Logo
শিরোনাম

ভোলায় ছাদ থেকে পড়ে প্রাণ গেলো শ্রমিকের

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ | ৪৪জন দেখেছেন
Image

ভোলার বোরহানউদ্দিনে একটি দোকানের দ্বিতীয় তলায় কাজ করতে গিয়ে ছাদ থেকে পড়ে মো. সলেমান (২৫) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন।

সোমবার (৪ জুলাই) সকালে উপজেলার টবগী ইউনিয়নের ফকিরহাট বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সলেমান ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের আব্দুল মালেকের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সকাল থেকে সলেমানসহ আরও চার শ্রমিক ফকিরহাট বাজারের একটি দোকানের দ্বিতীয় তলার ছাদে রড বাঁধাইয়ের কাজ করছিলেন। এ সময় পা পিছলে সলেমান ছাদ থেকে নিচে পড়ে মাথায় মারাত্মক আঘাত পান। তাকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

বোরহানউদ্দিন থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আব্দুল আল মামুন জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে। তবে তার পরিবার থেকে এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি।


আরও খবর



ছাত্রাবাসে থাকতে অভিভাবকদের গুনতে হবে টাকা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ জুলাই 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ | ১১জন দেখেছেন
Image

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা ২৫-২৭ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। এ সময় ভর্তি পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে আসা অভিভাবকদের ছাত্রাবাসে থাকতে হলে টাকা দিতে হবে বলে জানিয়েছে মেস মালিক সমিতি।

বুধবার (২০ জুলাই) রাবি ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতিমূলক সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভাটি রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) আয়োজনে নগর ভবনের সরিৎ দত্ত গুপ্ত সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়।

রাজশাহী মহানগর মেস মালিক সমিতির সভাপতি এনায়েতুর রহমান বলেন, নগরীর ছাত্রাবাসে প্রায় ৫০ হাজার শিক্ষার্থীর আবাসনের ব্যবস্থা করা সম্ভব হবে। রাবি ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ছাত্রবাসগুলোতে সম্পূর্ণ ফ্রিতে রাখা হবে। তবে তাদের সঙ্গে আসা অভিভাবকদের থাকতে টাকা দিতে হবে। এক্ষেত্রে টিনশেড বা আধাপাকা ছাত্রাবাসে প্রতিজন ৩০০ টাকা ও পাকা ভবনে প্রতিজন ৫০০ টাকা দিয়ে থাকতে পারবেন।

সভায় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী পরিচ্ছন্ন ও শান্তির নগরী হিসেবে সারাদেশে সুনাম রয়েছে। ২৫ জুলাই থেকে ২৭ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য রাবির ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে ভর্তিচ্ছু, অভিভাবকসহ প্রায় তিন লাখ মানুষের আগমন ঘটবে। সবার সার্বিক সহযোগিতায় এবারও রাবির ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে চাই। নগরীতে যারা আসবেন, তারা ভালো অভিজ্ঞতা নিয়ে ফিরে যাবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

এ সময় সভায় রাবি উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. চৌধুরী মো. জাকারিয়া ও অধ্যাপক ড. মো. সুলতান-উল-ইসলামও বক্তব্য দেন। তারা বলেন, ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে রাবি কর্তৃপক্ষ সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছে। ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে বিপুল সংখক মানুষের আগমনের বিষয়টি মাথায় রেখে সার্বিক দিক সমন্বয়ে রাসিকের গৃহীত উদ্যোগের জন্য অশেষ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। সবার সহযোগিতায় আমরা সুষ্ঠুভাবে ভর্তি পরীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারবো বলে আশা করি।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক তানবিরুল আলম, কবি আরিফুল হক কুমার, রাজশাহী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক হবিবুর রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশাদ আলী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক জিয়া হাসান আজাদ হিমেল, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাসুদুর রহমান রিংকু, আবাসিক হোটেল মালিক সমিতির সভাপতি খন্দকার হাসান কবির।


আরও খবর



গুলশানে প্লট বরাদ্দ: কুতুবের জামিন স্থগিত

প্রকাশিত:বুধবার ২০ জুলাই ২০22 | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
Image

ভুয়া আমমোক্তারের মাধ্যমে শ্বশুর ও আত্মীয়-স্বজনদের নামে প্লট বরাদ্দের মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ভূমি মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রশাসনিক কর্মকর্তা কুতুব উদ্দিন আহমেদকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন আট সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত। একই সঙ্গে এ বিষয়ে আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য আগামী ৮ আগস্ট দিন ঠিক করা হয়েছে।

বুধবার (২০ এপ্রিল) আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম এ আদেশ দেন। এদিন আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মো. খুরশিদ আলম খান।

এর আগে, গত ১৪ জুলাই কুতুব উদ্দিন আহমেদের ছয় মাসের জামিন মঞ্জুর করেন হাইকোর্ট। পরে গত ১৭ জুলাই হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত চেয়ে আবেদন করে দুদক।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কুতুব উদ্দিন আহমেদকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত। এরপর গত ১৫ মার্চ নিম্ন আদালতে সাজার বিরুদ্ধে কুতুবের আপিল শুনানির জন্য নেন হাইকোর্ট।

২০১৮ সালের ৮ এপ্রিল কুতুব উদ্দিনকে গ্রেফতার করে দুদকের উপ-পরিচালক মির্জা জাহিদুল আলমের নেতৃত্বাধীন একটি দল। এর আগে গুলশান থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

কুতুব উদ্দিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি সরকারি কর্মকর্তা হওয়া সত্ত্বেও ভুয়া আমমোক্তারনামার মাধ্যমে গুলশানে ১০ কাঠার একটি প্লট তার শ্বশুরসহ কয়েকজনের নামে বরাদ্দ করেন। শ্বশুর ও স্বজনদের নামে গুলশান অভিজাত এলাকায় সরকারি ১০ কাঠা জমি ক্রয় দেখিয়ে নিজেই বসবাস করেন।

ওই মামলায় কুতুবের সঙ্গে নাজমুল ইসলাম সাঈদকেও আসামি করা হয়। একই বছরের ১২ এপ্রিল কুতুবকে বরখাস্ত করে আদেশ জারি করে ভূমি মন্ত্রণালয়।


আরও খবর



১৫ মিনিটে সূচক বাড়লো ১০০ পয়েন্ট

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
Image

নিয়ন্ত্রক সংস্থা থেকে প্রতিটি সিকিউরিটিজের ফ্লোর প্রাইস বেধে দেওয়ার পর রোববার (৩১ জুলাই) লেনদেনের শুরুতে শেয়ারবাজারে বড় উত্থান দেখা দিয়েছে।

লেনদেন শুরুর মাত্র ১৫ মিনিটেই ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ১০০ পয়েন্ট বেড়ে যায়। লেনদেনের সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা বাড়তে দেখা যাচ্ছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। সেই সঙ্গে বড় উত্থান হয়েছে সবকটি মূল্যসূচকের।

এর আগে শেয়ারবাজারে টানা দরপতন দেখা দিলে গত বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) প্রতিটি শেয়ারের ফ্লোর প্রাইস (দামের সর্বনিম্ন সীমা) বেধে দেয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। শেষ পাঁচ কার্যদিবসের ক্লোজিং প্রাইসের গড় দাম করা হয় প্রতিটি সিকিউরিটিজের ফ্লোর প্রাইস।

দাম সমন্বয় করায় রোববার শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হতেই সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়ে যায়। ফলে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ৩৬ পয়েন্ট বেড়ে শুরু হয় দিনের লেনদেন। লেনদেনের সময় গাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা। এতে ১৫ মিনিটের মাথায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ১০০ পয়েন্ট বেড়ে যায়।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১০টা ৫০ মিনিটে ডিএসইতে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে ৩৪৪ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। বিপরীতে দাম কমেছে ১২টির এবং ২০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এতে ডিএসইর প্রধান সূচক বেড়েছে ১০০ পয়েন্ট। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৩৪ পয়েন্ট বেড়েছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ২১ পয়েন্ট বেড়েছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১১৬ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২০২ পয়েন্ট বেড়েছে। লেনদেন হয়েছে ১ কোটি ৫১ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ১২৭ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১২০টির, কমেছে ২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫টির।


আরও খবর



উজিরপুরে দুর্ঘটনায় নিহত ৬: বাসচালক গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
Image

বরিশালের উজিরপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ছয়জন নিহতের ঘটনায় বাসচালক মো. মশিউর রহমানকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

সোমবার (২৫ জুলাই) সকালে নগরীর রূপাতলী র‌্যাব-৮ এর সদর দপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তাকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। মো. মশিউর রহমান বাগেরহাটের গোটাপাড়া এলাকার ইফসুফ আলীর ছেলে।

র‌্যাব-৮ এর উপ-পরিচালক মেজর জাহাঙ্গীর আলম জানা, গত ২১ জুলাই সকালে গাজীপুরের কোনাবাড়ি এলাকা থেকে পদ্মা সেতু দেখতে একটি মাইক্রোবাসে করে ১০ জন রওনা হন। তারা ঢাকা-বরিশাল সড়কের নতুন শিকারপুর এলাকায় পৌঁছালে মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রণ হারায়। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা মোল্লা ট্রাভেলসের একটি বাস ওই মাইক্রোকে চাপা দেয়। এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়ে-মুচড়ে ঘটনাস্থলে একজন নিহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উজিরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আরও তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনায় আহত ছয়জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে আরও দুজনের মৃত্যু হয়।

মেজর জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এ ঘটনায় মাইক্রোচালক গুরুতর আহত আছর উদ্দিন সরকারের ছেলে মো. সাব্বির বাদী হয়ে উজিরপুর থানায় মামলা করেন। দুর্ঘটনার পর চালক মশিউর আত্মগোপনে চলে যান। তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় তার অবস্থান জেনে রোববার রাতে তাকে বরগুনা বাসস্ট্যান্ড এলাকা তাকে গ্রেফতার করে। পরে তাকে গৌরনদী হাইওয়ে থানায় হস্তান্তর করা হয়।


আরও খবর



কক্সবাজারের ‘মাদক কারবারি’ রোজিনার বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ জুলাই ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
Image

কক্সবাজার শহরের আলোচিত নারী রোজিনা আকতারের বিরুদ্ধে অবশেষে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। কক্সবাজার সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন। তার বিরুদ্ধে ২৭ লাখ ৮৯ হাজার ৭৭৭ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপনসহ জ্ঞাত আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণভাবে ৪৭ লাখ ৯২ হাজার ২৭৭ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে করা মামলায় রোজিনা আকতারকে (৩০) একমাত্র আসামি করা হয়েছে।

রোজিনা কক্সবাজার পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কুতুবদিয়া পাড়ার রিয়াজ আহমদ ইলিয়াসের স্ত্রী।

মামলার বাদী দুদকের সহকারী পরিচালক রিয়াজ উদ্দিন এজাহারে উল্লেখ করেন, রোজিনা আকতারের বিরুদ্ধে মাদক কারবারের মাধ্যমে জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদ অর্জনের প্রাথমিক অনুসন্ধানের ভিত্তিতে দুদকে সম্পদ বিবরণী দাখিলের আদেশ আসে। এর পরিপ্রেক্ষিতে তার নামে সম্পদ বিবরণী দাখিলের আদেশ জারি করা হয়। ২০২১ সালের ১ জুন ওই আদেশ গ্রহণ করে একই বছরের ৯ জুন তিনি সম্পদ বিবরণী দুদকে দাখিল করেন।

সম্পদ বিবরণী যাচাইয়ে দেখা যায়, রোজিনা আকতার তার দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে স্থাবর সম্পদ হিসেবে কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা মৌজায় ৩ দশমিক ৬৬ শতাংশ জমি ১৯ লাখ ২০ হাজার টাকায় কিনেছেন মর্মে ঘোষণা দেন। তার দাখিল করা দলিল পর্যালোচনায় জমির মূল্য ৪৭ লাখ ৬ হাজার ৮০০ টাকা পাওয়া যায়। এক্ষেত্রে তিনি ২৭ লাখ ৮৬ হাজার ৮০০ টাকার স্থাবর সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপন করেছেন। এছাড়া তিনি তার দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে অস্থাবর সম্পদ হিসেবে স্বর্ণ, আসবাবপত্র, ব্যবসার মূলধন হিসেবে ৬ লাখ ২৭ হাজার ৫০০ টাকার অস্থাবর সম্পদ অর্জনের ঘোষণা দেন। সম্পদ বিবরণী যাচাইয়ে তার নামে ৬ লাখ ৩০ হাজার ৪৭৭ টাকার অস্থাবর সম্পদের তথ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়। আরও কয়েকটি ক্ষেত্র মিলিয়ে তিনি দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে ২৭ লাখ ৮৯ হাজার ৭৭৭ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য অসৎ উদ্দেশ্যে গোপন করে দুদক আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন।

রেকর্ডপত্র পর্যালোচনা বিষয়ে তিনি আরও উল্লেখ করেন, রোজিনা আকতার ২০০৯ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত তার পারিবারিক ব্যয়সহ অন্যান্য খরচ বাবদ ৩ লাখ ৯১ হাজার টাকা ব্যয় করেছেন। এসময় ৫৩ লাখ ৩৭ হাজার ২৭৭ টাকার স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদ অর্জন করেছেন। ব্যয়সহ তার মোট অর্জিত সম্পদের পরিমাণ ৫৭ লাখ ২৮ হাজার ২৭৭ টাকা। আয়ের বিপরীতে তার প্রতিষ্ঠান নুরী ফ্যাশন টেইলার্স থেকে এক লাখ ৮০ হাজার টাকা, নিউ সোনালিয়া শুটকি বিতান থেকে দেড় লাখ ৫০ টাকা, শারমি রিসোর্ট কটেজ থেকে এক লাখ ৯৮ হাজার টাকা, সাঈদ এন্টারপ্রাইজ থেকে ২ লাখ ৮৮ হাজার টাকা এবং নুরী কালেকশনের এক লাখ ২০ হাজার টাকা মিলিয়ে ৯ লাখ ৩৬ হাজার টাকার বৈধ ও গ্রহণযোগ্য উৎস পাওয়া যায়। সে হিসাবে তার আয়ের উৎসের অসঙ্গতিপূর্ণ ৪৭ লাখ ৯২ হাজার ২৭৭ টাকার সম্পদ ভোগ দখলে রেখে দুদক আইনে শান্তিযোগ্য অপরাধ করেন।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় কক্সবাজারের উপ-সহকারী পরিচালক (ডিএডি) মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বলেন, অপরাধ অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আবদুল মালেকের তদন্ত প্রতিবেদন মূলে রোজিনা আকতারের বিরুদ্ধে মামলাটি রুজু করা হয়েছে। মামলা তদন্তকালে অন্য কারও সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেলে তা আমলে নেওয়া হবে।


আরও খবর