Logo
শিরোনাম

করোনামুক্ত মির্জা ফখরুলের স্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
Image

করোনামুক্ত হয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের স্ত্রী রাহাত আরা বেগম।

বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, আজকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এবং তার স্ত্রীর করোনা নমুনা পরীক্ষা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা পরীক্ষায় মির্জা ফখরুল পজিটিভ এবং তার স্ত্রীর রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

তবে মির্জা ফখরুলের করোনার যে উপসর্গগুলো রয়েছে সেগুলো তেমন জটিল নয় বলে জানান শায়রুল।


আরও খবর



সোনাগাজীতে নতুন উদ্ভাবিত পাঁচ জাতের ধান চাষে সফলতা

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট ফেনীর সোনাগাজী আঞ্চলিক কার্যালয়ের কৃষি বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবিত পাঁচটি উচ্চ ফলনশীল জাতের ধানের ভালো ফলন হয়েছে।

২০২২ সালে আউশ মৌসুমের জন্য ব্রি৪৮, ব্রি৮২, ব্রি৮৩, ব্রি৮৫, ও ব্রি৯৮ সহ পাঁচ জাতের উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান উদ্ভাবন করেন বিজ্ঞানীরা। এসব জাতের ধান কম খরচে উপজেলার দুটি ইউনিয়নের প্রায় ৪০ হেক্টর জমিতে পরীক্ষামূলক চাষ করে সফলতা পাওয়া গেছে।

এসব ধান কাটার উদ্দেশ্যে শনিবার (১৩ আগস্ট) সকালে সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের চরশাহাপুরে শস্য কর্তন ও মাঠ দিবসের আয়োজন করে ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট।

ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট সোনাগাজী আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. বিশ্বজিৎ কর্মকারের সভাপতিত্বে ও জ্যৈষ্ঠ বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা নাঈম আহমদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবীর।

আরও উপস্থিত ছিলেন- জ্যৈষ্ঠ বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো. আদিল, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আসিব বিশ্বাস, আরিফুল ইসলাম খলিদ, কৃষি উপসহকারী কর্মকর্তা মাহমুদ আলম, স্থানীয় কৃষক মো. কামাল উদ্দিন ও শেখ বাহার প্রমুখ।

ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. শাহজাহান কবীর বলেন, টেকসই ধান প্রযুক্তি উদ্ভাবনে বিজ্ঞানীরা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশে তথা সোনাগাজীতে উদ্ভাবিত উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান চাষে তৃণমূল কৃষকদের আগ্রহ থাকতে হবে। এরই মধ্যে আউশ মৌসুমে যেসব ধান উদ্ভাবিত হয়েছে সেসব ধান স্বল্প সময়ে স্বল্প খরচে কৃষকরা ঘরে তুলতে পারবেন। মাত্র ১১০দিনে এ ধানগুলো কৃষকরা ঘরে তুলতে পারবেন। ধানগুলো অধিক পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ ও পরিবেশ বান্ধব।
তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পন্ন দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে হলে এসব জাতের ধান চাষের বিকল্প নাই। নতুন উদ্ভাবিত ধানগুলোতে সারও কম লাগে পোকা মাকড়ও কম ধরে।


আরও খবর



দেশে খাদ্য সংকট হবে না, শ্রীলঙ্কার মতোও হবে না: কৃষিমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
Image

কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, বিএনপিসহ সরকার বিরোধীরা দিবাস্বপ্ন দেখছে দেশে খাদ্য সংকট হবে। দেশের অর্থনীতি ভেঙে পড়বে, দেশ শ্রীলঙ্কার মতো হয়ে যাবে। কিন্তু তাদের সে স্বপ্ন পূরণ হবে না। দেশে খাদ্য সংকট হবে না, আর দেশ শ্রীলঙ্কার মতোও হবে না।

রোববার (২৪ জুলাই) বিকেলে রাজধানীর খামারবাড়িতে বিএআরসি মিলনায়তনে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে মন্ত্রী একথা বলেন। বাংলাদেশ সীড অ্যাসোসিয়েশন (বিএসএ) এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি অতীতে জ্বালাও পোড়াও করে আন্দোলন করেছে, মানুষ হত্যা করেছে, পাওয়ার প্লান্টে আগুন দিয়েছে, রেললাইন তুলে নিছে, জানমালের ক্ষতি করেছে সেরকম আন্দোলন আর এদেশে হবে না। বর্তমান সরকার নির্বাচিত সরকার, বৈধ সরকার। মানুষের জান মালের নিরাপত্তা দেওয়া আমাদের দায়িত্ব।

মন্ত্রী বলেন, আমরা চালের উৎপাদন বৃদ্ধির উপর গুরুত্বারোপ করছি। সেজন্য, ব্রি ২৮সহ পুরনো জাতের ধানের পরিবর্তে নতুন উদ্ভাবিত বেশি উৎপাদনশীল জাত চাষ করতে হবে। ব্রি নতুন নতুন জাত নিয়ে এসেছে। ব্রিধান ৮৯, ৯২, ১০০সহ নতুন জাতগুলো বিঘাতে ৩০ মণের বেশি হয়। বিঘাতে ২০ মণের জায়গায় যদি ৩০ মণ হয় এটি বিরাট বিপ্লব। এ বিষয়ে সবার একত্রে কাজ করতে হবে। যাতে কৃষকের কাছে দ্রুত জাতগুলো পৌছায়।

সীড কোম্পানির উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, সীড কোম্পানিগুলোকে আধুনিক হতে হবে। এখনো কিছু কিছু কোম্পানির প্রতারণার প্রবণতা আছে সেখানে মানুষকে বিশ্বাসের জায়গায় নিয়ে আসতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষিসচিব মো. সায়েদুল ইসলাম বলেন, অনেক সময় কৃষকরা নিম্নমানের বীজ কিনে প্রতারিত হয়। এতে একদিকে কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হয়, অন্যদিকে উৎপাদন ব্যাহত হয়। এ বিষয়ে বীজ অ্যাসোসিয়েশনকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে।

বিএসএর সভাপতি এম আনিস উদ দৌলার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল্লাহ সাজ্জাদ, বিএআরসির নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ মো. বখতিয়ার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বেনজীর আলম বক্তব্য রাখেন।


আরও খবর



বোয়ালখালীতে ৪ বেকারিকে জরিমানা, একটি সিলগালা

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২ | ১৪জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাবার তৈরি, খাদ্য পণ্যের মোড়কে উৎপাদন ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ না থাকায় চারটি বেকারিকে জরিমানা এবং বিসমিল্লাহ বেকারি নামে একটিকে সিলগালা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

শনিবার (৩০ জুলাই) দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মামুন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ জরিমানা করেন।

তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় পশ্চিম গোমদণ্ডী রায়খালীর বিসমিল্লাহ বেকারির উৎপাদন বন্ধ করে সিলগালা করা হয়েছে। একই সঙ্গে ওই এলাকার ঢাকা বেকারিকে পাঁচ হাজার টাকা, জমাদার হাটের শাহ্ আমানত বেকারিকে পাঁচ হাজার টাকা, মৌসুমি খামারের উৎসব বেকারিকে ১০ হাজার টাকা ও আমতলের দরবার বেকারিকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নোংরা পরিবেশে খাদ্য সামগ্রী তৈরি করার বিষয়ে সর্তক করা হয়েছে।

স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশে খাবার উৎপাদনের জন্য প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানকে এক সপ্তাহের সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে বলে জানান ইউএনও।


আরও খবর



৫ বছরের বেশি বয়সীদের ৫৫.৮৯ শতাংশের হাতে মোবাইল ফোন

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ১৮জন দেখেছেন
Image

দেশের জনগোষ্ঠীর পাঁচ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সীদের মধ্যে মোবাইল ফোন আছে ৫৫ দশমিক ৮৯ শতাংশের। এই বয়সী পুরুষদের মধ্যে মোবাইল ফোন আছে ৬৬ দশমিক ৫৩ শতাংশের, আর নারীদের মধ্যে আছে ৪৫ দশমিক ৫৩ শতাংশের হাতে। সম্প্রতি পরিচালিত জনশুমারি ও গৃহগণনায় এ চিত্র উঠে এসেছে।

বুধবার (২৭ জুলাই) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) প্রথম ডিজিটাল ‘জনশুমারি ও গৃহগণনা ২০২২’-এর প্রাথমিক প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। সারাদেশে গত ১৫ জুন একযোগে শুরু হয় জনশুমারি ও গৃহগণনা কার্যক্রম। গত ২১ জুন জনশুমারি শেষ হওয়ার কথা থাকলেও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জেলায় বন্যা শুরু হওয়ায় এসব জেলায় শুমারি কার্যক্রম ২৮ জুন পর্যন্ত চলে।

বিবিএসের প্রতিবেদনে দেখা যায়, দেশের জনসংখ্যা এখন ১৬ কোটি ৫১ লাখ ৫৮ হাজার ৬১৬ জন। এর মধ্যে পুরুষের সংখ্যা আট কোটি ১৭ লাখ ১২ হাজার ৮২৪ জন, নারীর সংখ্যা আট কোটি ৩৩ লাখ ৪৭ হাজার ২০৬ জন। এছাড়াও তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠী ১২ হাজার ৬২৯ জন।

প্রতিবেদনে দেখা যায়, ৮ বিভাগের মধ্যে পাঁচ বছর ও তদূর্ধ্ব, ১৮ বছর ও তদূর্ধ্ব- এই দুই ক্যাটাগরিতে সর্বোচ্চ মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী ঢাকা বিভাগে। ওই দুই ক্যাটাগরিতে সর্বনিম্ন মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী সিলেট বিভাগে। ঢাকার পাঁচ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে ৬২ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশের মোবাইল ফোন রয়েছে। আর এই বিভাগে ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে ৮৯ দশমিক ২৬ শতাংশেরই মোবাইল ফোন আছে। অন্যদিকে সিলেট বিভাগে পাঁচ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে ৪৭ দশমিক ৫৫ শতাংশের মোবাইল ফোন রয়েছে, আর ১৮ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে ৮২ দশমিক ৯৬ শতাংশের মোবাইল ফোন আছে।

ইন্টারনেট ব্যবহারের হিসাবে দেখা গেছে, দেশের জনগোষ্ঠীর পাঁচ বছরের বেশি বয়সীদের মধ্যে ৩০ দশমিক ৬৮ শতাংশই ইন্টারনেট ব্যবহার করেন।

১৮ বছর ও তদূর্ধ্ব বয়সী অর্থাৎ প্রাপ্ত বয়স্কদের ৭২ দশমিক ৩১ শতাংশই মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন। প্রাপ্ত বয়স্ক পুরুষদের মধ্যে মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন ৮৬ দশমিক ৭২ শতাংশ। প্রাপ্ত বয়স্ক নারীদের মধ্যে মোবাইল ফোন ব্যবহার করেন ৫৮ দশমিক ৮৩ শতাংশ। প্রাপ্ত বয়স্কদের মধ্যে ৩৭ দশমিক শূন্য ১ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। এই বয়সী ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর মধ্যে ৪৬ দশমিক ৫৩ শতাংশ পুরুষ এবং ২৮ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ নারী।


আরও খবর



সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সংকেত বহাল, উপকূলে হতে পারে জলোচ্ছ্বাস

প্রকাশিত:বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ১১জন দেখেছেন
Image

স্থল নিম্নচাপটি ইতোমধ্যে ভারতীয় ভূখণ্ডে সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। এর প্রভাবে ঝোড়ো হওয়া বয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রেখেছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। একইসঙ্গে উপকূলীয় ১৫ জেলায় স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ২ থেকে ৪ ফুটের বেশি জলোচ্ছ্বাস হতে পারে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি।

বুধবার (১০ আগস্ট) সকালে সর্বশেষ আবহাওয়া পরিস্থিতিতে এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে বলেও জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক জানান, উড়িষ্যা উপকূল ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে বর্তমানে ভারতের ছত্তিশগড় ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় বায়ুচাপের পার্থক্যের আধিক্য বিরাজ করছে। সমুদ্রবন্দরগুলো, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

সর্বশেষ আবহাওয়া পরিস্থিতিতে বলা হয়, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরসমূহকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

সুস্পষ্ট লঘুচাপ ও বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্যের প্রভাবে উপকূলীয় জেলা সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, নোয়াখালী, ফেনী, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলোর নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ২ থেকে ৪ ফুটের বেশি উচ্চতার বায়ুতাড়িত জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

একইসঙ্গে উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

স্থল নিম্নচাপের প্রভাবে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে কিছুটা বৃষ্টি রয়েছে। ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের উপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে দমকা বাতাস। তবে বৃষ্টির প্রবণতা উত্তরাঞ্চলে কম।

মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি ৫৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে কক্সবাজারের টেকনাফে। রংপুর, রাজশাহী ও সিলেট বিভাগ ছিলো প্রায় বৃষ্টিহীন।

মঙ্গলবারের মতো বুধবারও ঢাকায় দমকা বাতাস বইছে। সঙ্গে আকাশে রয়েছে মেঘের আনাগোনা।

দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে

বুধবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে তুলে ধরে আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

এ সময়ে তাপমাত্রা সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী তিনদিন দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল সৈয়দপুরে। বুধবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিলো সীতাকুণ্ড ও হাতিয়ায়, এ দুটি স্থানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

৮ অঞ্চলের নদীবন্দরে ২ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত

বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ফরিদপুর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ অস্থায়ীভাবে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নৌবন্দরগেুলোকে ২ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এছাড়া দেশের অন্যান্য অঞ্চলের ওপর দিয়ে দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ অস্থায়ীভাবে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এসব এলাকার নৌবন্দরগুলোকে এক নম্বর সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে পূর্বাভাসে।


আরও খবর