Logo
শিরোনাম

সন্তানসহ স্ত্রী উধাও, থানার সামনে আগুনে যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ১২০জন দেখেছেন
Image

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার এলাকায় নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন আনন্দ ভূঁইয়া (২৭) নামের এক যুবক।

শনিবার (১৮ জুন) বিকেলে আড়াইহাজার থানা গেটের সামনের রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার দৌড়ে এসে ওই যুবককে রক্ষা করেন। আনন্দ ভূঁইয়া উপজেলার পাঁচরুখী গ্রামের ইব্রাহিম ভূঁইয়ার ছেলে। বর্তমানে তিনি থানা হেফাজতে রয়েছে।

আনন্দ ভূঁইয়া জানান, দুই বছর আগে আড়াইহাজার উপজেলার বগাদী গ্রামের সোহেল মিয়ার মেয়ে হালিমাকে (২২) বিয়ে করেন তিনি। তাদের সংসারে একটি সন্তানও রয়েছে। এর মধ্যেই স্ত্রী হালিমা আরেক যুবকের সঙ্গে পরকীয়ায় আসক্ত হন এবং এ নিয়ে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। শনিবার সকালে আনন্দ বাইরে থেকে বাড়ি এসে দেখতে পান তার স্ত্রী ও সন্তান ঘরে নাই। স্ত্রীর মোবাইলে ফোনে করলে পরকীয়া প্রেমিক রিসিভ করেন এবং আর কল দিতে নিষেধ করেন। স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে বিকেলে আড়াইহাজার থানার সামনের রাস্তায় অবস্থান নেন আনন্দ। একই সঙ্গে নিজের শরীরে আগুন দেওয়ার জন্য কেরোসিন ঢালেন।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুল হক হাওলাদার জাগো নিউজকে বলেন, থানার সামনের রাস্তায় এক যুবক শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। বিষয়টি দেখতে পেয়ে দৌড়ে গিয়ে তাকে ধরে ফেলি। যার কারণে সে আগুন দিতে পারেনি। পরে তাকে সাবান দিয়ে গোসল করাই এবং আমাদের হেফাজতে নিই।

ওসি আরও বলেন, পরে ওই যুবকের কাছে আগুন দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে সে বলে, তার স্ত্রী বাচ্চাকে নিয়ে ভোরবেলা পালিয়ে গেছে। ফোন দিলে তাকে পায় না। রাগে-দুঃখে রাস্তায় আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে সে। এখন থানায় তার স্ত্রী ও শ্বশুর আসছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করছি।


আরও খবর



ফেনী নদীতে ধরা পড়া দুই ইলিশ বিক্রি হলো ১৭ হাজারে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ২৮জন দেখেছেন
Image

ফেনীর সোনাগাজীতে জেলের জালে ধরা পড়া দুটি বড় আকারের ইলিশ ১৬ হাজার ৮শ টাকা বিক্রি হয়েছে। গত কয়েকদিন যাবৎ বড় ফেনী নদীতে আরো কয়েকটি বড় আকারের মাছ ধরা পড়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

রোববার (২৬ জুন) সন্ধ্যায় দেশের বঙ্গোপসাগরের উপকূলীয় অঞ্চল সোনাগাজীর ফেনী নদীতে মানিক মিয়ার জালে ইলিশ দুটি ধরা পড়ে।

জেলে মানিক মিয়া জানান, তিনিসহ আরো ৫ জন উপজেলার চর খোন্দকার এলাকায় নদীতে জাল দিয়ে মাছ ধরছিলেন। এসময় তাদের জালে বড় আকারের দুটি ইলিশ ধরা পড়ে। তাৎক্ষণিক মাছগুলো সোনাগাজী বাজারে নিয়ে এলে নেয়ামত উল্লাহ নামের এক ব্যবসায়ী মাছ দুটি পাইকারী কিনে জেলা শহরে নিয়ে যান। সেখানে তিনি ইলিশ দুটি ১৬ হাজার ৮০০ টাকায় বিক্রি করেন।

jagonews24

নেয়ামত উল্লাহ জানান, বিক্রি হওয়া একটি ইলিশের ওজন ৩ কেজি ৫০ গ্রাম, অপরটি ২ কেজি ৯৫০ গ্রাম। সাধারণত এত বড় আকারের ইলিশ পাওয়া যায় না বলে তিনি জানান।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা তূর্য সাহা বলেন, মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান সফল হওয়ায় নদীতে এখন বড় মাছ পাওয়া যাচ্ছে। নিষিদ্ধ সময়ে মাছ না ধরায় সমুদ্রে মাছের আকার বড় হওয়ার সুযোগ পেয়েছে। আগামীতে আরো বড় আকারের মাছও পাওয়া যেতে পারে বলে মনে করেন এ কর্মকর্তা।


আরও খবর



এক স্পর্শে নিভলো ৩ প্রাণ!

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
Image

‘এক সংসারে থাকতে গেলে কত ঝগড়াঝাঁটিই হয়। কিন্তু আমাদের মাঝে কখনো ঝগড়া হয়নি। আমরা সবাই একসঙ্গেই থাকতাম। একে অপরের বিপদ আপদে এগিয়ে আসতাম। আজ থেকে আমি একা হয়ে গেলাম। এক ধরাতেই আমার সকল জা লাশ হয়ে গেলো। আমি এখন কাকে নিয়ে থাকবো।’

এভাবেই আহাজারি করতে করতে কথাগুলো বলছিলেন নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ এলাকার বাসিন্দা রবীন্দ্র চন্দ্র ঘোষের স্ত্রী যমুনা ঘোষ। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) দুপুরে দেওভোগের আখড়া এলাকায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে তিন জা প্রাণ হারান। তাদের মধ্যে একজন প্রথমে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এরপর তাকে বাঁচাতে অন্য দুই জা ধরলে তারাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। তাদের হারিয়ে এখন পাগলপ্রায় বড় জা যমুনা ঘোষ।

na-(4).jpg

নিহতরা হলেন- রবীন্দ্র চন্দ্র ঘোষের ছোট ভাই রঞ্জিত ঘোষের স্ত্রী বিমলা রানী ঘোষ(৫২), তার ভাই নিখিল ঘোষের স্ত্রী বাসন্তী রানী ঘোষ (৪২) ও আরেক ভাই রুপক ঘোষের স্ত্রী মনি রানী ঘোষ (৩৮)।

যমুনা ঘোষ বলেন, ‘আমার বড় জা ও ভাসুর দেড় বছর আগে একসঙ্গেই মারা গেছেন। এরপর তাদের মধ্যে আমিই সবার বড় ছিলাম। আমরা সবাই একসঙ্গেই হাসিখুশিতে থাকতাম। আজ আমার তিন জায়ের সন্তানরা মা হারা হয়ে গেলো। তাদের আমি কী বুঝ দিবো জানি না।’

na-(4).jpg

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বৃষ্টিতে ঘরের মেঝে পরিষ্কারের জন্য বিমলা রানী ঘরের গেট ধরেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। ঘরের অন্য দুই জা অসুস্থ ভেবে তাকে ধরতে গেলে তারাও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতদের ভাসুর রবী চন্দ্র ঘোষ বলেন, ‘স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় আমার বাবাকে ধরে নিয়ে যায় পাকিস্তানিরা। এরপর বাবাকে আর খুঁজে পাইনি। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় অনেক কষ্ট করে ছোট ভাইদের বাঁচিয়েছিলাম। আমাদের বাড়ি দখল করার চেষ্টা করেছিল। অনেক কষ্ট করে ছোট ভাইদের বড় করে বিয়ে করিয়েছি। আজ একদিনেই তাদের তিন বউ লাশ হয়ে গেলো। তাদের ছেলেমেয়েদের মা বলে ডাকার মতো কেউ রইল না।’

তিনি আরও বলেন, ‘গেটে তাদের লেগে থাকা অবস্থায় দেখতে পেয়ে আমার স্ত্রী যমুনা রানী ঘোষও বাঁচাতে গিয়েছিল। কিন্তু সে ভাগ্যগুণে বেঁচে যায়। ধরার সঙ্গে সঙ্গে বিদ্যুৎ তাকে বাড়ি মেরে মাটিতে ফেলে দেয়।’

na-(4).jpg

সিটি করপোরেশনের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের স্থানীয় কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মনির জাগো নিউজকে বলেন, ‘খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। আপাতত ওই এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা রয়েছে।’

নারায়ণগঞ্জ জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালের মেডিকেল কর্মকর্তা নাজমুল হাসান জাগো নিউজকে বলেন, ‘হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তাদের মৃত্যু হয়।’

নারায়ণগঞ্জ মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইদুজ্জামান জাগো নিউজকে বলেন, ‘কোনো অভিযোগ না থাকায় মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি।’


আরও খবর



পিকআপে পদ্মা সেতু দেখতে যাচ্ছিলেন, নামিয়ে দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ | ২৫জন দেখেছেন
Image

আজ থেকে সর্ব সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে পদ্মা সেতু। শুরুতেই উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে পদ্মা সেতু পাড়ি দিচ্ছেন সাধারণ যাত্রীরা। পদ্মা সেতুতে গাড়ি চলাচলের প্রথম দিন জাজিরা প্রান্ত থেকে পিকআপে করে পদ্মা পাড়ি দিতে যাচ্ছিলেন প্রায় ২০ জন যাত্রী। তারা সবাই জাজিরা এলাকার স্থানীয়। তবে ছোট পিকআপে করে পদ্মা সেতু পাড়ি দিতে চাইলে সেটিকে আটকান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

রোববার (২৬ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে তাদের বাধা দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাজিরা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাবিবা ফারজানা।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পিকআপ চালকের কাছে জানতে চাইলে চালক রবিন মিয়া জানান, প্রায় ২০ জনের মতো জাজিরা বাজার থেকে পদ্মা সেতু পাড়ি দেওয়ার জন্য তার পিকআপে করে ওঠেন। পিকআপে করে মানুষ আনা-নেওয়া করা যায় না বলেও জানতেন না তিনি বলে জানান।

jagonews24

এ সময় জাজিরা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাবিবা ফারজানা পিকআপটি থেকে সবাইকে নামতে বলেন। সবাই নেমে গেলে খালি পিকআপ পদ্মা সেতু পাড়ি দেয়।

পিকআপে থাকা ১৫ বছরের এক তরুণ বলেন, সকাল থেকে খুব ইচ্ছা হচ্ছিলো পদ্মা সেতু দেখবো। কিন্তু আমাদের নিজস্ব কোনো গাড়ি নেই। আবার ঢাকায় ঘুরে আসার মতো টাকাও নেই। এজন্য পিকআপে করে পদ্মা সেতু দেখতে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেট ম্যাডাম আমাদের সবাইকে নামিয়ে দিলেন। এখন কষ্ট নিয়েই বাড়ি ফিরতে হবে।

শনিবার (২৫ জুন) বেলা ১১টা ৫৮ মিনিটে মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর ফলক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী। দুপুর ১২টা ৬ মিনিটে সেতু দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহর জাজিরার অভিমুখে রওনা করে। দুপুর সোয়া ১২টার দিকে বাংলাবাজার ঘাটের জনসভাস্থলে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। পরে তিনি সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভাষণ দেন।

jagonews24

২০০১ সালের ৪ জুলাই স্বপ্নের পদ্মা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২০১৪ সালের নভেম্বরে নির্মাণকাজ শুরু হয়। দুই স্তরবিশিষ্ট স্টিল ও কংক্রিট নির্মিত ট্রাসের এ সেতুর ওপরের স্তরে চার লেনের সড়ক পথ এবং নিচের স্তরে একটি একক রেলপথ রয়েছে।

পদ্মা-ব্রহ্মপুত্র-মেঘনা নদীর অববাহিকায় ৪২টি পিলার ও ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যানের মাধ্যমে মূল অবকাঠামো তৈরি করা হয়। সেতুটির দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার এবং প্রস্থ ১৮ দশমিক ১০ মিটার। পদ্মা সেতু নির্মাণে খরচ হয়েছে ৩০ হাজার কোটি টাকা। এসব খরচের মধ্যে রয়েছে সেতুর অবকাঠামো তৈরি, নদী শাসন, সংযোগ সড়ক, ভূমি অধিগ্রহণ, পুনর্বাসন ও পরিবেশ, বেতন-ভাতা ইত্যাদি।

বাংলাদেশের অর্থ বিভাগের সঙ্গে সেতু বিভাগের চুক্তি অনুযায়ী, সেতু নির্মাণে ২৯ হাজার ৮৯৩ কোটি টাকা ঋণ দেয় সরকার। এক শতাংশ সুদ হারে ৩৫ বছরের মধ্যে সেটি পরিশোধ করবে সেতু কর্তৃপক্ষ। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার স্বপ্নের কাঠামো নির্মাণের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেড।


আরও খবর



মগবাজারে চারতলা ভবনে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৩ ইউনিট

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | ২০জন দেখেছেন
Image

রাজধানীর মগবাজার মোড়ে একটি চারতলা ভবনে আগুন লেগেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট।

সোমবার (২৭ জুন) বিকেল সোয়া ৩টার দিকে আগুন লাগে বলে জানান ফায়ার সার্ভিস কন্ট্রোল রুমের ডিউটি অফিসার খালেদা ইয়াসমিন।

তিনি বলেন, মগবাজার মোড়ে একটি চারতলা ভবনে আগুন লেগেছে। বিকেল সোয়া ৩টার দিকে আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ ও হতাহতের কোনো খবর জানাতে পারেননি ফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



দুর্ঘটনায় আহত শ্রীলেখা হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত:শনিবার ০২ জুলাই 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ জুলাই ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
Image

পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন। বর্তমানে কলকাতার একটি হাসপাতালে ভর্তি আছেন তিনি। শুক্রবার (১ জুলাই) হাসপাতাল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজেই দুর্ঘটনার খবর জানান শ্রীলেখা।

আকস্মিক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে মৃদু স্বরে কোনও রকমে কথা বলতে পারছেন তিনি। হাসপাতাল থেকে শ্রীলেখা তার অস্ত্রোপচারের ছবিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করেছেন।

jagonews24

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভক্তদের উদ্দেশ্যে তিনি লিখেন, দুর্ঘটনায় সামান্য আঘাত পেয়েছেন তিনি। চিকিৎসকদের সেবায় দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন। এমন খবরের পর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন তার অসংখ্য ভক্ত।

এদিকে এই অভিনেত্রী রাস্তায় দুর্ঘটনার শিকার, নাকি নিজের বাড়িতেই কিছু ঘটেছে- সে বিষয়ে এখনও জানা যায়নি।


আরও খবর