Logo
শিরোনাম

কলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গে বৃষ্টি শুরু

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
Image

শুরু হয়েছে বর্ষাকাল। কলকাতায় এখনো ভারি বৃষ্টি হয়নি। তবে গতকাল ও আজ সকালে কলকাতাসহ দুই উত্তর ২৪ পরগনায় কিছুটা বৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়া রাজ্যের দক্ষিণাঞ্চলেও বৃষ্টি শুরু হয়েছে। দুই ২৪ পরগনার পাশাপাশি, হাওড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, কলকাতা, হুগলি, নদীয়া, দুই বর্ধমান ও বীরভূমেও বৃষ্টি হয়েছে।

আগামী দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে রাজ্যের সব জায়গায়তেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এখন সব জায়গায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

বেশি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর ও দুই ২৪ পরগনাতে। কাল একটু বেশি বৃষ্টি হতে পারে মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, মালদা ও দুই দিনাজপুরে। তাপমাত্রা অনেকটাই কমেছে ও এই তাপমাত্রাটা বজায় থাকবে। ভারি বৃষ্টি হতে পারে উত্তরাঞ্চলে। তাছাড়া কুচবিহার, আলিপুরদুয়ারে, দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়িতেও ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে ১০ দিনের লাগাতার বৃষ্টিতে ভয়ানক রূপ নিয়েছে কোচবিহারে তোরসা। এর পাশাপাশি সর্তকতা জারি করা হয়েছে কোচবিহারের চারটি নদী রায়ডাক, কালজানি১, তোরসা ও মানসাই নদীতে।

গতকালের যে পরিস্থিতি ছিল তার থেকে অনেকটাই ভিন্ন পরিস্থিতি কোচবিহারে তোরসা নদীতে। যত বেলা বাড়ছে পানির স্তরও ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাচ্ছে কোচবিহারে তোরসা নদীতে। যদিও কাল রাতে মাঝারি বৃষ্টি লক্ষ করছে কোচবিহারবাসী।


আরও খবর



সীতাকুণ্ড ট্র্যাজেডি: দগ্ধ গাউসুলের স্ত্রী বাকরুদ্ধ

প্রকাশিত:রবিবার ০৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়েছেন দমকলকর্মী গাউসুল আজম (২৩)। তিনি এখন ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন।

একমাত্র ছেলে গাউসুলের অগ্নিদগ্ধের খবর শুনে মা আছিয়া বেগম বুক চাপড়াচ্ছেন আর বিলাপ করছেন। বিলাপ করতে করতে মুর্ছা যাচ্ছেন তিনি। ছয়মাস বয়সী ছেলেকে কোলে নিয়ে নির্বাক বসে আছেন গাউসুলের স্ত্রী কাকলী খাতুন। তিনি শোকে পাথর হয়ে যেন কান্নাও ভুলে গেছেন।

রোববার (৫ জুন) অগ্নিদগ্ধ গাউসুল আজমের গ্রামের বাড়ি যশোরের মণিরামপুরের খাটুয়াডাঙ্গা গ্রামে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

ওই গ্রামের আজগার আলীর একমাত্র ছেলে গাউসুল আজম ফায়ারম্যান হিসেবে ২০১৮ সালে চাকরিতে যোগ দেন। বর্তমানে তার কর্মস্থল বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ থানায়। তবে ছয়মাসের ডেপুটেশনে কর্মরত ছিলেন চট্টগ্রামের কুমিরা ফায়ার স্টেশনে।

যখন চিকিৎসকরা অগ্নিদগ্ধ গাউসুল আজমকে নিয়ে ব্যস্ত তখনো বাবা আজগার আলীসহ তার পরিবার জানতেন না ছেলের দুঃসংবাদের কথা। রোববার ঘড়ির কাঁটায় যখন সকাল সাড়ে ৭টা তখন ঘরে মোবাইলে রিংটোন বাজে। আজগার আলী ফোনটি রিসিভ করতেই চট্টগ্রামের কুমিরা ফায়ার সার্ভিস কার্যালয় থেকে জানানো হয়, ছেলে গাউসুল অগ্নিদগ্ধ হয়ে শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের বেডে। মুহূর্তেই পরিবারের সদস্যরা বজ্রাহতের মতো স্তব্ধ হয়ে যান।

শনিবার রাতে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলে পেশাগত দায়িত্ব পালনে সেখানে ছুটে যান গাউসুলসহ তার সহকর্মীরা। সেখানে আগুন নেভাতে গিয়ে বিস্ফোরণে গাউসুলদের গাড়িতেই আগুন ধরে যায়। এতে তার সহকর্মীরা মারা গেলেও গাউসুল এখনো প্রাণে বেঁচে আছেন। রাতেই তাকে ঢাকায় আনা হয়।

প্রতিবেশী জাহাঙ্গীর আলম জানান, গাউসুল আজমের শরীরের বিভিন্ন অংশ মারাত্মকভাবে পুড়ে গেছে। সকালে খবর পেয়ে বাবা আজগার আলী, চাচা আকবার আলী, একমাত্র ভগ্নিপতি মিজানুর রহমানসহ আত্মীয়-স্বজনরা ঢাকায় ছুটে গেছেন।

রোববার সন্ধ্যায় গাউসুল আজমের খাটুয়াডাঙ্গা গ্রামের বাড়িতে গেলে চোখে পড়ে কেবল মানুষের ভিড়। গ্রামের নারী-পুরুষ যেন সবাই বাকরুদ্ধ। গাউসুলের মা আছিয়া বেগম কেবল বুক চাপড়াচ্ছেন আর মুর্ছা যাচ্ছেন। বলছেন, ‘আমার বাবাকে আল্লাহ তুমি আমার কাছে সুস্থ করে ফিরিয়ে দাও। তোমার কাছে আমার ছেলের প্রাণ ভিক্ষা চাই।’

গাউসুল আজমের ছয়মাস বয়সী ছেলে সিয়ামকে কোলে নিয়ে নির্বাক তার স্ত্রী কাকলী খাতুন। কোনো কথাই বলতে পারছেন না তিনি।


আরও খবর

ওয়ালটনে চাকরির সুযোগ

সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২




‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে সফলভাবে সম্পৃক্ত হতে চায় বাংলাদেশ’

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে এতে সফলভাবে সম্পৃক্ত হতে সরকারের নানা পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

সোমবার (১৩ জুন) দুপুরে স্যামস্যাং রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টার পরিদর্শনে এসে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা জানান।

রোবোটিক্স, আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স, কোয়ান্টাম মেকানিক্স নিয়ে কাজ করতে হলে প্রথমে কোডিংয়ের ভাষা শিখতে হবে বলে মনে করেন সালমান এফ রহমান। তিনি উল্লেখ করেন, এ জন্য আমরা প্রাইমারি স্কুল পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের কোডিংয়ের ধারণা দেওয়ার উদ্যেগ নিয়েছি যা পরবর্তীতে তাদের দক্ষ প্রোগ্রামার হতে সহায়তা করবে।

প্রধানমন্ত্রীর এই উপদেষ্টা আরও বলেন, তথ্যপ্রযুক্তিতে দেশের নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সরকার বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। আমরা ইতোমধ্যে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বাস্তবায়ন করেছি। আমরা এখন স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। এসব কাজে কোরিয়া সবসময় আমাদের সহযোগিতা করে আসছে।

স্যামস্যাং রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টারে বাংলাদেশের তরুণ প্রকৌশলীরা দক্ষতার সঙ্গে কাজ করছে জেনে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে দক্ষিণ কোরিয়ার সরকার এবং স্যামস্যাংকে ধন্যবাদ জানান সালমান এফ রহমান। সেন্টার কর্তৃপক্ষ জানায়, এই সেন্টারে কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে বিদেশের মাটিতেও সুনামের সঙ্গে কাজ করছেন বাংলাদেশি তরুণ প্রকৌশলীরা। বাংলাদেশে অবস্থিত স্যামস্যাং রিসার্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টারে আরও বেশি বাংলাদেশি তরুণের কাজের সুযোগ সৃষ্টিতে সহায়তার জন্য বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং কিউনের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রীর বিনিয়োগ উপদেষ্টা।

এসময় বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং কিউন বলেন, বিশ্বের ১৪টি দেশের মতো বাংলাদেশেও এই রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টারটি চালু করা হয়েছে স্যামস্যাং গ্রুপের উদ্যোগে এবং দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারের সহায়তায়। এখানে কর্মরত বাংলাদেশি রিসার্চারদের কাজে সেন্টার কর্তৃপক্ষ ও রাষ্ট্রদূত সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। রাষ্ট্রদূত মনে করেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সুসম্পর্কের ধারাবাহিকতায় আরও কোরিয়ান কোম্পানি এদেশে বিনিয়োগে এগিয়ে আসবে এবং সেখানে বাংলাদেশি কর্মীরা কাজের সুযোগ পাবেন।

প্রধানমন্ত্রীর বিনিয়োগ উপদেষ্টা এবং রাষ্ট্রদূত স্যামস্যাং রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টারের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পরিদর্শন করেন এবং গবেষণা কার্যক্রম পযবেক্ষণ করেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের প্রথম সচিব ইয়ংমিন শি, কোরিয়া ট্রেড ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন এজেন্সির মহাপরিচালক ডংহিউন কিম, স্যামস্যাং রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক উনমো কু ও প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টার একান্ত সচিব (যুগ্মসচিব) জাহিদুল ইসলাম ভূঞা।


আরও খবর

ওয়ালটনে চাকরির সুযোগ

সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২




‘পদ্মা সেতুর গর্বিত অংশীদার প্রবাসীরাও’

প্রকাশিত:শনিবার ১১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে সমৃদ্ধ হচ্ছে দেশের অর্থনীতি। বাঙালির জাতির গর্ব বহুদিনের প্রতীক্ষিত পদ্মা সেতু শিগগিরই শুভ উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। সম্পূর্ণ নিজেদের অর্থে এই সেতু নির্মিত হয়েছে। প্রবাসী বাংলাদেশিরা যার গর্বিত অংশীদার।

আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে শুক্রবার (১০ জুন) স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে রাষ্ট্রদূত মো. সরওয়ার মাহমুদের প্রায় ৪ মিনিটের একটি ভিডিও বার্তা পোস্ট করা হয়। সেখানে তিনি প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটি, রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংবাদিক সংগঠনসহ সবার উদ্দেশে এই অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

ভিডিও বার্তায়, রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সরওয়ার মাহমুদ তার ওপর অর্পিত দায়িত্বগুলো যথাযথভাবে পালনের জন্য তার পুরো টিম সচেষ্ট রয়েছে উল্লেখ করে বলেন, ইউরোপ থেকে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স প্রেরণে স্পেন অন্যতম একটি দেশ। ২০২০-২১ অর্থ বছরে ৫৩.৪৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স স্পেন থেকে বাংলাদেশে পাঠানো হয়। এছাড়া সোর্স ক্যান্টি হিসেবে স্পেন ২৩তম স্থান অধিকার করে।

এই অর্থ বছরে (২০২১-২২ মে) পর্যন্ত প্রবাসী আয় প্রেরণের পরিমাণ ৫৭.৫৭ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় স্পেন প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স পরিমাণ প্রতি বছর বৃদ্ধি পাচ্ছে। এজন্য তিনি প্রবাসীদের আন্তরিক অভিনন্দন জানান।

বৈধভাবে দেশে রেমিট্যান্স পাঠানো দেশের অব্যাহত অগ্রযাত্রায় অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশ সরকার রেমিট্যান্স পাঠানো আর্থিক প্রণোদনার কথা উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশে প্রেরিত রেমিট্যান্সের ওপরে ২.৫ শতাংশ প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে।

যা ব্যাংকিং চ্যানেলে বৈধভাবে পাঠানো প্রণোদনা প্রযোজ্য হবে। তিনি প্রবাসীদের বাংলাদেশে ব্যাংকিং চ্যানেলে বৈধভাবে পাঠিয়ে ২.৫ শতাংশ প্রণোদনা গ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানান। বাংলাদেশে বৈধভাবে রেমিট্যান্স পাঠানো যেকোনো সমস্যায় দূতাবাস থেকে অব্যাহতভাবে সহযোগিতারও প্রতিশ্রুতি দেন।

স্পেন প্রবাসী বাংলাদেশিদের রেমিট্যান্স দিতে উৎসাহের জন্য তিনি দূতাবাসের শ্রম কল্যাণ ইউংয়ের সহযোগিতায় পুরস্কার ঘোষণা করেন। গত জুলাই ২০২১ থেকে জুন ২০২২ পর্যন্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বাংলাদেশে সর্বাধিক রেমিট্যান্স পাঠানো ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে এ বছর এই পুরস্কার দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ দূতাবাস স্পেন সর্বদা প্রবাসীদের সেবাদানে অঙ্গীকারবদ্ধ উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, স্পেনে প্রায় ৫০ হাজার বাংলাদেশি রয়েছেন। তাদের সেবায় এরই মধ্যে আমরা দূতাবাসের কনস্যুলার সেবাকে সহজতর করেছি। সচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করে কার্ড ও ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে কনস্যুলার ফ্রি সরাসরি দূতাবাসের অ্যাকাউন্টে জমা নেওয়ার ব্যবস্থা নিয়েছি।

তিনি বলেন, বার্সেলোনাসহ অন্যান্য শহরে প্রবাসীদের জন্য কনস্যুলার সেবা দেওয়া হচ্ছে। দূরের প্রবাসীদের জন্য এরই মধ্যে ডাকযোগে সেবা সার্ভিস চালু হয়েছে। যার ফলে দূরে থাকা প্রবাসীরা দূতাবাসে না এসে সেবা নিতে পারছেন।

কনস্যুলার সেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে তিনি উল্লেখ করেন, স্পেনে জন্ম নেওয়া শিশুদের জন্য জন্মনিবন্ধন প্রক্রিয়া অত্যন্ত সহজ করা হয়েছে। যে কেউ অনলাইনে আবেদন করে জন্ম সনদ পেতে পারেন। পাসপোর্ট সংশোধন, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ইত্যাদি প্রক্রিয়া সহজতর করার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি এবং অচিরেই এই প্রক্রিয়াগুলো সহজতর হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।


আরও খবর



ছাগল চুরির মামলায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ জুলাই ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
Image

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরবাদাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাখাওয়াত হোসেন জসিমসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে ছাগল চুরির অভিযোগে করা মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

সোমবার (৬ জুন) দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রামগতি আমলী অঞ্চলের বিচারক নুসরাত জামান এ আদেশ জারি করেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী মো. সোলায়মান মোল্লা গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ছাগল চুরির মামলা আমলে নিয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশকে (ডিবি) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী আদালত অভিযুক্তকে গ্রেফতারের নির্দেশনা দিয়েছেন। শিগগির গ্রেফতারি পরোয়ানার আদেশের কপি রামগতি থানায় পাঠানো হবে।

তবে রাত ৯টা পর্যন্ত গ্রেফতারি পরোয়ানার আদেশ পৌঁছায়নি বলে জানিয়েছেন রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন।

সূত্র জানায়, গত ২৭ জানুয়ারি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রামগতি আমলী আদালতে জুলফিকার আলী চৌধুরী এ মামলা করেন। এতে চেয়ারম্যান জসিম ও তার ছেলে ইফতেখার হোসাইন শাওনসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়। মামলায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মাছ এবং মাছের খাদ্য লুটেরও অভিযোগ আনা হয়েছে।

অন্য আসামিরা হলেন- ফরহাদ হোসেন সুমন, নুরুল আমিন ও খুরশিদ আলম। তারা চরবাদাম ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব চরসীতা গ্রামের বাসিন্দা।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, রামগতি উপজেলার চরবাদাম ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বড়বাড়ির সামনে জুলফিকার আলী চৌধুরীর সমন্বিত খামার আছে। গত ২৬ জানুয়ারি ভোররাতে সেখানে ঢুকে দুটি ছাগল চুরি করে জবাই করেন অভিযুক্তরা। এছাড়া ওই প্রজেক্টে থাকা মাছের খাদ্য এবং একটি পাম্প চুরি করা হয়। ওইদিন সকালে প্রজেক্টে গিয়ে মামলার বাদী বিষয়টি জানতে পারেন এবং ঘটনাস্থলে ছাগল জবাই করার রক্তের দাগ দেখতে পান।

জুলফিকার আলী চৌধুরী বলেন, জসিমের সঙ্গে আমার জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। এজন্যই আমার ছেলের জন্মনিবন্ধনে সই করছে না চেয়ারম্যান জসিম। সে লোক দিয়ে আমার প্রজেক্টের পুকুর থেকে ২০ হাজার টাকার মাছ লুট করেছে। ছাগল চুরি করে খেয়েছে। আমার শ্বশুরের ১৭টি মহিষ জিম্মায় রাখার নামে বিক্রি করে ফেলেছে চেয়ারম্যান।

তবে ইউপি চেয়ারম্যান শাখাওয়াত হোসেন জসিম দাবি করেন, তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। সাজানো ঘটনায় তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। চুরির ঘটনায় তিনি কিংবা তার কোনো লোক সম্পৃক্ত নয়।


আরও খবর

ওয়ালটনে চাকরির সুযোগ

সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২




বন্যা প্রাদুর্ভাব চলে গেলেই শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | ২৫জন দেখেছেন
Image

বন্যার প্রাদুর্ভাব চলে গেলেই শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শনিবার (২৫ জুন) সন্ধ্যায় চাঁদপুর প্রেস ক্লাব আয়োজিত ফল উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘বন্যা প্রাদুর্ভাব চলে গেলেই কোনো পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ নিয়ে বাধা থাকবে না। তখন শিক্ষার্থীরা অনায়াসে পরীক্ষা দিতে পারবে, তখনই পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বিভিন্ন প্রকার দেশীয় ফলের সঙ্গে পরিচিত করতে চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে ফল উৎসবের আয়োজন করা হয়।

jagonews24

মন্ত্রী বলেন, নতুন প্রজন্মের কথা চিন্তা করে চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের এমন উদ্যোগকে আমি স্বাগতম জানাই। দেশীয় এমন অনেক ফল রয়েছে যা আমরা চিনলেও আমাদের সন্তানদের চিনতে কষ্ট হয়। তাই ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা চিন্তা করে প্রেস ক্লাবের এ ফল উৎসব প্রশংসার দাবি রাখে।

চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ ফেরদৌসের পরিচালনায় প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মশিউর রহমান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জেআর ওয়াদুদ টিপু, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল ও চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অশিত বরণ দাশ।


আরও খবর

ওয়ালটনে চাকরির সুযোগ

সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২