Logo
শিরোনাম

প্রার্থীকে দিয়ে নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র মুদ্রণ!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫৩জন দেখেছেন
Image

শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরে (ইইডি) বিভিন্ন পদে চলছে নিয়োগ কার্যক্রম। প্রায় সাড়ে ১৩শ কর্মচারী নিয়োগ দেওয়া হবে। সংস্থাটিতে কর্মরত মাস্টার রোলের এক কর্মচারী ও তার স্ত্রীও নিয়োগপ্রার্থী। কিন্তু ওই কর্মচারীকে দিয়েই বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্র কম্পিউটার কম্পোজ ও মুদ্রণ করানো হয়েছে। ফলে শুধু ওই প্রার্থীই নন, তার স্ত্রী এবং অনেক বন্ধুবান্ধবও উত্তীর্ণ হয়েছেন পরীক্ষায়। সবমিলে মাস্টার রোলে কর্মরত ১০-১২ জন প্রার্থীর এভাবে পাস করার অভিযোগ জমা পড়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে। বর্তমানে এই নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা চলছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে দায়ের করা একাধিক অভিযোগপত্র থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

সূত্র জানায়, বিষয়টি জানার পরে সংস্থাটির প্রধান প্রকৌশলীর কাছে অভিযোগ সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন চেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ইইডি সূত্র জানায়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু বকর ছিদ্দীক প্রতিবেদনটি আমরা পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

জানা যায়, স্টোর অফিসার, হিসাবরক্ষক ও অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিকসহ মোট ১০টি ক্যাটাগরিতে প্রায় সাড়ে ১৩শ পদে নিয়োগে প্রার্থী ছিল ৬ লাখ ৬৭ হাজার ৭৮৯ জন। গত বছরের ২৯ অক্টোবর থেকে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয়টি ধাপে এমসিকিউ পদ্ধতির লিখিত পরীক্ষা আয়োজন করা হয়। জমা পড়া অভিযোগ অনুযায়ী, এরমধ্যে অন্তত পাঁচটির প্রশ্নপত্র প্রণয়ন প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত ছিলেন মো. হাসিব নামে এক ডাটা এন্ট্রি অপারেটর (মাস্টার রোল)। তিনি নিজে কম্পিউটার অপারেটর পদের প্রার্থী ছিলেন। তার স্ত্রীও ছিলেন প্রার্থী। এখানেই শেষ নয়, ইইডিতে দীর্ঘদিন ধরে মাস্টার রোলে কর্মরত এই কর্মচারীর ঘনিষ্ট অন্য প্রার্থীরাও পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন।

এ বিষয়ে প্রথমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বেনামে একটি অভিযোগ জমা পড়ে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পরে ওই নিয়োগ কমিটির সদস্য সচিব পদত্যাগপত্র দাখিল করেন। পাশাপাশি তিনি অভিযোগ তদন্তের দাবি করেন। এরপর ইইডির ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতি একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। এছাড়া গত ৯ এপ্রিল শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন থেকেও একটি পত্র দেওয়া হয়। তাতেও নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পর্কে উত্থাপিত অভিযোগ নিয়ে উদ্বেগ জানানো হয়। পাশাপাশি এতবড় জনবল নিয়োগের কমিটিতে কোনো প্রকৌশলীকে না রাখা নিয়েও জানানো হয় ক্ষোভ।

অভিযোগপত্রের দাবি ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলাপে জানা যায়, ইইডিতে অস্থায়ীভাবে কর্মরত হাসিব নামে একজনকে দিয়ে প্রশ্নপত্র কম্পিউটার কম্পোজ ও প্রিন্ট করানোয় তিনি এবং তার স্ত্রী আগেই নিয়োগের প্রশ্নপত্র পেয়ে যান। তার বন্ধুবান্ধবের পাওয়ার সম্ভাবনাও প্রকট হয়।

অভিযোগকারীদের দাবি, এরই মধ্যে প্রার্থীদের ভাইভা পরীক্ষা হয়ে গেছে। তবু পরীক্ষার মূল হাজিরা শিটের ছবি, স্বাক্ষরের সঙ্গে উত্তীর্ণ প্রার্থীর স্বাক্ষর, ছবি এবং আবেদনপত্রের ছবি ও স্বাক্ষর মেলালে ভুয়া পরীক্ষার্থী চিহ্নিত করা সম্ভব।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত হাসিবের সঙ্গে কথা হলে তিনি দাবি করেন, স্যারদের নির্দেশে তিনি লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন কম্পোজ করেছেন। স্যারেরা যা করতে বলবেন তার বাইরে কিছু করার সুযোগ তার নেই।

এ প্রসঙ্গে জানতে কমিটি থেকে পদত্যাগ করা সদস্য সচিব মো. আসাদুজ্জামানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জাগো নিউজকে জানান নিয়োগ পরীক্ষায় উত্থাপিত অভিযোগ সম্পর্কে তিনি নিজেই তদন্ত চেয়েছেন।

তিনি স্বীকার করেন, কর্মচারী হাসিব প্রশ্নপত্র মুদ্রণের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। কিন্তু এমন একজন প্রার্থীকে কেন রাখা হলো- এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। এ নিয়ে সিদ্ধান্তের এখতিয়ারও আমার ছিল না। তবে তাকে রাখা ঠিক হবে না মর্মে পরামর্শ দিয়েছিলাম।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কয়েকজন ভুয়া প্রার্থী শনাক্ত হয়েছে। তাদের পুলিশেও দেওয়া হয়েছে।

নিয়োগের আহ্বায়ক ও ইইডির পরিচালক রাহেদ হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, উত্থাপিত অভিযোগের কোনো কোনো বিষয়ের সত্যতা পাওয়া গেছে। প্রশ্নপত্র কম্পোজের দায়িত্বে থাকা কর্মচারী হাসিব ও তার স্ত্রী পরীক্ষায় টিকেছেন। তবে কর্মচারীটি জানায়নি যে তার স্ত্রী পরীক্ষার্থী। এটা তার জানানো উচিত ছিল। আর ওই কর্মচারী যে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে, সেই পরীক্ষার কাজ থেকে তাকে বিরত রাখা হয়েছিল।

পরিচালক বলেন, ইইডিতে অনেক মাস্টার রোলের কর্মচারী আছেন। তাদের মধ্যে কয়েকজন টিকেছে। কেউ না কেউ যে কোনো পরীক্ষায় টিকে যেতেই পারে। তারপরও গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

তবে এজন্য কোনো তদন্ত কমিটি করা হয়নি বলে তিনি নিশ্চিত করে বলেন, মন্ত্রণালয়ে অভিযোগের ব্যাখ্যা পাঠানো হয়েছে। তারা সিদ্ধান্ত নেবে।


আরও খবর



গানের শুটিং শেষ করেই ওমরাহ পালনে গেলেন মাহফুজুর রহমান

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
Image

বেসরকারি টেলিভিশন এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান। প্রতি ঈদেই তিনি গান নিয়ে হাজির হন। তার একক গানের অনুষ্ঠান প্রচার হতে দেখা যায়। সেগুলো বেশ আলোচনায় আসে। এবারের ঈদেও গান নিয়ে হাজির হবেন তিনি।

এরইমধ্যে তার গানের অনুষ্ঠান তৈরি হয়ে গেছে। এটি প্রচারে আসবে ঈদের দিন রাত সাড়ে ১০টায়।

এই অনুষ্ঠান শেষ করেই পবিত্র ওমরাহ পালন করতে সৌদি আরবে গিয়েছেন ড. মাহফুজুর রহমান। ফেসবুকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ড. মাহফুজুর রহমানের ঘনিষ্ঠ অভিনেতা ডি এ তায়েব।

ফেসবুকে তিনি লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, এটিএন বাংলা এবং এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান স্যার ওমরা হজ পালন করছেন। সারা মুসলিম জাহানের জন্য তিনি দোয়া প্রার্থনা করছেন।’

পোস্টটির সঙ্গে কিছু ছবিও জুড়ে দেন তায়েব। যেখানে মক্কার কয়েকটি ছবির সঙ্গে সাদা পাঞ্জাবি গায়ে মাহফুজুর রহমানকে দেখা যায়।

এদিকে আসন্ন ঈদুল ফিতরে ‘তুমি আমার প্রেয়সী’ নামের অনুষ্ঠানে গান গাইতে দেখা যাবে ড. মাহফুজুর রহমানকে। গানগুলোতে সুরারোপ করেছেন মান্নান মোহাম্মদ ও রাজেশ ঘোষ। গানের কথা লিখেছেন শেখ রেজা শানু, নাজমা মোহাম্মদ এবং রাজেশ ঘোষ।

ঈদের দিন রাত সাড়ে ১০টায় এটিএন বাংলায় গানের অনুষ্ঠানটি প্রচার হবে।


আরও খবর



সব মামলায় সম্রাটের জামিন, মুক্তিতে বাধা নেই

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৬জন দেখেছেন
Image

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। সম্রাটের বিরুদ্ধে আর কোন মামলা না থাকায় মুক্তিতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।

বুধবার (১১ মে) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান শুনানি শেষে তার জামিন মঞ্জুর করেন।

বিস্তারিত আসছে...


আরও খবর



রাজধানীতে মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে গ্রেফতার ৪৯

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ২৯জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে ৪৯ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ তাদের গ্রেফতার করে।

শুক্রবার (১৩ মে) ভোর ছয়টা থেকে শনিবার (১৪ মে) ভোর ছয়টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় ইয়াবা, হেরোইনসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও জব্দ করে পুলিশ।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. ফারুক হোসেন এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, গ্রেফতারদের কাছ থেকে ১২ হাজার ১৫১ পিস ইয়াবা, ১১ কেজি ৯৪২ গ্রাম গাঁজা, ৭৩ পুরিয়া হেরোইন ও ৪৩ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৩৯টি মামলা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



বিশ্ববিদ্যালয়ে মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিতের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
Image

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে গুণগত মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

মঙ্গলবার (১০ মে) সন্ধ্যায় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ভিনসেন্ট চ্যাং বঙ্গভবনে তার সঙ্গে সাক্ষাত করতে গেলে তিনি এ কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, মানবসম্পদ উন্নয়নে গুণগত শিক্ষার বিকল্প নেই। গবেষণা ও উদ্ভাবন কার্যক্রমও জোরদার করতে হবে।

বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে কারিকুলাম প্রণয়নের পরামর্শ দেন রাষ্ট্রপ্রধান।

সাক্ষাতের বরাত দিয়ে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন জানান, সাক্ষাৎকালে উপাচার্য ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও উন্নয়নসহ সার্বিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেন।

এসময় ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরবর্তী সমাবর্তনে সভাপতিত্ব করার জন্য রাষ্ট্রপতিকে আমন্ত্রণ জানান উপচার্য।

সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন এবং সচিব (সংযুক্ত) মো. ওয়াহিদুল ইসলাম খান উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা পর দুই গ্রুপে সংঘর্ষ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৩৯জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে কয়েকজনকে মারধর ও কক্ষ ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। শুক্রবার (১৩ মে) রাত সাড়ে ৯টার পর এই সংঘর্ষ শুরু হয়।

কয়েকজন অভিযোগ করেন, ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার পর বাদ পড়াদের ওপর চড়াও হন কমিটিতে পদ পাওয়া নেত্রীরা। এরপর দুই গ্রুপের সংঘর্ষ শুরু হয়। এসময় ছাত্রলীগ কর্মীদের অনেকে স্লোগান দিতে থাকেন।

এর বিকেলে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য সই করা প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আগামী এক বছরের জন্য ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে সভাপতি হিসেবে তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার নাম ঘোষণা করা হয়।

বিস্তারিত আসছে.....


আরও খবর