Logo
শিরোনাম

নতুন সিনেমায় রোশান-বুবলী

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৯জন দেখেছেন
Image

 

ঢাকাই সিনেমার চলতি সময়ের বেশ কয়েকটি সিনেমায় জুটি বেধেছেন চিত্রনায়ক জিয়াউল রোশান ও চিত্রনায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলী। এরই ধারাবাহিকতায় এবার ‘প্রেম পুরাণ’ নামের নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হলেন রোশান-বুবলী। সিনেমাটি যৌথভাবে পরিচালনা করবেন মাসুদ মহিউদ্দিন ও মাহমুদ হাসান শিকদার।

বুবলীর সঙ্গে আবারও নতুন চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হওয়া প্রসঙ্গে রোশান বলেন, ‘পরিচালক ও প্রযোজকেরা আমাদের দুজনকে নিয়ে সিনেমা বানাতে আগ্রহী হচ্ছেন। আমারও মনে হচ্ছে, বুবলীর সঙ্গে আমার চমৎকার একটা বোঝাপড়া তৈরি হয়েছে, যা কাজের ক্ষেত্রে খুবই আরামদায়ক।’

বুবলী বলেন, ‘‘প্রতিনিয়ত নিজেকে নতুন সব চরিত্রে দেখার প্রবল আগ্রহ থেকে ‘প্রেম পুরাণ’ চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত হওয়া।’’

রোশান-বুবলী জুটির প্রথম সিনেমা ‘চোখ’। এরপর তারা জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন ‘রিভেঞ্জ’, ‘বিট্রে’ ও ‘মায়া: দ্য লাভ’ সিনেমায়। বর্তমানে সিনেমাগুলো নির্মাণাধীন রয়েছে। চলতি বছরই কয়েকটি সিনেমা মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

রোশান অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় আছে মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘আশীর্বাদ’, ফরিদুল হাসানের ‘করপোরেট’, দীপঙ্কর দীপনের ‘অপারেশন সুন্দরবন’, অনন্য মামুনের ‘সাইকো’, নাদের চৌধুরীর ‘জ্বীন’ সিনেমাগুলো। অন্যদিকে, বুবলী অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘ক্যাসিনো’, ‘তালাশ’, ‘লিডার: আমিই বাংলাদেশ’ নামের সিনেমাগুলো।


আরও খবর



১৫ ঘণ্টায়ও ফেরিঘাটে পৌঁছাতে পারেননি হাবিবউল্লাহ

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
Image

২০ থেকে ৩০ মিনিটের পথ ১৫ ঘণ্টায়ও পাড়ি দিয়ে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাটে পৌঁছাতে পারেননি হাবিবউল্লাহ। এতে স্ত্রী ও শিশুসন্তানকে নিয়ে তিনি পড়েছেন চরম বিপাকে।

হাবিবউল্লাহ ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চাকরি করেন। স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে ফেরির জন্য দৌলতদিয়া সড়কে শুক্রবার (৬ মে) রাত সাড়ে ১২টা থেকে বাসে অপেক্ষা করছেন। শনিবার (৭ মে) বিকেল ৩টায় তিনি পৌঁছান দৌলতদিয়ার পুলিশবক্স এলাকায়। যেখান থেকে ঘাটের দূরত্ব আরও এক কিলোমিটার। এ অবস্থায় গরমে অতিষ্ট হয়ে শিশুকে নিয়ে বাসের বাইরে এসে হাতপাখা দিয়ে বাতাস করছেন।

শনিবার বিকেল ৩টার দিকে দৌলতদিয়া পুলিশবক্স এলাকায় এমন চিত্র দেখা যায়।

১৫ ঘণ্টায়ও ফেরিঘাটে পৌঁছাতে পারেননি হাবিবউল্লাহ

বাসযাত্রী হাবিবউল্লাহ বলেন, ভেবেছিলাম ঢাকায় গিয়ে অফিস করবো। অফিস তো দূরের কথা বিকেল হয়ে আসলো এখনো দৌলতদিয়া ঘাটেই যেতে পারলাম না। গতকাল সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা থেকে স্ত্রী ও শিশুসন্তান নিয়ে এসপি গোল্ডেন লাইনের একটি বাসে রওয়ানা হয়ে রাত সাড়ে ১২টার দিকে দৌলতদিয়া প্রান্তে আটকা পড়েছি।

তিনি আরও বলেন, রাত ও দিন ঘাটেই গেটে গেলো। গরম আর সহ্য হচ্ছে না, গরমে শিশু বাচ্চা অতিষ্ট হয়ে পড়ছে। যে কারণে বাস থেকে নেমে হাঁটাচলা করছি। বাসে কিছু মালামাল আছে, তাই নেমে যেতে পারছি না। এখন বাসের ছাদ গরম হয়ে উঠেছে। কোনোভাবেই বাসের ভেতর থাকতে পারছি না। অনেক যাত্রীই এমন দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। আমাদের দুর্ভোগের শেষ নেই।

১৫ ঘণ্টায়ও ফেরিঘাটে পৌঁছাতে পারেননি হাবিবউল্লাহ

হাবিবউল্লাহর মতো মাহিম তার ঢাকামুখী বোন ও ভাগ্নিকে নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। রাত দেড়টায় ঘাটে এসেও ফেরি পাননি। তারা খুলনা থেকে সোহাগ পরিবহনের একটি বাসে ঢাকায় যাচ্ছেন।

এদিকে সময় বাড়ার সঙ্গে দৌলতদিয়া প্রান্তের সড়কে যানবাহনের লাইন আরও দীর্ঘ হচ্ছে। বিকেল ৩টা পর্যন্ত সড়কের প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকায় যানজট তৈরি হয়েছে। এছাড়া দৌলতদিয়া ঘাটমুখী আঞ্চলিক সড়কে রয়েছে ছোট গাড়ি, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, মোটরসাইকেলের চাপ। ফলে ঢাকামুখী যাত্রীরা বেশ দুর্ভোগে পড়েছেন।

যানজটে খাবার ও বাথরুমের সমস্যায় পড়ছেন চালক ও যাত্রীরা। অনেকে তীব্র গরমে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।

১৫ ঘণ্টায়ও ফেরিঘাটে পৌঁছাতে পারেননি হাবিবউল্লাহ

অপরদিকে, যাত্রী ও যানবাহনের চাপ সামাল দিতে বেগ পেতে হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের। ছোট গাড়িগুলোকে মহাসড়কের পাশের ঘাটমুখী আঞ্চলিক সড়ক ব্যবহার করে ঘাটে যেতে অনুরোধ করছেন পুলিশ সদস্যরা।

দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক শিহাব উদ্দিন বলেন, যানবাহন এসে পার হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু অতিরিক্ত যানবাহন এলে করার কী আছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ছোট-বড় প্রায় ৯ হাজার যানবাহন পার হয়েছে।


আরও খবর



ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল ও উপেন্দ্রকিশোরের জন্ম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
Image

মানুষ ইতিহাস আশ্রিত। অতীত হাতড়েই মানুষ এগোয় ভবিষ্যৎ পানে। ইতিহাস আমাদের আধেয়। জীবনের পথপরিক্রমার অর্জন-বিসর্জন, জয়-পরাজয়, আবিষ্কার-উদ্ভাবন, রাজনীতি-অর্থনীতি-সমাজনীতি একসময় রূপ নেয় ইতিহাসে। সেই ইতিহাসের উল্লেখযোগ্য ঘটনা স্মরণ করাতেই জাগো নিউজের বিশেষ আয়োজন আজকের এই দিনে।

১২ মে ২০২২, বৃহস্পতিবার। ২৯ বৈশাখ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ।

ঘটনা
১৬৬৬- মুঘল সম্রাট আওরঙ্গজেবের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের জন্য শিবাজি আগ্রায় আসেন।
১৯৫৫- সিলেটের হরিপুরে প্রাকৃতিক গ্যাসক্ষেত্র আবিষ্কৃত হয়।
১৯৬৫- বাংলাদেশে ঘূর্ণিঝড়ে ১৭ হাজার লোকের প্রাণহানি ঘটে।
১৯৭২- বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেয় স্পেন ও দক্ষিণ কোরিয়া।
২০১৮- বাংলাদেশ সময় রাত ২:১৪ মিনিটে ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ উৎক্ষেপণ করা হয়।

জন্ম
১৮২০- আধুনিক নার্সিং সেবার অগ্রদূত, লেখক ও পরিসংখ্যানবিদ ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল। যিনি ‘দ্য লেডি ইউথ দ্য ল্যাম্প’ নামে পরিচিত ছিলেন। ইতালির ফ্লোরেন্সে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ছোটবেলা থেকে তার স্বপ্ন ছিল নার্স হওয়া। তার সবচেয়ে আলোচিত অবদান ছিল ক্রিমিয়ার যুদ্ধে। যখন ব্রিটেনে যুদ্ধাহতদের করুণ অবস্থার বিবরণ আসে তখন তিনি ও তার কাছেই প্রশিক্ষিত ৩৮ জন সেবিকা, তার আত্মীয় মেই স্মিথ এবং ১৫ ক্যাথোলিক নানসহ অটোম্যান সাম্রাজ্যে যান।

তিনি অসংখ্য পদক আর উপাধিতে ভূষিত হয়েছেন। ১৮৮৩ সালে রানি ভিক্টোরিয়া তাকে ‘রয়েল রেডক্রস’ পদক প্রদান করেন। প্রথম নারী হিসেবে ‘অর্ডার অব মেরিট’ খেতাব লাভ করেন ১৯০৭ সালে। ১৯০৮ সালে লাভ করেন লন্ডন নগরীর ‘অনারারি ফ্রিডম’ উপাধি। এছাড়াও ১৯৭৪ সাল থেকে তার জন্মদিন ১২ মে পালিত হয়ে আসছে ‘ইন্টারন্যাশনাল নার্সেস ডে’।
১৮৫৫- বাঙালি ভূতত্ত্ববিদ, বিজ্ঞানী ও সমাজকর্মী প্রমথনাথ বসু।

১৮৬৩- বিখ্যাত বাঙালি শিশুসাহিত্যিক ও বাংলা ছাপাখানার অগ্রপথিক উপেন্দ্রকিশোর রায়চৌধুরী। অধুনা বাংলাদেশের ময়মনসিংহ জেলার বর্তমান কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদি উপজেলার মসূয়া গ্রামে জন্ম তার। তিনি একাধারে লেখক চিত্রকর, প্রকাশক, শখের জ্যোতির্বিদ, বেহালাবাদক ও সুরকার ছিলেন।সন্দেশ পত্রিকা তিনিই শুরু করেন যা পরে তার পুত্র সুকুমার রায় ও পৌত্র সত্যজিৎ রায় সম্পাদনা করেন। গুপি-গাইন-বাঘা-বাইন, টুনটুনির বই ইত্যাদি তারই অমর সৃষ্টি। ১৯১৫ সালের ২০শে ডিসেম্বর মাত্র ৫২ বছর বয়সে মারা যান তিনি।
১৯১৩- ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের শহীদ বিপ্লবী ত্রিপুরা সেনগুপ্ত।

মৃত্যু
১৮৪৫- জার্মান কবি, অনুবাদক ও সমালোচক আউগুস্ট ভিলহেল্ম ফন শ্লেগেল।
১৯৪০- বিশিষ্ট কর্মব্রতী, সাহিত্যানুরাগী ও রবীন্দ্রনাথ পরিকল্পিত শ্রীনিকেতনের মুখ্য সংগঠক কালীমোহন ঘোষ।
১৯৪১- বাঙালি লেখক ও চলচ্চিত্র পরিচালক দীনেশরঞ্জন দাশ।
২০০৫- পশ্চিমা লেখক, শিক্ষাবিদ ও ফ্রিটজফ শুয়ানের শিষ্য ও শেক্সপিয়র বিষয়ে বিজ্ঞ ব্যক্তি মার্টিন লিংগস।
২০১৫- বাঙালি সাহিত্যিক সুচিত্রা ভট্টাচার্য।

দিবস
আজ আন্তর্জাতিক নার্স দিবস।


আরও খবর



হারানো ৬৬ হাজার টাকা উদ্ধার করে দিলো পুলিশ

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৫জন দেখেছেন
Image

ঝিনাইদহের মহেশপুরের বাসিন্দা জাহিদুল ইসলাম। একটি দোকানে চা পান করে ভুলে ৬৬ হাজার ২০০ টাকা ফেলে যান তিনি। পরে যখন মনে পড়ে তখন ফিরে এসে দেখেন দোকান বন্ধ। পুলিশের সহযোগিতায় ওই টাকা ফিরে পেয়েছেন জাহিদুল।

সোমবার (৯ মে) সকালে দোকানদারের কাছ থেকে ওই টাকা উদ্ধার করে মালিকের হাতে তুলে দেন মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মিয়া।

জাহিদুল ইসলাম জানান, রোববার (৮ মে) মহেশপুর চৌগাছা বাসস্ট্যান্ডে একটি চায়ের দোকানে চা পান করে চলে যাওয়ার সময় টাকাসহ তার ব্যাগটি নিতে ভুলে যান। মহেশপুর নাটিমা বাজারে পৌঁছালে বুঝতে পারেন তিনি তার ব্যাগটি চায়ের দোকানে ফেলে এসেছেন। এরপর চায়ের দোকানে ফিরে গিয়ে দোকানটি বন্ধ দেখে বিপাকে পড়েন। তিনি বিষয়টি মহেশপুর থানা পুলিশকে জানান।

পরে ওসি সেলিম মিয়ার নির্দেশে পরিদর্শক (তদন্ত) ইসমাইল হোসেন ও উপ-পরিদর্শক (এসআই) আলিমুল ইসলাম তাৎক্ষণিকভাবে চায়ের দোকানদারকে খুঁজে বের করেন। চায়ের দোকানদারও ব্যাগের মালিকের খোঁজ করছিলেন বলে জানান। সোমবার জাহিদুলের হাতে টাকা বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

মহেশপুর থানার ওসি সেলিম মিয়া বলেন, জাহিদুল ইসলাম তার টাকা হারানোর বিষয়টি আমাদের জানান। তাৎক্ষণিকভাবে আমরা এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিই।
পরে চৌগাছা বাসস্ট্যান্ডে আশপাশের হোটেল ও লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দোকানদারকে খুঁজে বের করে টাকার ব্যাগটি উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার টাকা জাহিদুল ইসলামের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে বগুড়ার নকশিকাঁথা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৯জন দেখেছেন
Image

বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে বগুড়ার নিভৃত পল্লিতে নারীদের হাতে তৈরি নকশিকাঁথা। এসব কাঁথা ডেনমার্ক, ইংল্যান্ড, জার্মানি, ইতালিসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে। প্রতিবছর বাড়ছে এ কাঁথার চাহিদা। এর মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের পাশাপাশি ভাগ্যবদল হয়েছে গ্রামের শতশত নারীর।

গুণগত মানের কারণে দেশ-বিদেশের অসংখ্য ক্রেতা ছুটে আসছেন বগুড়ার নকশি কাঁথার পল্লিগুলোতে। তাদের পছন্দের ফিরিস্তি দিচ্ছেন কারিগরদের। তবে সাম্প্রতিক সময়ে করোনার প্রভাবে এসব পল্লিতে কাজের চাপ কিছুটা কম। বগুড়া পল্লি উন্নয়ন প্রকল্প নামের বেসরকারি একটি সংস্থার মাধ্যমে নকশি কাঁথা রপ্তানি হচ্ছে ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে।

সংস্থার প্রধান সমন্বয়কারী আবু হাসনাত সাইদ জানান, সারাবছর যে পরিমাণ কাঁথা ও অন্যান্য সামগ্রী সেলাই করা হয় তার প্রায় ৮০ শতাংশই দেশের বাইরে চলে যায়। রাজশাহীর সিল্ক কাপড়ে তৈরি ৯ বর্গফুটের একটি নকশি কাঁথার দাম বাংলাদেশের বাজারে ২৫ হাজার টাকা। আর বিদেশের বাজারে এর মূল্য দাঁড়ায় প্রায় দেড় লাখ টাকা। দামের তারতম্যের এ বিশাল ফারাকের কারণে লাভবান হচ্ছেন মধ্যস্বত্বভোগীরা। পল্লিউন্নয়ন প্রকল্প সরাসরি বিদেশে পণ্য রপ্তানি করে না। বিদেশি ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী নির্দিষ্ট দামে পণ্য সরবরাহ করেন। সে ক্রেতাই আবার নিজ নিজ দেশে এসব কাঁথা বিক্রি করেন।

জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার আখলাজিরা গ্রামের বেবি বেগম গ্রামের অন্য মেয়েদের সেলাই প্রশিক্ষণ দেন। তিনি এখন পল্লি উন্নয়ন প্রকল্পের ফিল্ড সুপারভাইজর হিসেবে কাজ করছেন। বেবি জানান, একটি কাঁথা সেলাই করে একজন মজুরি হিসেবে আয় করেন ২-৫ হাজার টাকা, চাদর এক হাজার টাকা, কুশন ২০০ টাকা, বেড কভার এক হাজার টাকা, মানিব্যাগ ১০০ টাকা, কম্পিউটার কভার ৪০০ টাকা, চশমার কভার ২৫০ টাকা, ছাতা ৮০০ টাকা, টেবিল ক্লথ এক হাজার টাকা, মাফলার ৫৫০ টাকা ও শাড়ি তিন হাজার ৫০০ টাকা।

বগুড়ার মহাস্থানগড়ের পশ্চিমে প্রায় ছয় কিলোমিটার দূরে ধলমোহনী গ্রাম থেকে সূচিকাজ এখন আশপাশের ১৫-২০টি গ্রামে ছড়িয়ে গেছে। ধলমোহনী ছাড়াও বিহার, আখলাজিরা, জাহানবাদ, ধাওয়াকোলা, গোকুল, ধাওয়াকান্দি, করততোলা, চাঁদপাড়া, লাহিড়ীপাড়া, পলাশবাড়ী, মহাস্থান মধ্যপাড়া, জানাপাড়া ও নামুজার প্রায় দুই হাজার নারী এ কাজে সম্পৃক্ত। তারা প্রত্যেকেই এখন প্রশিক্ষিত ও স্বাবলম্বী। তাদের সূচিকর্মের বিভিন্ন উপকরণ যাচ্ছে ইংল্যান্ড, ডেনমার্ক, জার্মানি, ইতালিসহ বিভিন্ন দেশে। গ্রাম ছাড়াও বগুড়া শহরের মধ্যে বৌবাজার, কলোনি, সুলতানগঞ্জপাড়া, মালতিনগরেও এ নকশিকাঁথা সেলাই করা হয়।

ডেনমার্কের গ্রেথা লরেসন বাংলাদেশের এ নকশিকাঁথা দেখে এতটাই মুগ্ধ হন যে তিনি বগুড়ার এসব গ্রামে এসে স্বচক্ষে দেখে গেছেন পল্লিবধূদের এমন সুন্দর সেলাইয়ের কাজ। এছাড়া বিভিন্ন দেশ থেকে ক্রেতা আসেন এখানে। জানিয়ে যান তাদের চাহিদা। সে মতো তৈরি হচ্ছে হরেক রকমের নকশিকাঁথার। সরাসরি বিদেশি ক্রেতা ছাড়াও রপ্তানি ও বাজারজাতকরণের জন্য অর্ডার দিচ্ছে হিট অ্যান্ড ক্রাফট, জাগরণী চক্রসহ দেশীয় রপ্তানিকারক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। রপ্তানি বৃদ্ধির জন্য এবং দেশীয় চাহিদা মেটাতে ঢাকা ও বিভিন্ন পর্যটন মোটেলে শোরুম চালু করা হয়েছে। এ ছাড়া বগুড়া শহরে অবস্থিত পল্লি উন্নয়ন প্রকল্পের কার্যালয়ে নিজস্ব বিক্রয়কেন্দ্রে বিক্রির ব্যবস্থা আছে।

ধলমোহনী গ্রামের নাহারা, সীমা, নুরুন্নাহার, আফরোজা ও নাসিমা জানান, আগে তাদের ঘরে অভাব-অনটন ছিল নিত্যসঙ্গী। আজ তারা স্বাবলম্বী। সংসারের কাজের ফাঁকে সেলাইয়ের কাজ করেন।

বগুড়ার এ সূচিশিল্পীরা শুধু কাঁথা নকশার মধ্যেই সীমাবদ্ধ নন। কাঁথার পাশাপাশি তারা তৈরি করছেন শাড়ি, মানিব্যাগ, চাদর, কুশন, বিছানার চাদর, কম্পিউটার কভার, চশমার কভার, ছাতা, টেবিল ক্লথ, গ্লাস-প্লেট ম্যাট, মাফলারসহ আরও হরেক রকমের পণ্য।


আরও খবর



এক লিটার তেলে ৪০ টাকা বেশি রাখায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৪০জন দেখেছেন
Image

এক লিটার সয়াবিন তেলের বোতলে মূল্য লেখা ছিল ১৬০ টাকা। ক্রেতার কাছ থেকে নেওয়া ২০০ টাকা। ৪০ টাকা বেশি রাখায় ওই ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বুধবার (১১ মে) দুপুরে অভিযান পরিচালনা করে ময়মনসিংহের ত্রিশালে মেসার্স তামিম এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের মালিককে এ জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয়।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নিশাত মেহের।

jagonews24

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, সম্প্রতি এক ক্রেতার কাছ থেকে মেসার্স তামিম এন্টারপ্রাইজ ১৬০ টাকার সয়াবিন তেলের বোতলে ২০০ টাকা দাম রাখে। পরে ওই ক্রেতার লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। পরে প্রতিষ্ঠানটিকে ২০ হাজার জরিমানা করা হয়। অভিযোগকারী ক্রেতাকে জরিমানার ২৫ শতাংশ ৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে।

অভিযানে সহযোগিতায় ছিলেন র‌্যাব ১৪-এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর আখের মুহম্মদ জয়, সহকারী পরিচালক আনোয়ার হোসেন, উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর আবু বকর ছিদ্দিক প্রমুখ।


আরও খবর