Logo
শিরোনাম

স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে ঘরে তালাবদ্ধ রেখে থানায় গেলেন স্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১৬৯জন দেখেছেন
Image

গাজীপুরের শ্রীপুরে পারিবারিক কলহের জেরে ঘুমন্ত স্বামীর (৩১) গোপনাঙ্গ কেটে তাকে ঘরে তালাবদ্ধ রেখে থানায় গেছেন স্ত্রী। তালাবদ্ধ ঘর থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন স্থানীয়রা। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (৩ মে) দিনগত মধ্যরাতে শ্রীপুর পৌর এলাকায় কেওয়া দক্ষিণ খন্ড গ্রামের চেয়ারম্যানবাড়ি মোড় এলাকায় আমান উল্ল্যাহ্ আমাদের মালিকানাধীন ভাড়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী যুবকের নাম মো. শরিফ (৩১)। তিনি গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার সোহাগপুর গ্রামের আলা উদ্দিনের ছেলে। অভিযুক্ত হনুফা (৩০) একই জেলার শ্রীপুর উপজেলার গাজিয়ারন গ্রামের আবু হানিফ বেপারীর মেয়ে। তিনি শরিফের দ্বিতীয় স্ত্রী। ৮-৯ মাস আগে প্রথম স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার পর হনুফাকে বিয়ে করেন শরিফ।

ভুক্তভোগী যুবকের বাবা আলাউদ্দিনের ভাষ্য, ‘প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে তিন বছর সংসার করার পর তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। পরে তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এরপর থেকে শরিফের সঙ্গে আমাদের কোনো যোগাযোগ ছিল না। তাকে বাড়িতেও ঢুকতে দিতাম না। বছরখানেক তার সঙ্গে আমাদের কোনো যোগাযোগ নেই। ওরা যে বিয়ে করছে তাও আমরা জানতাম না।’

বাড়ির মালিক আমান উল্ল্যাহ আমানের স্ত্রী রহিমা খাতুন জানান, রোববার (১ মে) স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে তার বাড়িতে একটি টিনশেড ঘর ভাড়া নেন শরিফ। তখন জানানো হয়েছিল তিনি জয়দেবপুর এলাকায় চাকরি করেন। পাশাপাশি স্ত্রী ঘরে সেলাইয়ের কাজ করেন। তাদের মধ্যে কোনো ধরনের কলহ ছিল কি না তা তাদের জানা ছিল না। সোমবার দিনগত রাত ৩টা সাড়ে ৩টার দিকে তাদের ঘুম থেকে ডেকে তোলে পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশের সহযোগিতায় বাড়ির মালিক আমান উল্ল্যাহ তাকে হাসপাতালে নেন।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মিজান জানান, তিনি রাতে ওই এলাকায় ডিউটিতে ছিলেন। এসময় থানার ডিউটি অফিসার তাকে ফোনে জানান, স্বামীর গোপনাঙ্গ কেটে নিয়ে এক নারী থানায় হাজির হয়েছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঘরে তালাবদ্ধ অবস্থায় রেখে এসেছেন।

তিনি আরও জানান, অভিযুক্ত নারী হনুফা বুকে ব্যথা অনুভব করায় তাকে শ্রীপুর থানা থেকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। তবে বুকের ব্যথা না কমায় তাকেও গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে অভিযুক্ত নারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।


আরও খবর



বাংলাদেশে এখন এক ব্যক্তির জমিদারি চলছে: জোনায়েদ সাকি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৬জন দেখেছেন
Image

ঐতিহাসিক ফারাক্কা লং মার্চ দিবসের ৪৬তম বার্ষিকী উদযাপন করতে এসে বাংলাদেশে এখন এক ব্যক্তির জমিদারি চলছে বলে মন্তব্য করেছেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি।

তিনি বর্তমান সরকারের সমালোচনা করে বলেন, ‘সমস্ত রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান সারা বাংলাদেশের মানুষের ট্যাক্সের পয়সায় চলে। তাদের জনগণের নিরাপত্তা দেওয়ার কথা। তা না করে তারা জনগণের টুটি চেপে ধরে। বিনা বিচারে গুলি করে হত্যা করে।‘

তিনি আরও বলেন, ‘আইনশৃংখলা বাহিনীর হেফাজতে হত্যা ও গুম করা হয়। জনগণ কথা বললেই রাতের আঁধারে তুলে নিয়ে আসতে পারে। এ সমস্ত কিছু আজকে তারা (সরকার) করে দেখিয়েছে। এটায় তাদের জমিদারি।’

সোমবার (১৬ মে) বিকেলে রাজশাহীর লালন শাহ মুক্তমঞ্চে নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন বাংলাদেশ আয়োজিত ঐতিহাসিক ‘ফারাক্কা লং মার্চ’ দিবস উদযাপনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

সয়াবিন তেলের বিষয়ে জোনায়েদ সাকি বলেন, নব্বই ভাগ ধর্মপ্রাণ মুসলমানের দেশ থেকে ঈদের আগে সয়াবিন তেল বাজার থেকে উধাও হয়ে গেলো। প্রত্যেকটা মানুষ কিনতে বাধ্য। সবার পকেট থেকে বাড়তি টাকা হাতিয়ে নেওয়া হলো।

সরকারের সমালোচনা করে তিনি আবারো বলেন, ‘সরকার বলছে, আমরা ব্যবসায়ীদেরকে ভরসা করে ভুল করেছিলাম। তাদের বক্তব্য আপনারা শুনেছেন।’

গণসংহতি আন্দোলনের এ নেতা বলেন, আজকের বাংলাদেশ পরিবর্তিত বিশ্ব বাস্তবতা, পরিবর্তিত ভূ-রাজনীতির বাস্তবতা। সেখানে প্রতিদিন প্রমাণ করছে গণতন্ত্র না থাকার কারণে এ সরকার বাংলার স্বাধীনতা সার্বভৌম রাখতে পারবে না। সুতরাং বর্তমান সরকারের হাতে দেশ নিরাপদ নয়। আমাদের আন্দোলন করে এই সরকারকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করতে হবে। একটা অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে এবং সেই সরকার দেশে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ গড়ে তুলবে।

তিনি বলেন, আগামীর বাংলাদেশ স্বৈরাচারীর বাংলাদেশ না। গণতন্ত্রের বাংলাদেশ। তার জন্য এই সংবিধান ও স্বৈরাচারী এবং ফ্যাসিবাদী সাংবিধানিক কাঠামো বদলে সংবিধান সংস্কার করে নতুন গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক গঠনতন্ত্র আমাদের তৈরি করতে হবে।

জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘শেখ হাসিনা আঠারো কোটি মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে সবাইকে এক কাতারে দাঁড় করিয়েছে। অথচ ভোটাধিকার ও গণতন্ত্র একসূত্রে গাঁথা।’

এসময় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পানি সম্পদ পরিকল্পনা সংস্থার সাবেক মহাপরিচালক প্রকৌশলী ম. ইনামূল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসনাত কাইয়ুম, ফারাক্কা লং মার্চ উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মাহবুব সিদ্দিকী, রাজশাহী জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কাশেম, নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হোসনে আলী পেয়ারা, বাসসের রাজশাহী জেলা শাখার সমন্বয়ক আফজাল হোসেন, অ্যাডভোকেট মুরাদ মোরশেদ, জিন্নাত আরা সুমু, রিদম শাহরিয়ারসহ প্রমুখ।


আরও খবর



বানানীতে চাইনিজ রেস্তোরাঁকে লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
Image

বিভিন্ন অনিয়মে বনানীতে ‘প্যান তো থাই ক্রোসিন’ নামে একটি চাইনিজ রেস্তোরাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব হাসানের নেতৃত্বে ওই রেস্তোরাঁয় এ অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে বেশ কিছু পণ্যে আমদানিকারকের প্রমাণক নেই, ফায়ার লাইসেন্স প্রদর্শনে ব্যর্থ হয়, ফ্রিজে লেবেলবিহীন প্রচুর খাদ্য পণ্য মজুত থাকায় প্রতিষ্ঠানটিকে নিরাপদ খাদ্য আইন-২০১৩ এর বিধান অনুযায়ী এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি অর্থদণ্ড অনাদায়ে প্রতিষ্ঠানটির জেনারেল ম্যানেজারকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পরে জেনারেল ম্যানেজার জরিমানা অর্থ পরিশোধ করেন।


আরও খবর



সরকারের পদত্যাগ ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে যাবে না: ফখরুল

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
Image

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের পদত্যাগ ছাড়া বিএনপির নির্বাচনে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘পরবর্তী নির্বাচন সম্পর্কে আমাদের কথা তো পরিষ্কার, আওয়ামী লীগ সরকার পদত্যাগ না করলে এবং নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর না করলে নির্বাচনের কোনো প্রশ্নই উঠতে পারে না। এই নিয়ে আমরা কোনো কথাই বলতে চাই না। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে আমরা নির্বাচনে তো যাবোই না।’

রোববার (৮ মে) এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন। শনিবার আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় নির্বাচনের বিষয়ে সরকারি দলের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপির অবস্থান তুলে ধরতে এ সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘(নির্বাচনে যাওয়ার) প্রথম শর্ত হচ্ছে যে তাদেরকে (আওয়ামী লীগ) রিজাইন করতে হবে এবং একটি নিরপেক্ষ-নির্দলীয় সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। তারা নির্বাচন পরিচালনার জন্য একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করবে জনগণের মতামতের ভিত্তিতে। সেই নির্বাচন কমিশন যে নির্বাচন আয়োজন করবে তার মাধ্যমে জনগণের প্রতিনিধিত্বমূলক একটি সরকার ও পার্লামেন্ট গঠিত হবে।’

শনিবার আওয়ামী লীগের সভায় সরকার দলীয় নেতারা বলেছেন- বিএনপি না আসলে নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে না। তারা বলেছেন, বিএনপিকে নিয়ে আমরা নির্বাচন করবো। সেই লক্ষ্যে নির্বাচন নিয়ে কোনো আলোচনার দ্বার উন্মোচিত হতে যাচ্ছে কি না জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি মনে করি, কোনো কথাই হবে না যতক্ষণ না আওয়ামী লীগ সরকার পদত্যাগ করে। এছাড়া কোনো প্রশ্ন ওঠে না।’

দলের সভা শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন যে বিরোধী দলকে সভা-সমাবেশ করার সুযোগ দেওয়া হবে। এই বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘তারা একটা মোনাফেক দল এবং তারা এই কথাটা বলতেই থাকে। তারা সুন্দর সুন্দর কথা বলে- দেখলে মনে হয় যে এদের মতো ভালো মানুষ আর নাই। আর ভেতরে ভেতরে যা করার তা করে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘তারা (আওয়ামী লীগ) ভদ্রলোকের মতো কথা বলে, গণতন্ত্রের কথা বলে। অথচ সভা-সমাবেশ তো দূরের কথা, একটা মিলাদ করতে দেয় না, ঈদ পুনর্মিলনীতে আক্রমণ করে, দোয়া মাহফিলের মধ্যে আক্রমণ করে। এদের কাছ থেকে কী আশা করতে পারেন। সব তো মোনাফেকি।’

দাউদকান্দিতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বাসায় হামলার ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই অনির্বাচিত সরকার তাদের ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করবার জন্যে এখন থেকেই সন্ত্রাসের আশ্রয় নিয়েছে। গতকাল আমাদের স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দাউকান্দিতে তার বাসভবনে গিয়েছিলেন। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন তিনি। এরপর তিতাসে তার একটি নিমন্ত্রণ ছিল, সেই নিমন্ত্রণ রক্ষার জন্য যখন বের হন তখন অতর্কিতে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা লাঠি-সোঠা, ইট-পাটকেল ছুড়ে হামলা করে। ড. মোশাররফের ওপরে ফিজিক্যালি আক্রমণ বলেই আমরা এটাকে মনে করি। আক্রমণটা এত তীব্র ছিল যে, কর্মীরা ড. মোশাররফ হোসেনকে তাকে বাসায় তুলে দেন এবং গেট বন্ধ করে দেন। তারপরও আওয়ামী সন্ত্রাসীরা বৃষ্টির মতো ইট ছুড়তে থাকে, পাথর ছুড়তে থাকে…।’

‘যেহেতু তিনি আমাদের স্থায়ী কমিটির সিনিয়র নেতা, তার ওপরে হামলাকে আমরা মনে করি স্থায়ী কমিটির ওপর হামলা, আমাদের দলের ওপর হামলা। আমরা এটাকে ছোট করে দেখতে পারি না। আওয়ামী লীগের এই হামলায় প্রমাণ হয়েছে যে, তাদের চরিত্রের এতটুকু পরিবর্তন হয়নি। বরং তারা নতুন উদ্যোমে বিএনপি তথা ভিন্নমতকে, বিরোধী দলকে নির্মূল করতে, দমন করতে তারা চরম সন্ত্রাসের আশ্রয় নিয়েছে।’

এ সময় ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ওপরে হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি আরও বলেন, ‘গণমাধ্যমকে তারা (আওয়ামী লীগ) নিয়ন্ত্রণ করে রেখেছে। আপনারা দেখেছেন যে, সংবাদ মাধ্যমের যে সূচক করা হয় আন্তর্জাতিকভাবে, ফ্রিডম অব প্রেস কতটুকু আছে- সেখানে বাংলাদেশ ১০ ধাপ নেমে গেছে। এর থেকে প্রমাণিত হয় বাংলাদেশ ক্রমান্বয়ে একটা স্বৈরাচারী দেশে পরিণত হয়ে গেছে।’

সয়াবিন তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কোনো কর্মসূচি দল থেকে দেওয়া হবে কি না জানতে চাই বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘মুভমেন্ট দেখেছেন। এর আগে আমরা প্রায় এক মাস ধরে দ্রব্যমূল্যের প্রতিবাদে আন্দোলন করেছি। অবশ্যই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়ে করণীয় রাজনৈতিক কর্মসূচি দেবো।’


আরও খবর



নোয়াখালীতে আগুনে পুড়ে ভাই-বোনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৫জন দেখেছেন
Image

নোয়াখালীর সেনবাগে চুলার আগুনে পুড়ে আবদুল্লাহ আল নোমান (৭) ও লামিয়া সুলতানা মাহি (৩) নামের দুই শিশুর নিহত হয়েছে। তারা সম্পর্কে ভাই-বোন।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে উপজেলার বীজবাগ ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের বীর নারায়ণপুর গ্রামের এ ঘটনা ঘটে। নোমান ও মাহি ওই গ্রামের মো. ইকবাল হোসেনের ছেলে।

nova1

বীজবাগ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সেলিম উদ্দিন জানান, ওই গ্রামের ইকবাল হোসেনের স্ত্রী গোলাপি বেগম মাটির চুলায় দুপুরের রান্না বসিয়ে পুকুরে যান। পরে চুলা থেকে আগুন ছড়িয়ে বসতঘরসহ দুই শিশু পুড়ে কয়লা হয়ে যায়। রান্না ঘরে গ্যাসের সিলিন্ডার থাকায় তা বিস্ফোরণে আগুনের লেলিহান শিখা আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী বলেন, ঘটনাস্থল থেকে শিশুদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



মেয়র আইভীকে দেওয়া কথা রাখলেন ডিআইজি হারুন

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৩৯জন দেখেছেন
Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) পদে পদোন্নতি পাওয়া মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

রোববার (১৫ মে) রাতে নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ এলাকায় ‘চুনকা কুঠির’-এ এই সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মেয়র নির্বাচিত হওয়ায় আইভীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান হারুন। সদ্য পদোন্নতি পাওয়ায় হারুন অর রশীদকেও ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান মেয়র আইভী।

পরে চুনকা কুঠিরে তারা বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করেন। এসময় মেয়র আইভী হারুন অর রশীদকে বলেন, ‘আপনাকে অভিনন্দন। আমরা কেউ আপনাকে ভুলিনি। নারায়ণগঞ্জবাসী আপনার জন্য সবসময় দোয়া করেছেন। আমরা আপনার মঙ্গল কামনা করি।’

jagonews24

মেয়র আইভীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ডিআইজি হারুন/ছবি: জাগো নিউজ

জবাবে হারুন অর রশীদ বলেন, ‘আমি আপনাকে কথা দিয়েছিলাম, মেয়র পদে নির্বাচিত হলে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে যাবো। বিভিন্ন কাজে ব্যস্ততার কারণে এতদিন আসা হয়নি। আজ সেই কথা রাখতে এসেছি আমি। আপনাকে অভিনন্দন।’

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবদুল কাদির, যুগ্ম-সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাত, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শহীদুল্লাহ, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শরীফউদ্দিন সবুজ, সাবেক সভাপতি মাহাবুবুর রহমান মাসুম প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আবদুল কাদির, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, সদস্য শহীদুল্লাহ, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শরীফউদ্দিন সবুজ, সাবেক সভাপতি মাহাবুবুর রহমান মাসুম প্রমুখ।

হারুন অর রশীদ নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপারের (এসপি) দায়িত্বে ছিলেন। ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের একমাস আগে নারায়ণগঞ্জের তৎকালীন এসপি আনিসুর রহমানকে প্রত্যাহার করে নেয় নির্বাচন কমিশন (ইসি)। পরে হারুন অর রশীদ নারায়ণগঞ্জের এসপি হিসেবে পদায়ন করা হয়। হারুন অর রশীদ সেখানে ১১ মাস এসপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।


আরও খবর