Logo
শিরোনাম

ভ্রাম্যমাণভাবে ৯ হাজার কোটি টাকার দুধ-ডিম-মাংস বিক্রি

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ১৪১জন দেখেছেন
Image

ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে ৯ হাজার কোটি টাকার দুধ-ডিম-মাংস বিক্রি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

তিনি বলেছেন, করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতের উদ্যোক্তা ও খামারিদের সরকারের উদ্যোগে নগদ প্রণোদনা দেওয়া হয়েছে। এতে তারা ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছে। তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর ব্যবস্থা রাষ্ট্র করে দিয়েছে। করোনায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দুধ, ডিম, মাছ, মাংসের ভ্রাম্যমাণ বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়েছে। এতে উৎপাদক, সরবরাহকারী, বিপণনকারী ও ভোক্তারা লাভবান হয়েছে। এর মাধ্যমে প্রায় নয় হাজার কোটি টাকার পণ্য ভ্রাম্যমাণ ব্যবস্থায় বিক্রি হয়েছে।

রোববার(২৪ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর ফার্মগেটে কেআইবি কনভেনশন হলে বাংলাদেশ কৃষি সাংবাদিক ফোরাম আয়োজিত ‘বৈরী আবহাওয়ায় কৃষিজ উৎপাদন: অস্থিতিশীল বৈশ্বিক কৃষি পণ্যের বাণিজ্য’ শীর্ষক জাতীয় সংলাপে তিনি এসব কথা বলেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, করোনার বৈরী পরিস্থিতিতে মাছ, মাংস, দুধ, ডিমের বাজার স্থিতিশীল রাখার জন্য পোল্ট্রি ও ফিস ফিডের উপকরণ আমদানিতে সরকার কর ছাড় দিয়েছে। পোল্ট্রি ও ফিস ফিড তৈরির শিল্প স্থাপনে আগ্রহী উদ্যোক্তাদের কর ছাড় দেওয়ার বিষয়টিও সরকারের বিবেচনায় রয়েছে।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, জলবায়ু সহনশীল মৎস্য ও প্রাণিসম্পদের উৎপাদনে সরকারের উদ্যোগে বিভিন্ন ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বন্যা, খরা, সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বেড়ে যাওয়া ও লবণাক্ততা বৃদ্ধিসহ নানা প্রতিকূল পরিবেশ আমরা মোকাবিলা করছি। বৈজ্ঞানিক গবেষণার মাধ্যমে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রতিকূলতা মোকাবিলা করতে হবে। সরকারের উদ্যোগে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিকূলতায় হারিয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় থাকা মৎস্য ও প্রাণিসম্পদের প্রজাতি উদ্ভাবন করে তা সংরক্ষণ করা হচ্ছে। প্রতিকূল পরিবেশের কারণে দেশে ৬৪টি প্রজাতির দেশীয় মাছ হারিয়ে গিয়েছিল। গবেষণার মাধ্যমে এ পর্যন্ত ৩৪টি বিলুপ্তপ্রায় দেশীয় মাছের কৃত্রিম প্রজনন কৌশল ও চাষ পদ্ধতি আমাদের বিজ্ঞানীরা আবিষ্কার করেছে।

‘বৈরী পরিস্থিতিতে প্রাণী চিকিৎসা যেন ব্যাহত না হয় সেজন্য সরকারের উদ্যোগে মোবাইল ভেটেরিনারি ক্লিনিক চালু করা হয়েছে। অসুস্থ প্রাণী হাসপাতালে নয় বরং হাসপাতাল প্রাণির কাছে যাবে। এভাবে আধুনিক পদ্ধতির মাধ্যমে বৈরী আবহাওয়া ও প্রতিকূল পরিবেশ মোকাবিলার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, বাংলাদেশ একসময় প্রাকৃতিক দুর্যোগের প্রতীকী রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত ছিল। সে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। বাংলাদেশ খাদ্যের জন্য পরনির্ভরশীল ছিল, সেই বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। একসময় ভারত-মিয়ানমার থেকে গবাদিপশু না আসলে কোরবানি না হওয়ার আশঙ্কা ছিল। এখন কোরবানির হাটে আমাদের উৎপাদিত প্রাণী এক দশমাংশ উদ্বৃত্ত থাকে। এতে মানুষের পুষ্টি আমিষের চাহিদা মিটছে, উদ্যোক্তা তৈরি হচ্ছে, বেকারত্ব দূর হচ্ছে, গ্রামীণ অর্থনীতি সচল হচ্ছে। .

বাংলাদেশ কৃষি সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি গোলাম ইফতেখার মাহমুদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাহানোয়ার সাইদ শাহীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক ও বিশেষ অতিথি হিসেবে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মো. জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ড. এম এ সাত্তার মন্ডল, সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের ফেলো অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমান, এফবিসিসিআই’র সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন, এসিআই এগ্রিবিজনেসেস’র প্রেসিডেন্ট ড. এফ এইচ আনসারী, দি সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মাসরুর আরেফিন, গ্রীন ডেল্টা ইস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মঈনউদ্দিন আহমেদ।


আরও খবর



‘অশনি’র বাংলাদেশে আঘাত হানার আশঙ্কা নেই: প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ৪০জন দেখেছেন
Image

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র বাংলাদেশে আঘাত হানার আশঙ্কা এখন পর্যন্ত নেই বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান।

রোববার (৮ মে) সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান তিনি।

আন্দামান সাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি রোববার সকালে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এটি চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ১৭৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। যে দিকে যাচ্ছে এটি যদি সেদিকে ধাবিত হয় তাহলে ভারতের বিশাখাপত্নম, উড়িষ্যা, পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হেনে বাংলাদেশের সাতক্ষীরা অঞ্চলে আঘাত হানতে পারে।

তিনি বলেন, আবহাওয়াবিদ এবং আন্তর্জাতিক আবহাওয়া অফিস ধারণা করছে, ঘূর্ণিঝড়টি ১২ মে সকালে বিশাখাপত্নম, ভুবনেশ্বর, পশ্চিমবঙ্গ স্পর্শ করে দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হবে। বাংলাদেশে আঘাত হানার সম্ভাবনা এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

‘অশনি’র প্রভাবে বাংলাদেশে ঝড়-বৃষ্টি হবে। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় বা জলোচ্ছ্বাস হবে না বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

এনামুর রহমান বলেন, ঘূর্ণিঝড় যে কোনো সময় যে কোনো দিকে মোড় নিতে পারে। এখন এটি উত্তর-পশ্চিম দিকে ধাবিত হচ্ছে। এটি যদি মোড় নিয়ে উত্তর দিকে ধাবিত হয়, তাহলে আমাদের দেশের সাতক্ষীরা, খুলনা, বরিশাল ও পটুয়াখালীতে আঘাত হানতে পারে।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা সবাইকে নিয়ে সভা করেছি, তাদের সচেতন করে দেওয়া হয়েছে। মাঠে মেনেছে সিপিপি স্বেচ্ছাসেবকরা। তারা ঘূর্ণিঝড়ের সতর্কবার্তা প্রচার করছে। আমরা আশ্রয় কেন্দ্রগুলো প্রস্তুত করার নির্দেশনা দিয়েছি। সেগুলোর প্রস্তুতি প্রায় শেষ। সেখানে রান্না করা খাবার দেওয়ার জন্য চাল ও অর্থ দিয়েছি। মোটামুটি প্রস্তুতি আছে। করোনার কারণে আশ্রয় কেন্দ্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মানুষকে আশ্রয় দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছি।

দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি রোববার সকালের দিকে ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’তে রূপ নেয়। ফলে দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।


আরও খবর



লুঙ্গি পরে ‘ফারাক্কা লং মার্চ’ অনুষ্ঠানে এলেন ডা. জাফরুল্লাহ

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫৪জন দেখেছেন
Image

লুঙ্গি পরে ঐতিহাসিক ‘ফারাক্কা লং মার্চ’ দিবস পালন করলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও মওলানা ভাসানী পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

সোমবার (১৬ মে) বিকেলে ‘নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন, বাংলাদেশ’র আয়োজনে রাজশাহী নগরীর লালন শাহ মুক্তমঞ্চ পদ্মা নদীর পাড়ে দিবসটি পালন করা হয়। প্রতিপাদ্য ছিল ‘নদী বাঁচাও, দেশ বাঁচাও’।

আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ফারাক্কা লং মার্চ উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক মাহবুব সিদ্দিকী। সঞ্চালনায় ছিলেন নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হোসনে আলী পেয়ারা। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও মওলানা ভাসানী পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

jagonews24

দিবসটি বিকেল সাড়ে ৩টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর জন্য বিকেলের শেষভাগে শুরু হয়। তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় ফারাক্কা লং মার্চের এ গণজমায়েতে আসতে বিলম্ব করেন তিনি। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তিনি লালন শাহ মুক্তমঞ্চ প্রাঙ্গণে পৌঁছান। দলীয় নেতাকর্মীরা তার কাঁধে হাত রেখে ধীরে ধীরে মঞ্চে নিয়ে আসেন। এ সময় তাকে লুঙ্গি পরিহিত (মওলানা ভাসানীর অনুকরণে) অবস্থায় দেখা যায়।

মঞ্চে বসেই ফারাক্কা বাঁধ ও মওলানা ভাসানী সম্পর্কে খানিকটা বক্তব্য দেন ডা. জাফরুল্লাহ। পরে বলেন, ‘ফারাক্কা লং মার্চের ৪৬তম বার্ষিকীতে আমরা পানি, খাদ্য ও গণতন্ত্র রক্ষায় একত্রিত হয়েছি। বাংলাদেশের মানুষের দাবি আদায়ের জন্য এবং এদেশের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য আমরা একত্রিত হয়েছি। বাংলাদেশের মানুষ দাসত্ব নয়, গণতন্ত্র চায়।’

ঐতিহাসিক ফারাক্কা বাঁধ নির্মাণ, ফারাক্কা লং মার্চ ও মওলানা ভাসানীর কথা উল্লেখ করে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, মওলানা ভাসানী ১৯৭১-এর পর দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বলেছিলেন ‘পিন্ডির (পাকিস্তান) কাছে ছিনিয়ে এনেছি দিল্লির অধীনে গোলামির জন্য নয়’। আমাদের দাঁড়াতে হবে মাথা উঁচু করে। থাকতে হবে সবসময় ন্যায়নীতির পক্ষে।

jagonews24

এ সময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পানি সম্পদ পরিকল্পনা সংস্থার সাবেক মহাপরিচালক প্রকৌশলী ম. ইনামুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসনাত কাইয়ুম, রাজশাহী জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবুল কাশেম প্রমুখ।

বক্তারা দাবি, ভারতীয় কর্তৃপক্ষের পানি নিয়ে আগ্রাসী নীতি পরিত্যাগ করতে হবে। আন্তর্জাতিকভাবে নদীর পানির সুষ্ঠু বন্টনের স্বার্থে নদী বিষয়ে ভারত, বাংলাদেশ, চীন, নেপাল ও ভুটানকে নিয়ে একটি আঞ্চলিক পানি ফোরাম গঠন করতে হবে।


আরও খবর



ময়মনসিংহে দুর্ঘটনার কবলে তিন বাস, নিহত ১

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪৮জন দেখেছেন
Image

ময়মনসিংহের দুই উপজেলায় পৃথক বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত হয়েছেন। এসব ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ৩৫ জন।

বুধবার (১১ মে) বেলা ১১ থেকে দুপুর সোয়া ১২টার মধ্যে জেলার সদর ও ফুলপুর উপজেলায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

এ বিষয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আশিকুল হক বলেন, বেলা ১১টার দিকে ঢাকা থেকে নেত্রকোনাগামী একটি যাত্রীবাহী বাস সদর উপজেলার রশিদপুর যেতেই বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে বাস দুটি দুমড়েমুচড়ে চালকসহ অন্তত ২০ জন আহত হন। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

jagonews24

তিনি আরও বলেন, এই ঘটনায় বাস দুটি জব্দ করা হয়েছে। এক বাসের চালক আহত আর অন্য বাসের চালক পালিয়েছেন।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পর উপ-পরিদর্শক (এসআই) আক্তারুজ্জামান বলেন, সদরের দুর্ঘটনায় এই পর্যন্ত ২০ জনকে আমরা পেয়েছি। এর মধ্যে ১১ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি আহতদের চিকিৎসক দেখছেন। ভর্তি আরও বাড়তে পারে। তবে, এই ঘটনায় গুরুতর আহত একজনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

jagonews24

এদিকে, ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, দুপুর সোয়া ১২টার দিকে হালুয়াঘাট থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি বাস ইমাদপুর এলাকায় আরেকটি বাসকে ওভারটেক করতে চায়। এসময় বিপরীত দিক থেকে ধান কাটার মেশিন বহনকারী একটি ট্রাক আসে। সেটিকে সাইড দিতে গিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে পুকুরে পড়ে যায় ওভারটেক করতে যাওয়া বাসটি। এতে বাসের এক যাত্রী নিহত হন।

এ বিষয়ে ফুলপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ আল আমিন বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে কাজ করছি। এ ঘটনায় একজন মারা গেছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। নিহত ও আহতদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। তবে, কারও নাম-ঠিকানা এখনো জানা যায়নি। পরে বিস্তারিত জানানো হবে।


আরও খবর



লাখো মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
Image

মালয়েশিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর ‘ওপেন হাউস ডে’ জাঁকজমকপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (৮ মে) সকাল ১০টায় শুরু হওয়া অনুষ্ঠান শেষ হয় বিকেল ৫টায়। এসময় লাখ লাখ মানুষের পদচারণায় অনুষ্ঠান মুখরিত হয়ে ওঠে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ইয়াং দি-পার্টুয়ান আগোং সুলতান আবদুল্লাহ সুলতান আহমেদ শাহ। বেলা ১১টা ৩০ মিনিটে সুলতানকে অভ্যর্থনা জানান মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকোব ও সরকারের মুখ্য সচিব মোহাম্মদ জুকি আলী।

jagonews24ওপেন হাউস ডে উপস্থিতির একাংশ

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মন্ত্রিপরিষদ আয়োজিত ঈদুল ফিতর ওপেন হাউস ডে, ‘কেলুয়ারগা মালয়েশিয়া’ (মালয়েশিয়ান পরিবার) চেতনার মূর্ত প্রতীক, যা মানুষের ভালোবাসা আজ প্রমাণ করেছে। সব ভেদাভেদ ভুলে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। শুধু সরকার নয় দেশের জন্য আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

২০২১ সালের ২০ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে তিনি ও তার মন্ত্রিসভা এটিই প্রথম ওপেন হাউস ডে এর আয়োজন করে। এ আয়োজনে যারা সহযোগিতা করেছেন তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

jagonews24সাংবাদিদের সঙ্গে কথা বলছেন, প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকোব

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে, গত দুই বছর ধরে বার্ষিক ‘ওপেন হাউস’ অনুষ্ঠিত হয়নি। সর্বশেষ ২০১৯ সালের ৫ জুন আয়োজন করা হয়েছিল পেরদানায়, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ডা. মাহাথির মোহাম্মদ ও তার মন্ত্রিসভার উদ্যোগে।


আরও খবর



ওয়ার্নার-রভম্যানের তাণ্ডবে রানপাহাড়ে দিল্লি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
Image

দুই দলই হেরেছে নিজেদের শেষ ম্যাচ। সেরা চারে থাকার জন্য দুই দলের সামনেই জয়ের বিকল্প নেই। এমতাবস্থায় সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০৭ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে দিল্লি ক্যাপিট্যালস। ম্যাচ জিততে হায়দরাবাদকে করতে হবে ২০৮ রান।

এখন পর্যন্ত নয় ম্যাচে পাঁচ জয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচ নম্বরে রয়েছে হায়দরাবাদ। সমান ম্যাচে চার জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে দিল্লির অবস্থান সপ্তম। আজকের ম্যাচে হায়দরাবাদকে হারাতে পারলে সমান ১০ পয়েন্ট নিয়ে ভালো নেট রানরেটের সুবাদে পাঁচে উঠে যাবে দিল্লি।

মুম্বাইয়ের ব্রাবোর্ন স্টেডিয়ামে আজ মোস্তাফিজুর রহমানসহ চার খেলোয়াড়কে একাদশ থেকে বাদ দিয়ে খেলতে নেমেছে দিল্লি। যার প্রভাব ব্যাটিংয়ে তেমন দেখা যায়নি। অস্ট্রেলিয়ান তারকা ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যারিবীয় হিটার রভম্যান পাওয়েলের ঝড়ে বড় সংগ্রহ পেয়েছে তারা।

Warner

হায়দরাবাদের আমন্ত্রণে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো ছিল না দিল্লির। ইনিংসের পঞ্চম বলে রানের খাতা খোলার আগেই আউট হয়ে যান ডানহাতি ওপেনার মানদিপ সিং। দ্বিতীয় উইকেটে ৩.৩ ওভারে ৩৭ রান যোগ করেন মিচেল মার্শ ও ডেভিড ওয়ার্নার।

যেখানে মার্শের অবদান ছিল মাত্র ১০ রান। এরপর অধিনায়ক রিশাভ পান্তের সঙ্গে মাত্র ৪.৪ ওভারে ৪৮ রানের জুটি গড়েন ওয়ার্নার। শ্রেয়াস গোপালের করা নবম ওভারে পরপর চার বলে তিন ছয় ও এক চার মেরে আউট হন পান্ত। তার ব্যাট থেকে আসে ১৬ বলে ২৬ রান।

Rovman

অধিনায়কের বিদায়ের পর দলকে বড় সংগ্রহ পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন দুই বিদেশি রিক্রুট রভম্যান ও ওয়ার্নার। অবিচ্ছিন্ন চতুর্থ উইকেট জুটিতে এ দুজন মিলে মাত্র ১১ ওভারে যোগ করেছেন ১২২ রান। যা দিল্লিকে নিয়ে গেছে ২০৭ রানে।

শুরুতে ঝড় তোলা ওয়ার্নার শেষ দিকে শুধু চেয়ে দেখেছেন রভম্যানের তাণ্ডব। মাত্র ৮ রানের জন্য সেঞ্চুরি করতে পারেননি ওয়ার্নার। তবে তাকে ননস্ট্রাইকে রেখে একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন ক্যারিবীয় রভম্যান।

শেষ পর্যন্ত ১২ চার ও ৩ ছয়ের মারে ৫৮ বলে ৯২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন ওয়ার্নার। অন্যদিকে ৩ চার ও ৬টি বিশাল ছয়ের মারে ৩৫ বলে ৬৭ রানের সাইক্লোন ইনিংস খেলেছেন রভম্যান। যার সুবাদে শেষ ৪ ওভারে ৬০ রান পায় দিল্লি।


আরও খবর