Logo
শিরোনাম

পশ্চিমাদের 'অপ্রত্যাশিত পরিণতির' হুমকি দিল রাশিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১২৩জন দেখেছেন
Image

যুক্তরাষ্ট্র এবং তাদের পশ্চিমা মিত্ররা ইউক্রেনে অস্ত্র সরবরাহ অব্যাহত রাখলে 'অপ্রত্যাশিত পরিণতির' ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে রাশিয়া। মস্কোর এক আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক নোটে এ হুমকি দেওয়া হয়েছে।

দুই পাতার ওই কূটনৈতিক নোটটি যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরে পৌঁছে দিয়েছে ওয়াশিংটনের রুশ দূতাবাস। তাতে সতর্ক করে দিয়ে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটো সামরিক জোটের সরবরাহ করা অস্ত্র ইউক্রেন সংঘাতে ‘জ্বালানি যোগাচ্ছে’।

এটি অব্যাহত থাকলে যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমাদের 'অপ্রত্যাশিত পরিণতি' হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে রুশ কূটনীতিকরা।

জানা গেছে, গত মঙ্গলবার ওই কূটনৈতিক নোটটি পাঠানো হয়েছে। সেদিন ইউক্রেনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের নতুন সামরিক সহায়তা প্যাকেজ দেওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। জো বাইডেন ৮০ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা প্যাকেজ অনুমোদনও করেন।

জ্যেষ্ঠ একজন মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, রাশিয়ার এই হুমকিকে স্বীকারোক্তি হিসেবে দেখা যেতে পারে যে- যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটোর সামরিক সহায়তা ইউক্রেনে কার্যকর রয়েছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়া ইউক্রেনকে পারমাণবিক হামলার লক্ষ্যবস্তু করার আশঙ্কা রয়েছে। এজন্য বিশ্বকে প্রস্তুত থাকতে হবে।

যদিও ক্রেমলিন এর আগে বলেছিল, তারা 'অস্তিত্বগত হুমকির' সম্মুখীন হলেই পারমাণবিক অস্ত্রের আশ্রয় নেবে।

রাতের বেলা ভিডিও বার্তায় জেলেনস্কি বলেছেন, লড়াইয়ের মাঠে আমাদের সামরিক বাহিনীর সাফল্য সত্যিই তাৎপর্যপূর্ণ, ঐতিহাসিকভাবে তাৎপর্যপূর্ণ। কিন্তু তারা এখনো আমাদের ভূখণ্ড থেকে দখলদারদের যথেষ্ট পরিমাণ সরিয়ে দিতে পারেনি।  

যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা মিত্রদের প্রতি জেলেনস্কি আহ্বান জানিয়েছেন, 'আরো বেশি ভারি অস্ত্র যেন সরবরাহ করা হয়। ' 

আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই ইউক্রেনে পৌছাবে মার্কিন সহায়তা প্যাকেজের নতুন অস্ত্রের প্রথম চালান।   ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র দেশটিকে ৩০০ কোটি ডলারের বেশি অস্ত্র সরবরাহ করেছে।


আরও খবর



কম খরচের বিয়েই টেকে বেশি, জানালো গবেষণা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৬জন দেখেছেন
Image

বিয়ে নিয়ে সবার মনেই নানা জল্পনা কল্পনা থাকে। বিয়েতে কে কত খরচ করবেন, কত মানুষকে আমন্ত্রণ জানাবেন, ওয়েডিং ডেস্টিনেশন কোথায় হবে, বর-কনের বিয়ের পোশাক, গয়না, মুখোরোচ সব খাবার ইত্যাদি বিষয় নিয়ে বছরখানেক আগে থেকেই পরিকল্পনা শুরু হয়ে যায়!

আবার এতো আয়োজন করে বিয়ে হওয়ার কিছুদিন বা বছরখানেক পরেই যদি বর-কনের বিচ্ছেদ ঘটে তখন, নানাজনে নানা মন্তব্য শুরু করেন!

তবে কম খরচে বিয়ে সারলেই নাকি তা বেশি দীর্ঘস্থায়ী হয়, এমনটিই জানিয়েছেন গবেষকরা। তারা জানাচ্ছেন, যে দম্পতিরা বিয়েতে কম খরচ করেন, অন্যদের চেয়ে তাদের একসঙ্গে থাকার সম্ভাবনা বেশি।

এমরি বিশ্ববিদ্যালয় ও সিঙ্গাপুরের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকরা বিয়ের খরচের সঙ্গে বিয়ে স্থায়িত্ব সময়কালের মধ্যে যোগসূত্রতা আছে কি না তা দেখার সিদ্ধান্ত নেন।

অর্থ, বিবাহ ও যোগাযোগ শীর্ষক এই গবেষণায় দেখা যায়, বিয়েতে খরচের জন্য অনেকেই ঋণ নেন। যা শোধ করতে গিয়ে পরবর্তী সময়ে সংসারে চাপ পড়ে। এতে করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া ও মনোমালিন্য দেখা দেয়।

অবশেষে আর্থিক সমস্যার কারণে বিচ্ছেদের দিকে ঝোঁকেন দম্পতিরা। তাই বিয়েতে অল্প খরচ হলে আর ঋণ নিতে হয় না। ফলে সংসারেও পরে চাপ পড়ে না।

তাই বিয়েতে অতিরিক্ত খরচ না করে ওই অর্থ ব্যয় করতে পারেন হানিমুনের জন্য। এক সমীক্ষার ৬৩ শতাংশ উত্তরদাতার দেওয়া তথ্য অনুসারে জানা যায়, বিয়েতে বেশি খরচের চেয়ে পছন্দের গন্তব্যে হানিমুন দম্পতির মধ্যকার বোঝাপোড়া বাড়ায়।

সূত্র: ব্রাইট সাইড/রামসি সল্যুশন


আরও খবর

কাঁচা কাঁঠালের কাবাব

শুক্রবার ২০ মে ২০22




বিশ্বে করোনায় আরও ১১১৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৭ লাখ ৩২ হাজার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৯জন দেখেছেন
Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে এক হাজার ১১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৩২ হাজার ৪৯৯ জন। এছাড়া একদিনে সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ৫ হাজার ৭৯০ জন।

এ নিয়ে করোনায় বিশ্বে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬২ লাখ ৯০ হাজার ৩২৪ জনে। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫২ কোটি ২৮ লাখ ৪৩ হাজার ২০২ জনে। এছাড়া করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ৪৯ কোটি ২৮ লাখ ৩৭ হাজার ৯৯৭ জন।

মঙ্গলবার (১৭ মে) সকাল সাড়ে আটটায় আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানবিষয়ক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকার শীর্ষে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৬৪ হাজার ৯৩৩ জন রোগীর শনাক্ত হয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন ১০৭ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো আট কোটি ৪৩ লাখ ৫৭ হাজার ৬০৭ জনে। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ১০ লাখ ২৬ হাজার ৮৯৯ জন। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন আট কোটি ১৩ লাখ ২৭ হাজার ১৩১ জন।

ভারতে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১০৭৮ জনের। তবে এ সময়ে কারো মৃত্যুর খবর ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে চার কোটি ৩১ লাখ ২৪ হাজার ৮৭৯ জনে। তাদের মধ্যে মারা গেছেন পাঁচ লাখ ২৪ হাজার ২৪১ জন।

এছাড়া ব্রাজিলে একদিনে মারা গেছেন ৮৯ জন, ইতালিতে ১০২ জন, ফ্রান্সে ১২৬ জন, যুক্তরাজ্যে ১৭৬ জন, জার্মানিতে ৮৬ জন, রাশিয়াতে ৮৯ জন।

এ সময়ে বাংলাদেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হয়নি। এ নিয়ে টানা ২৬ দিন করোনায় মৃত্যুশূন্য রয়েছে দেশ।


আরও খবর



পাহাড়তলীতে ব্যবসায়ী ফরিদ হত্যার আসামি কুমিল্লায় গ্রেফতার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪৩জন দেখেছেন
Image

চট্টগ্রাম নগরের পাহাড়তলীতে রেলের জায়গা নিয়ে বিরোধে ব্যবসায়ী ফরিদ হত্যার ঘটনায় এজাহারভুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৭)।

বুধবার (১১ মে) রাত ১০টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম ও চান্দিনা থানা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাররা হলেন- চৌদ্দগ্রাম উপজেলার পশ্চিম ডেকরা গ্রামের আবদুল কুদ্দুসের ছেলে আলী আজগর লেদা (২৫) ও পাহাড়তলী থানার মাইটিলা পাড়ার মো. আবদুল আলী শেখের ছেলে ইসমাইল হোসেন (৩০)।

র‌্যাব জানায়, পাহাড়তলী কার ওয়াশের ব্যবসার পাশাপাশি রেলওয়ের জায়গায় দোকান নির্মাণ করে ভাড়ার ব্যবসা ছিল ফরিদের। দীর্ঘদিন দোকান ভাড়া নিয়ে ফরিদের সঙ্গে স্থানীয় আলাউদ্দিন আলো এবং দিদারুল আলম ওরফে টেডি আলমের সঙ্গে বিরোধ চলছিল। এক সময় আলাউদ্দিন ও টেডি আলম ফরিদের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়। পরে গত ৭ মে পাহাড়তলী বাজার রেলস্টেশনের প্রবেশ পথে তাকে ঘেরাও করে প্রতিপক্ষের লোকজন ফরিদকে এলোপাথারি কিল-ঘুষি-লাথি ও পিটিয়ে গুরুতরভাবে জখম করে চলে যায়। পরে তার স্ত্রী স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন ৮ মে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহত ফরিদের বোন বাদী হয়ে ডবলমুরিং মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ১১ জন এজাহারনামীয় এবং অজ্ঞাত আরও ১৫/১৬ জনকে আসামি করা হয়।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার বলেন, গত ৭ মে চট্টগ্রামের পাহাড়তলীতে ফরিদকে হত্যার পর থেকে আসামিরা আত্মগোপনে চলে যায়। এরপর ১১ মে রাতে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম ও চান্দিনা থানা এলাকা অভিযান চালিয়ে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর আসামিদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



একাই ৪ গোল ডি ব্রুইনের, শিরোপার আরও কাছে সিটি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৪০জন দেখেছেন
Image

কেভিন ডি ব্রুইনের স্বপ্নময় এক রাত কাটলো। তার আগুনে পারফরম্যান্সে পুড়ে ছাড়খার হলো উলভস। বেলজিয়ান এই মিডফিল্ডার দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিকসহ একাই করলেন ৪ গোল।

বুধবার রাতে ডি ব্রুইনের অতিমানবীয় পারফরম্যান্সে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে উলভারহ্যাম্পটনকে ৫-১ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। সিটির অপর গোলটি করেন রহিম স্টার্লিং।

রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনাল থেকে বিদায়ের ঝালই যেন প্রতিপক্ষের ওপর মেটাচ্ছে সিটি। প্রিমিয়ার লিগে টানা দুই ম্যাচে তারা করলো ৫ গোল। আগের ম্যাচে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের বিপক্ষে জিতেছিল ৫-০ গোলে।

অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে জিতে সিটির সমান পয়েন্ট হয়েছিল লিভারপুলের। বুধবারের জয়ে আবারও ৩ পয়েন্টে নিয়ে গেল পেপ গার্দিওলার দল। বাকি আছে আর দুই ম্যাচ।

প্রতিপক্ষের মাঠে ম্যাচের সপ্তম মিনিটেই এগিয়ে যায় সিটি। বের্নার্দো সিলভার পাস থেকে আড়াআড়ি শটে জাল খুঁজে নেন ডে ব্রুইন।

চার মিনিট পরই অবশ্য সমতায় ফিরেছিল উলভসরা। একাদশ মিনিটে প্রতি আক্রমণ থেকে গোল করেন ডেনডোনকের। ওই পর্যন্তই। এরপর ডি ব্রুইনের তাণ্ডবে আর দিশা খুঁজে পায়নি স্বাগতিকরা।

১৬ মিনিটের মাথায় সিটিকে ফের এগিয়ে নেন ডে ব্রুইন।

২৪তম মিনিটে পূরণ করেন হ্যাটট্রিক। স্টার্লিংয়ের পাস থেকে বুলেট গতির শটে সিটি ক্যারিয়ারে প্রথম তিন গোল পান বেলজিয়ান তারকা।

৬০তম মিনিটে চতুর্থবারের মতো জালে বল পাঠান ডে ব্রুইনে। ৮৪ মিনিটে দলের পঞ্চম গোলটি করেন স্টার্লিং। শেষ পর্যন্ত ৫-১ গোলের বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে গার্দিওলার দল।


আরও খবর



যুবককে হত্যার পর মরদেহে আগুন: ৩৮ আসামির আত্মসমর্পণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ২৪জন দেখেছেন
Image

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে যুবককে পিটিয়ে হত্যার পর মরদেহ পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনার তিন মামলায় আদালতে এজাহারনামীয় ১ জন ও ৩৭ আসামি আত্মসমর্পণ করেন। পরে তাদের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান আদালত।

বুধবার (১১মে) বিকেলে বুড়িমারী স্থলবন্দরের মসজিদের ভেতরে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ তুলে শহীদুন্নবী জুয়েল হত্যা মামলায় ৩৭ জন ও হাজতি একজনসহ মোট ৩৮ আসামিকে জেলহাজতে পাঠান সিনিয়র জুডিসিয়াল আমলি আদালত-৩ এর বিচারক মো. জয়নাল আবেদীন।

২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর বুড়িমারী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে আসরের নামাজ পড়তে যান আবু ইউনুস মো. শহীদুন্নবী জুয়েল। সঙ্গে ছিলেন তার বন্ধু রুবাইয়াত সুমন। তারা মসজিদে কোরআন অবমাননা করেছেন এমন অভিযোগ পেয়ে সেখানে যায় স্থানীয় প্রশাসন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর লোকজন। তাদের উপস্থিতিতেই বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের ভেতর প্রবেশ করে জুয়েলকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পরে জুয়েলের মরদেহ টেনেহিঁচড়ে বুড়িমারী বাজারের বাঁশকল মোড়ে এনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

এর আগে জুয়েলকে হত্যার ঘটনায় করা তিন মামলায় এজাহারনামীয় ১১৪ আসামির মধ্যে ৫০ জনকে গ্রেফতার করা হলেও তাদের মধ্যে বর্তমানে ৯ আসামি জেলহাজতে রয়েছেন। বাকি আসামিরা উচ্চ আদালতে জামিন পান।

এ ঘটনায় শহীদুন্নবীর জুয়েলের ভাই বড় সাইফুল আলম ৪৩ জনের নাম উল্লেখ ও কয়েকশ অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় পাটগ্রাম পুলিশের এসআই শাহজাহান বাদী হয়ে আরও একটি মামলা করেন ৪৯ জনের নাম ও অজ্ঞাত কয়েকশ জনের বিরুদ্ধে।

এদিকে বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদ ভবন ভাঙচুরের ঘটনায় মামলা করেন তৎকালীন ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ মো. শাহ নেওয়াজ নিশাত। এ মামলায় ২২ জনের নাম উল্লেখ করে আসামি করা হয়েছে, অজ্ঞাত পরিচয়ের আসামি করা হয় শত শত ব্যক্তিকে।


আরও খবর