Logo
শিরোনাম

নেপালে নিখোঁজ প্লেনটি ‘বিধ্বস্ত’ হয়েছে

প্রকাশিত:রবিবার ২৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ৫২৬জন দেখেছেন
Image

অবশেষে নেপালে নিখোঁজ হওয়া প্লেনের সন্ধান মিলেছে। দেশটির ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক দাবি করেন, মুস্তাংয়ের কওয়াং এলাকায় প্লেনের খোঁজ পাওয়া গেছে। তবে এটির অবস্থা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এদিকে নেপালের সেনাবাহিনীকে স্থানীয়রা জানিয়েছে যে, তারা এয়ারের প্লেনটি লামচে নদীর মুখে বিধ্বস্ত হয়েছে। সংবাদমাধ্যম এএনআইয়ের বরাত দিয়ে জি নিউজ এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে তারা এয়ারের একটি প্লেন ২২ জন যাত্রী ও তিনজন ক্রু নিয়ে নিখোঁজ হয়। দেশটির পার্বত্য জেলা মুস্তাংয়ে রোববার (২৯ মে) সকালে দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট প্লেনটি হারিয়ে যায়। এ ঘটনার পর তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করতে অঞ্চলটিতে ছুটে যায় সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার।

জানা গেছে, প্লেনটি পোখারা থেকে জমসমের উদ্দেশে যাত্রা করেছিল। তারা এয়ারের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় রোববার সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে পোখারা থেকে প্লেনটির সঙ্গে সব সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

বিমানটিতে ১৩ জন নেপালি নাগরিক, চারজন ভারতীয় নাগরিক, দুইজন জার্মান নাগরিক ও তিনজন ক্রু সদস্য ছিল বলে জানা গেছে।

কয়েকটি প্রতিবেদনে বলা হয়, ওই অঞ্চলে সম্ভবত খারাপ আবহাওয়া বিরাজ করছে। গত কয়েক দিন ধরে সেখানে বৃষ্টি হচ্ছে। তবে ফ্লাইট চলাচল স্বাভাবিক ছিল।


আরও খবর



মিশরে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপন

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
Image

নীলনদ আর সুয়েজ ক্যানেলের দেশ মিশরের রাজধানী কায়রোস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে জাতির দীর্ঘ প্রতীক্ষিত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপন করেছে মিশরে বাংলাদেশি প্রবাসীরা।

এ উপলক্ষে শনিবার (২৫ জুন) সন্ধ্যা ৬টায় দূতাবাসের হল রুমে বাংলাদেশে পদ্মা সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পরেই এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

মো. ফেরদাউসের সঞ্চালনায় ফাহিম আহমেদ পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও মোনাজাতের পর, ঢাকা থেকে পাঠানো রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন যথাক্রমে বাংলাদেশ দূতাবাসের দূতালয় প্রধান মুহাম্মদ ইসমাইল হুসাইন ও ২য় সচিব আতাউল হক।

Padm2

বাংলাদেশ থেকে পাঠানো পদ্মা সেতুর ওপর একটি থিম সং (উদ্বোধনী সংগীত) প্রদর্শন করার পর আলোচনা পর্ব শুরু হয়। আলোচনায় অংশ নেন প্রবাসী ব্যবসায়ী আক্তারুজজামান ও কায়রো বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যয়নরত চিকিৎসক এনামুল ইসলাম।

তারা পদ্মা সেতুর গুরুত্বের কথা উল্লেখ করে বলেন, আমাদের দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষের একটা স্বপ্ন ছিল পদ্মা সেতু। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয়েছে খুব ভালো লাগছে। আগে ঢাকা থেকে দক্ষিণাঞ্চলে যেতে ফেরী, লঞ্চে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হতো। সেতু হওয়াতে সেটা থেকে মুক্তি পাবে খুলনা, বাঘেরহাট, ফরিদপুরসহ ১৯ জেলার মানুষ।

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী উদযাপন অনুষ্ঠানের সমাপনী বক্তব্যে মিশরে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. মনিরুল ইসলাম দূর-দূরান্ত থেকে আগত প্রবাসীদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, স্বপ্নের পদ্মা সেতু আমাদের অহংকার, বাংলাদেশের গর্ব, আত্মনির্ভরশীলতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক।

Padm2

বাঙালি জাতির এ গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিনে তিনি স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

তিনি উল্লেখ করেন, প্রধানমন্ত্রীর সাহসিকতা, বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত ও সময়োপযোগী পদক্ষেপের ফলেই সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে প্রমত্তা পদ্মার বুকে এই সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে। অসংখ্য প্রতিকূলতা ও চক্রান্ত পরাভূত করে বাঙালির স্বপ্ন পূরণের এ দিনে এ সেতু নির্মাণের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দিত করে রাষ্ট্রদূত বলেন, সরকার ও জনগণের একনিষ্ঠ প্রচেষ্টার ফলে এই সেতু নির্মাণের মাধ্যমে বিশ্বদরবারে আমাদের সবার মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর সুযোগ হয়েছে।

Padm2

তিনি পদ্মা সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হওয়ার আশু সুফলসমূহও তুলে ধরেন। দেশের ২১টি জেলার মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের পাশাপাশি এই সেতু বাংলাদেশের ও সামগ্রিকভাবে আঞ্চলিক বাণিজ্য ও যোগাযোগ ব্যবস্থার প্রসারে যুগান্তকারী ভূমিকা রাখবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

রাষ্ট্রদূত আশা প্রকাশ করেন, পদ্মা সেতু বাংলাদেশের মধ্যম আয়ের দেশের মর্যাদা অর্জনের পাশাপাশি উচ্চ আয়ের দেশে পরিণত করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। অনুষ্ঠান শেষে উপস্থিত প্রবাসীদের নিয়ে রাষ্ট্রদূত কেক কাটেন।


আরও খবর



পাকিস্তানে বাস খাদে পড়ে নিহত ২২

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | ৩৮জন দেখেছেন
Image

পাকিস্তানে একটি বাসন খাদে পড়ে নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ২২ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও বেশ কয়েকজন। স্থানীয় সময় বুধবার দেশটির বেলুচিস্তান প্রদেশে ওই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।

কিল্লা সাইফুল্লাহর কাছে অবস্থিত আখতারজাইয়ের পাহাড়ী এলাকার একটি রাস্তায় মোড় নেওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি কয়েকশ ফুট গভীর একটি গভীর খাদে পড়ে যায়।

ডনের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে যে, ওই দুর্ঘটনায় ২২ জন নিহত এবং এক শিশু আহত হয়েছে।

জোব জেলার ডেপুটি কমিশনার হাফিজ মোহাম্মদ কাসিম বলেন, ওই যাত্রীবাহী বাসটি জোব শহর থেকে লোরালিয়ার দিকে যাচ্ছিল।

তিনি জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। তবে ওই গিরিখাদটি অনেক গভীর হওয়ায় উদ্ধার অভিযান চালানো বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে।

ওই এলাকার কাছাকাছি অবস্থিত হাসপাতালগুলোতে দুর্ঘটনার বিষয়টি জানানো হয়েছে এবং কুয়েটা থেকে উদ্ধারকারী দলের সহায়তা চাওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলওয়াল ভুট্টো গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

তিনি স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে আহতদের জরুরি সেবা নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছেন। ভবিষ্যতে এ ধরনের দুর্ঘটনা যেন এড়িয়ে চলা যায় সে বিষয়েও পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলেছেন। পাহাড়ি এলাকায় আঁকাবাঁকা রাস্তার কারণে প্রতি বছর বেলুচিস্তানে দুর্ঘটনায় শত শত মানুষ প্রাণ হারায়।


আরও খবর



ভৈরবে অটোচালকের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ জুন ২০২২ | ৩৩জন দেখেছেন
Image

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে সোহেল (২৬) নামের এক অটোচালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১০ জুন) দুপুর ১২টার দিকে ভৈরব-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের গাজীরটেক এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। সোহেল শহরের চন্ডিবের এলাকার আজগর আলীর ছেলে।

নিহতের ভাই মোরশেদ মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাসা থেকে অটো নিয়ে বের হন সোহেল। সারারাত সে বাসায় আসেনি। বেলা ১১টার দিকে আমার ভাইয়ের মরদেহ পাওয়া গেছে বলে পুলিশ জানায়।

ভৈরব থানার উপ-পরিদর্শক মোস্তাক আহমেদ জানান, সোহেল দেড় মাস আগে জেল থেকে বের হয়। তিনি নিয়মিত নেশা করতেন। তাকে কী কারণে কারা হত্যা করা হয়েছে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. গোলাম মোস্তফা জানান, সকালে ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে গাজীরটেক এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



‘আমিও মানুষ’

প্রকাশিত:শনিবার ১১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
Image

মোমিনুর রহমান মনির

নামিদামি নেতারা আইন বানান! বাহবা পান, সাংবাদিকেরা ছবি তোলেন, লেখকেরা লিখে ভারি করেন পান্ডুলিপির ওজন। কিন্তু এসব করেও কি সুবিধাবঞ্চিতদের কোনো পরিবর্তন হয় আদৌ। ওদের রোদ পোড়ায়! বৃষ্টি ভেজায়!

ঝড়ো হাওয়া ওদের স্বপ্নগুলোকে ধুলোয় ধুসরিত করে দেয়। এভাবেই দিন কাটে অবহেলিতদের কিন্তু ওরাও তো মানুষ নাকি? ওরাও তো বাঁচতে চায়? মানুষ হয়ে বাঁচতে চায়!

বলছি ডা. ফারহানা মোবিনের লেখা সামাজিক সমস্যা ও তার জন্য সচেতনতা বিষয়ক বই- ‘আমিও মানুষ’ থেকে কিছু কথা।

লেখক বইটিতে সমাজের সত্য ঘটনা অবলম্বনে লেখা কিছু সামাজিক সমস্যা ও তার প্রতিকার বিষয়ে কখনো সরাসরি আবার কখনো রূপক অর্থে ব্যবহার করে চমৎকারভাবে তুলে ধরেছেন।

ঝকঝকে কাভার উল্টালেই প্রথমে চোখে পড়ে বইটি তিনি উৎসর্গ করেছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের হাজারো তরুণের ভালোবাসার সংগঠন ‘বন্ধুসভার’ সব বন্ধুদের। যাদের রক্তে প্রবাল দেশপ্রেম, হৃদয়ে পরোপকারের তীব্র ইচ্ছা, দু’চোখে পৃথিবীকে সুন্দর করে সাজানোর স্বপ্ন।

শুরুতেই লেখিকা একজন বাদাম ওয়ালার জীবনের গল্প তুলে ধরে লিখেছেন- ‘আমি এক বাদামওয়ালা’ এরপর যৌতুকের জন্য সমাজের কিছু মুখোশধারী মানুষের ভয়ানক লালসাবোধ নিয়ে লেখা- ‘ধূসর জীবনের গল্প’ বৃদ্ধাশ্রমের নেতিবাচক দিক নিয়ে লেখা- ‘সাধের বৃদ্ধাশ্রম’ আমাদের দেশে চাইল্ড কেয়ার হোমের প্রয়োজনীয়তা বিষয়ে লেখা- ‘চাই চাইল্ড কেয়ার হোম’।

এরপর পর্যায়ক্রমে- জীবিকার তাগিদে অফিসের চরিত্রহীন বসের সঙ্গে কাজ করতে বাধ্য হওয়া, মাদকাসক্ত নারীদের সঠিকভাবে চিকিৎসার ব্যবস্থাহীনতা, পিতা-মাতার জন্য আমাদের করণীয়, কিশোর শ্রমিকের আহাজারি...বইটিতে লেখিকা এ ধরনের সামাজিক সমস্যাগুলোর করুণ চিত্র ফুটিয়ে তুলেছেন।

যেসব পেশাতে নারীদের নাইট ডিউটি করতে হয় (যেমন- চিকিৎসক, সেবিকা, পাইলট, বিমানবালা), সেসব নারীদের অধিকাংশ ক্ষেত্রে পারিবারিক ও সামাজিক চাপের মুখে পড়তে হয়। এই নেতিবাচক পরিস্থিতির বিরুদ্ধে সব নারী সফল হতে পারেন না। নারীরা যদি পুরুষের মতোই এগিয়ে যেতে পারে, তাহলে বদলে যাবে পুরো সমাজ। এজন্য দরকার সমাজের মানুষের সচেতনতাবোধ। দরকার দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন।

দেশের উন্নয়নের জন্য নারী পুরুষকে সমানভাবে এগিয়ে যেতে হবে, লেখক এই বিষয়টি পাঠককে উপলব্ধি করানোর চেষ্টা করেছেন। পাশাপাশি মানুষ যেন সামাজিক সমস্যাতে হতাশ না হয়ে, সামনে এগিয়ে যেতে পারে, সেজন্য কিছু সফল ও হৃদয়বান মানুষের জীবনী ছোট করে লিখেছেন।

যারা ভয়াবহ সামাজিক সমস্যা, দুঃখ কষ্ট আর অভাবের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে সফল হয়েছেন। যেমন- পৃথিবী বিখ্যাত লেখক জে কে রাওলিং, টাংগাইলের কুমুদিনী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা রণদা প্রসাদ সাহা।

জীবনের প্রতিটি ধাপেই মানুষকে পোড়াতে হয় অনেক কাঠ-খড়। এই কাঠ-খড় পুড়িয়ে কেউ হয় জয়ী। আর কাঠ খড়ের সঙ্গে কেউবা নিজেই পুড়ে হয়ে যায় ছারখার। নিজেকে সামনে এগিয়ে নেওয়ার জন্য প্রয়োজন সীমাহীন অনুপ্রেরণা, সমস্যার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য পাহাড়সম মানসিক শক্তি, বাঁধভাঙা স্বপ্ন, মানবপ্রেম আর দেশপ্রেম।

বইটি সামাজিক সমস্যা ও তার জন্য সচেতনতা বোধের বাস্তব প্রতিফলন। বইটি খুব সাধারণ ও সহজ ভাষায় লেখা। হতাশার সাগরে ডুবে থাকা কেউ এই বইটি পড়লে খুঁজে পাবেন মানসিক শক্তি। আমিও ‘মানুষ’ বইটি লিখেছেন ড. ফারহানা মোবিন


আরও খবর

জাহিদ নয়নের দুটি কবিতা

সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২




সাঁতরিয়ে নৌকা ধরতে গিয়ে বিলের পানিতে ডুবে প্রহরীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
Image

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে বিলে সাঁতরিয়ে নৌকা ধরতে গিয়ে পানিতে ডুবে মোবারক আলী (৬১) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জুন) রাতে উপজেলার পাইকেরছড়া নামক বিলে এ ঘটনা ঘটে। পরদিন সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মোবারক আলীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মোবারক আলী উপজেলার সোনাহাট ইউনিয়নের দক্ষিণ ভরতের ছড়া ঘুণ্টিঘর গ্রামের সোনাউল্লাহ ব্যাপারীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মোবারক আলী পাইকেরছড়া বিলের পাহারাদার (গার্ড) হিসাবে চাকরি করতেন। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে ঘাটে নৌকা বেঁধে বাড়িতে ভাত খাওয়ার জন্য যান। এসময় কে বা কারা নৌকাটি ভাসিয়ে দেয়। পরে তিনি বাড়ি থেকে এসে ঘাটের নৌকা বিলের মাঝে ভাসতে দেখে সাঁতরিয়ে নৌকা ধরতে যান। দীর্ঘক্ষণ চেষ্টা করেও নৌকা ধরতে না পেয়ে বিলের পানিতে ডুবে নিখোঁজ হন। পরদিন এ ঘটনা জানতে পেরে স্থানীয়রা মোবারক আলীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশকে খবর দেয়।

ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন ঘটনার বলেন, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে।


আরও খবর