম্যাচে তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার গড়েছিলেন ১১৮ রানের জুটি।

সেই ম্যাচের পর গত ৬২ ম্যাচে ৩১টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। কিন্তু কখনও শতরানের উদ্বোধনী জুটির দেখা পেলেনি। অবশেষে অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে তামিম-জয় এনে দিলেন উদ্বোধনী জুটিতে শতরান। দুজনই খেলছেন সাবলীলভাবে। দুজনের সামনেই বড় ইনিংস খেলার সম্ভাবনা।

বিস্তারিত আসছে...


আরও খবর



মহাসড়কে পড়েছিলেন আহত যুবক, হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ডের মাদামবিবির হাট এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক যুবকের (৩৮) মৃত্যু হয়েছে। নিহত যুবকের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) রাত ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় ওই যুবক গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাকে উদ্ধার করে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সীতাকুণ্ড ফায়ার স্টেশনের স্টেশন অফিসার নুরুল আলম দুলাল জাগো নিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে মাদাম বিবিরহাট এলাকায় গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর আহত হয়ে সড়কে পড়েছিলেন ওই যুবক। খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে আমরা সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করাই।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির তদারককারী কর্মকর্তা পাঁচলাইশ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাদিকুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ওই যুবককে চমেক হাসপাতালে আনা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, পথিমধ্যেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত যুবকের পরিচয় জানা যায়নি। মরদেহ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে বলেও জানান সাদিকুর রহমান।


আরও খবর